পীরগঞ্জে ভেন্ডাবাড়ী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় যেন গো-চারণভূমি

যে মাঠ শিক্ষার্থীদের কোলাহলে মুখরিত থাকার কথা, সেই বিদ্যালয় মাঠ এখন গো-চারণ ভূমিতে পরিণত হয়েছে। গত চারদিন ধরে কাগজ-কলমে বিদ্যালয় খোলা থাকলেও ছাত্র-ছাত্রীর উপস্থিতি নেই বললেই চলে। শিক্ষক শিক্ষিকার উপস্থিতিও হাতেগোনা।

ঘটনাটি রংপুরের পীরগঞ্জে ভেন্ডাবাড়ী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে এ অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।  

মঙ্গলবার (২৪ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১টায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বিদ্যালয় মাঠে গরু-ছাগল চরছে। অনেকে আবার ক্রিকেট খেলায় ব্যস্ত। বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষগুলো খোলা থাকলেও কোনো শিক্ষার্থী নেই। প্রধান শিক্ষকের কার্যালয় বন্ধ। সহকারী শিক্ষক কক্ষে ৫/৬ জন শিক্ষক খোশগল্পে মশগুল। 

সাংবাদিকের উপস্থিতি টের পেয়ে কক্ষ থেকে বের হয়ে এলেন সহকারী প্রধান শিক্ষিকা (প্রধান শিক্ষক আজিজুল ইসলামের সহধর্মিণী) শেফালী বেগম। প্রধান শিক্ষকের কার্যালয় বন্ধ কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এমপি মহাদয়ের প্রোগ্রামে গেছেন, তাই অফিস বন্ধ। স্কুল খোলা নাকি বন্ধ এমন প্রশ্নের উত্তর না দিয়ে  তিনি শিক্ষক কক্ষে চলে যান।

স্কুলের বারান্দায় বই হাতে দাঁড়িয়ে থাকা কয়েকজন ছাত্র-ছাত্রীকে জিজ্ঞেস করতেই তারা সমস্বরে বলে ওঠে ধর্মঘট চলছে। কীসের ধর্মঘট এমন প্রশ্নের জবাবে ক্রিকেট খেলায়রত ১০ম শ্রেণির ছাত্র মসফিকুজ্জামান আকাশ ও নাঈম হোসেন জানায়, ভেন্ডাবাড়ী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আজিজুল ইসলাম ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আওয়ামী লীগ নেতা মন্জুর হোসেন মন্ডলের অপসারণের দাবিতে এ ধর্মঘট। ইতিপূর্বে আমরা (ছাত্র-ছাত্রীরা) বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছি। 

একই দাবিতে ভেন্ডাবাড়ী গোল চত্বর মাঠে কয়েক দফা অভিভাবক সমাবেশও হয়েছে। অভিভাবকরা দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তাদের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের স্কুলে না পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেন। ফলে চার দিন ধরে শিক্ষার্থীশূন্য ভেন্ডাবাড়ী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়। 

এ ব্যাপারে কথা হলে অভিভাবক সবুজ মিয়া, নজরুল ইসলাম, আব্দুল মালেক ও আজাহার আলী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, প্রায় চার বছর ধরে পকেট কমিটির মাধ্যমে প্রধান শিক্ষক- নিয়োগ বাণিজ্য, বিধি-বহির্ভূতভাবে প্রধান শিক্ষক তার স্ত্রীকে সহকারী প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ প্রদান, বিদ্যালয়ের অবকাঠামো উন্নয়নের অর্থ আত্মসাৎ, শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রধান শিক্ষকের অসদাচারণ, সম্প্রতি ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠ অভিভাবক সদস্য নির্বাচিত হলেও তাদের মূল্যায়ন না করাসহ নানা অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগে এ ধর্মঘট। 

এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক আজিজুল ইসলামের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা হলে বলেন, স্কুলের কমিটি গঠন বিধি মোতাবেক হয়েছে। স্পিকারের প্রোগ্রামে আছি, সাক্ষাতে কথা হবে বলেই ফোন কেটে দেন। নব-নির্বাচিত অভিভাবক সদস্য আমিরুল ইসলাম নিক্সন, ইকবাল হোসেন লিপ্ত, ইব্রাহীম মন্ডল ও শারমিন বেগম জানান, বিদ্যালয়ের অভিভাবকরা বিপুল ভোটে আমাদের নির্বাচিত করলেও দুর্নীতিবাজ প্রধান শিক্ষক আমাদের মূল্যায়ন না করে রাতের অন্ধকারে আবারো পূর্বের সভাপতিকে একই পদে কমিটিতে রাখায় ক্ষিপ্ত অভিভাবকরা আন্দোলনে নামেন। এ ব্যাপারে রংপুর জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবরে অভিযোগ করা হয়েছে। 

এ বিষয়ে ভেন্ডাবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম প্রধান বলেন, শুধু প্রধান শিক্ষকের একগুঁয়েমির কারণে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। 

এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল মমিন মন্ডল বলেন, বিষয়টি আমি অবগত নই। রংপুর জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা রোকসানা বেগম জানান, অভিযোগ পেয়েছি, তবে স্কুলের কমিটি গঠন কিংবা ভেঙে দেয়ার এখতিয়ার আমার নেই। কিন্তু শিক্ষার্থীরা কেন স্কুলে আসছে না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। 

উল্লেখ্য, গত রোববার রাতে ম্যানেজিং কমিটিকে কেন্দ্র করেই আব্দুল মালেক নামের এক ব্যক্তি আহত হয়ে পীরগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।


পাহাড়খেকোদের আস্তানায় এসিল্যান্ডের অভিযান, এস্কেভেটর
কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামে প্রভাবশালী পাহাড়খেকোদের আস্তানায়
বিস্তারিত
ভিসি-রেজিস্ট্রারকে ক্যাম্পাসে সার্বক্ষণিক থাকার দাবি
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) ভিসি এবং রেজিস্ট্রারকে সার্বক্ষণিক ক্যাম্পাসে উপস্থিত
বিস্তারিত
চাঁদপুরে সরকারি ঘর পেয়েছে গৃহহীন
'দেশের একটি লোকও গৃহহীন থাকবে না' প্রধানমন্ত্রীর এই শ্লোগানকে সফল
বিস্তারিত
উচ্চ ফলনশীল জাত 'বিনা ধান-২২'
বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটস (বিনা) উদ্ভাবিত স্বল্প জীবনকালীন উচ্চ
বিস্তারিত
টাঙ্গাইলে ১৪৪ ধারার দ্বিতীয় দিনেও
টাঙ্গাইল শহরের বিভিন্ন এলাকায় তিন দিনের ১৪৪ ধারার দ্বিতীয় দিন
বিস্তারিত
ভাঙ্গায় বিয়ের প্রলোভনে দশম শ্রেণির
ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার মানিকদহ ইউনিয়নের মানিকদহ গ্রামে দশম শ্রেণির এক
বিস্তারিত