আখয়ার

সুফিকোষ

‘আখয়ার’ আরবি শব্দ, বিশেষণ, পুংলিঙ্গ; এটি ‘খায়র’ শব্দ থেকে এসেছে। আখয়ার অর্থ সর্বোত্তম, সর্বশ্রেষ্ঠ, সেরাদের সেরা, চয়ন করা, বাছাইকৃত, নির্বাচিত। মহাগ্রন্থ পবিত্র কোরআনে ও হাদিসে এর বহুবিধ ব্যবহার লক্ষ করা যায়। যেমনÑ ‘আপনি স্মরণ করুন আমার প্রিয় বান্দাদের মধ্যে শক্তিশালী ও সূক্ষ্মদর্শী ইবরাহিম (আ.), ইসহাক (আ.), ইয়াকুব (আ.) এর। নিশ্চয়ই আমি তাদের বিশেষায়িত করেছি পরলোকের (আপন নিবাসের) বিশেষ স্মরণের নিমিত্তে। আর নিশ্চয়ই তারা (নবীরা ও রাসুলরা) ছিলেন আমার কাছে অবশ্যই নির্বাচিতদের মধ্য থেকে সর্বোত্তম।’ (সূরা-৩৮ ছ-দ : ৪৫, ৪৬ ও ৪৭)। ‘আর আপনি স্মরণ করুন ইসমাইল (আ.), ইয়াছা (আ.) ও যুলকিফল (আ.) এর; তারা সবাই ছিলেন সর্বশ্রেষ্ঠদের অন্তর্ভুক্ত।’ (সূরা-৩৮ ছ-দ : ৪৮)। 
আখয়ার আবরার অর্থেও ব্যবহার হয়; কখনও কখনও এটি মুস্তফা ও মুজতবার সমার্থকও হয়। সর্বগুণে গুণান্বিত, সব উত্তম অভিধায় অবিহিত ব্যক্তিরাই হলেন ‘আখয়ার’। আখয়ারদের মধ্যে প্রথম ও প্রধান হলেন নবী-রাসুল আলাইহিমুস সালামরা; অতঃপর যারা তাদের অনুসরণে শ্রেষ্ঠ বা অগ্রগামী তারা হলেন আখয়ারদের অন্তর্ভুক্ত।  
পরিভাষায় আখয়ার হলো তরিকত ও তাসাউফের সালিকিনদের সাতাশ বা ঊনত্রিশ স্তরের একটি স্তর, যা আবার আওতাদের সমপর্যায়ের স্তর এবং মাজমুআয়ে উছমানীতে বর্ণিত ইনসানের অষ্টত্রিংশ পর্বের ত্রয়োদশ পর্ব। এটি বিলায়াতের বিশেষ মর্যাদাপূর্ণ ধাপ। এরা বিশেষ সম্মানের অধিকারী এবং মর্যাদাবান ও আল্লাহর নৈকট্যপ্রাপ্ত বান্দা। সাধারণত বিশেষ পদমর্যাদা ও সম্মাননাপ্রাপ্ত ওলিদেরই আখয়ার বলা হয়ে থাকে। 
(লিসানুল আরব, ইবনে মানযূর রহ., খ- : ৪, অধ্যায় : ‘খ’, পৃষ্ঠা : ২৫৭-২৫৯)। 


প্রাণীর প্রতি নবীজির মমতা
‘আমি আপনাকে বিশ্ববাসীর জন্য রহমতস্বরূপই প্রেরণ করেছি।’ (সূরা আম্বিয়া :
বিস্তারিত
স্রষ্টাকে খুঁজি সাগরের বিশালতায়
বিশাল জলরাশির উত্তাল তরঙ্গমালায় প্রবাহিত সমুদ্র আল্লাহর এক অপূর্ব সৃষ্টি।
বিস্তারিত
দুধপানের উপকারিতা
দুধের পুষ্টিগুণ বিচারে এটি মহান আল্লাহ তায়ালার বড় একটি নেয়ামত।
বিস্তারিত
পবিত্র শবে মেরাজ ২২ মার্চ
বাংলাদেশের আকাশে সোমবার রজব মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। বুধবার থেকে
বিস্তারিত
পবিত্র শবে মেরাজ কবে, জানা
১৪৪১ হিজরি সনের পবিত্র শবে মেরাজের তারিখ নির্ধারণ এবং রজব
বিস্তারিত
মাতৃভাষার নেয়ামত ছড়িয়ে পড়ুক
ভাষা আল্লাহ তায়ালার বিরাট একটি দান। ভাষার রয়েছে প্রচ- শক্তি;
বিস্তারিত