প্রতি মাসে ৪ হাজার রোগী ভারত যায়, সাথে ৪০ কোটি টাকা

রংপুর নগরীর মাহিগঞ্জের ভিসা সেন্টারে সকালে লাইনে এসে দাঁড়িয়েছেন শান্ত রায়। তার হার্টের সমস্যা। এ সমস্যা নিয়ে তিনি রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কয়েকবার ভর্তি হয়েছিলেন। চিকিৎসক রেফার্ড করেন ঢাকায়। কিন্তু তিনি ঢাকা না গিয়ে ভারতে চিকিৎসা করার সিদ্ধান্ত নেন। একবার ভারতে গিয়ে চিকিৎসা করিয়েছেন। পুনরায় তিনি ভারত যাওয়ার জন্য প্রস্তুুতি নিয়েছেন। 

তিনি জানান,  ঢাকায় যে পরিমাণ টাকা খরচ হয়, কলকাতাতে প্রায় একই রকম টাকা খরচ। চিকিৎসাও ভালো।

নগরীর মন্ডলপাড়ার শাহাবুদ্দি হিরা কয়েকদিন আগে কলকাতায় যান চিকিৎসা নিতে। আবারও যাওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছেন। জানালেন, তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। বাংলাদেশের যে চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা নিয়েছেন তিনি বলেছেন, তার হার্টে ব্লক রয়েছে। রিং পরাতে হবে। কিন্তু কলকাতার চিকিৎসকরা তার হার্টে কোনো ব্লক পাননি। রিং পরানোর প্রয়োজন নেই। তিনি ওষুধ সেবন করে সুস্থ আছেন।

শান্ত রায় ও হিরার মত শত শত রোগী উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর থেকে ভারত যাচ্ছেন। রংপুর ভিসা সেন্টার থেকে প্রতি মাসে চার হাজারের বেশি রোগী চিকিৎসা নিতে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে যাচ্ছেন। রোগীপ্রতি গড়ে এক লাখ করে খরচ হলে প্রতি মাসে ৪০ কোটি টাকার ওপর ভারতে চলে যাচ্ছে। এই টাকার সিংহভাগই হুন্ডির মধ্যামে যাচ্ছে। তবে ওপেনহার্টসহ জটিল রোগীদের ক্ষেত্রে ৪ থেকে ৬ লাখ টাকা পর্যন্ত খরচ হচ্ছে।
 
রংপুর ভিসা সেন্টার সূত্রে জানা যায়, এই ভিসা সেন্টার প্রতিদিন কমপক্ষে ২৫০ জনকে ভারতে যাওয়ার ভিসা দেয়া হয়। এর মধ্যে চিকিৎসা ভিসাই দেয়া হয় ৫০ শতাংশ। রংপুর বিভাগের রংপুর, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাটসহ অন্যান্য এলাকার প্রতিদিন গড়ে দেড়শজন চিকিৎসা ভিসা নিয়ে ভারতের কলকাতা, দিল্লি, চেন্নাই, ভেলর ইত্যাদি এলাকায় যাচ্ছেন। এখান থেকে প্রতিমাসে চার হাজারেও বেশি মানুষ ভিসা নিয়ে ভারতে চিকিৎসা নিতে যান।

রংপুরের সিভিল সার্জন ডাক্তার জাকিরুল ইসলাম জানান, দেশের চিকিৎসকদের প্রতি আস্থাহীনতার কারণেই এমনটি হচ্ছে। এ অবস্থা থেকে উত্তোরণের জন্য চিকিৎসক এবং রোগী উভয়ের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করা প্রয়োজন।

রংপুর ভিসা সেন্টারের ইনচার্জ প্রণব কুমার চক্রবর্তি জানান, রংপুরে ভিসা সেন্টার থেকে প্রতিদিন গড়ে আড়াইশ ভিসা দেয়া হয়। এর মধ্যে চিকিৎসা ভিসা ৪০ থেকে ৫০ শতাংশ।


জলের ফলে দিন বদল
নদী মাতৃক এই দেশ। সারা দেশে জালের মতো ছড়িয়ে রয়েছে
বিস্তারিত
বাসক পাতায় ভাগ্য বদল
বাসক পাতার ঔষধি গুণাগুণ সম্পর্কে কম-বেশি সবাইর জানাশোনা আছে। সর্দি-কাশি
বিস্তারিত
মতলব উত্তরে আখের বাম্পার ফলন
মতলব উত্তর উপজেলায় এ বছর চিবিয়ে খাওয়া আখের বাম্পার ফলন
বিস্তারিত
রংপুরে সড়ক-মহাসড়কে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে অবৈধ
রংপুরে সড়ক-মহাসড়কগুলোতে ব্যাপকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে অবৈধ নছিমন, করিমন, মুড়িরটিন, মোটরসাইকেল,
বিস্তারিত
দেশের চাহিদা পূরণ করে রপ্তানির
রংপুর বিভাগে পোলট্রি শিল্পের ১১ বছরে প্রসার হয়েছে ১১ গুণের
বিস্তারিত
জগন্নাথপুরে আমন রোপণে কোমর বেঁধে
আর ১৫ দিন পরেই শেষ হচ্ছে ভাদ্র মাস। ভাদ্র মাসের
বিস্তারিত