বৃষ্টির বন্ধুত্ব

প্রকৃতির প্রজ্ঞাপন ছিল বাতাসে, প্রস্তুতি ছিল ডাল ও ডানার; 

তথাপি র‌্যাবের মতো বৃষ্টির পাহারা ছিল না; এমনকি 
শিহরিত প্রস্থানকালেও নয়। অথচ এ কথা ঠিক যে 
নানকিং এর মোড়ে যখন জল ও হাওয়ার মেহফিল শেষ, 
তখন আবৃত ছায়ারা সোনাদিঘির জলে শায়িত এবং 
মাছেদের ডানায় আস্তরিত শ্রান্তি। হয়তোবা গালিবের 
অনুরোধেÑ মাঝে মাঝে এভাবেই অনুগত বরেন্দ্রীর বৃষ্টিবাহিনী! 
ফলে সবুজের সম্ভাবনায় হিল্লোলিত সুস্বপ্নের মাঠ।
 
আমি তেমনি এক মাঠের মাঝখানে দাঁড়িয়ে;
শ্রবণে আসে কলাপাতায় স্থনিত খনার বচন। 
কদম শাখায় নোলকের মতো ঝুলে আছে লালনের হুঁশিয়ারি, 
দৃষ্টি বিঁধে যায়। আর তাকে দুলিয়ে উত্তরের হাওয়া 
থেকে থেকে এনে দেয় শ্যামলপরশ; সেকি আনত মেঘের ছোঁয়া, 
নাকি মৌসুমের মোড়ে তুমিই দাঁড়িয়ে রয়েছো,Ñ 
এ কথায় মুখ খোলে না হাওয়া।


রুদ্রর কবিতা উচ্চারণ থেকে কথনে
রুদ্রর বহির্মুখী চেতনারাশির ওপর তার ভাবকল্প ও সংরাগবহুলতার তোড় আছড়ে
বিস্তারিত
আলো জেলে রাখি কবিতার খাতায়
কী নীরব রাত! একা একা বসে লিখছি। লেখার মাঝে দুঃখগুলো
বিস্তারিত
কতিপয় বিচ্ছিন্ন মুহূর্তের টীকা
  ১. নিরন্তর শুষ্কতার বশে আমি এক মরুকাঠ; অথচ ঠান্ডাজলপূর্ণ কিছু
বিস্তারিত
রৈখিক রক্তে হিজলফুল
বৃষ্টি হৃদয় উঠোন ভিজিয়ে যায় বিপ্রতীপ বিভাবন আঁধারের ক্লান্তিলগ্নে চোখের
বিস্তারিত
অপারগতা
না তুষার ঝড় না মাইনাস ফোর্টি শীতের রাত তো, বুড়োটা কিছুক্ষণ
বিস্তারিত
যন্ত্রণার দীর্ঘশ্বাস
  অলীক স্বপ্ন, অসীম দহন, সমুখের হিসাব নিকাশ প্রদীপের শিখা ছিল
বিস্তারিত