সিরাজগঞ্জে জমে উঠেছে কোরবানি পশুর হাট

সিরাজগঞ্জের বিভিন্ন স্থানের হাটগুলোয় প্রচুর কোরবানির পশু উঠেছে। গতবারের চেয়ে দাম ভাল পাওয়ায় কৃষক ও খামারিরাও অনেক খুশি। 

স্থানীয় ক্রেতারা বলছেন, গতবারের চেয়ে এবার কোরবানির পশুর দাম অনেক বেশি হওয়ায় অনেকেই পশু ক্রয় করতে হিমশিম খাচ্ছেন। তবে খামারিরা বলছেন, খৈল-ভুষিসহ খাদ্যের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় গরু লালন-পালনে ব্যয় বেশি হওয়ায় দাম একটু বেশি। যদি ভারতীয় গরু অবৈধপথে দেশে প্রবেশ করে তবে তারা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। 

জেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন, আসন্ন ঈদে লাভের আশায় কৃষকরা কঠোর পরিশ্রম করে গবাদিপশু পুষেছে। এবার জেলায় সাড়ে তিন লক্ষাধিক গবাদিপশু কোরবানির উপযোগী করা হয়েছে। কৃষক ও খামামিরা ন্যায্যমূল্য পেলে আগামীতে আরো বেশি গরু লালন-পালনে আগ্রহী হয়ে উঠবে তারা। আর ভারতীয় গরু যাতে অবৈধপথে দেশে না আসতে পারে সেজন্য সরকার কঠোর ব্যবস্থা নিয়েছে। 

জেলার অন্যতম পশুর হাট সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কালিয়া কান্দাপাড়া হাট। এ হাটে বৃহস্পতিবার বিকেলে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ষাঁড়, বলদ, মহিষ, খাসিসহ ছোট-বড় প্রচুর পরিমাণ কোরবানির পশু উঠেছে। কোরবানির গরু ছোট-বড় ৪০ হাজার টাকা থেকে প্রায় ২ লাখ টাকায় কেনাবেচা হচ্ছে। তবে ৫০ হাজার টাকা থেকে ৮০ হাজার টাকা দামের গরুর ওপর ক্রেতাদের চাহিদা বেশি। এ হাটে মহিষ, ছাগলের চাহিদাও কম নয়। 

এছাড়া জেলার তালগাছি, সোহাগপুর, সলংগা, রতনকান্দি, শালুয়াভিটা, নলকা, বড়হর, বহুলীসহ বিভিন্ন স্থানে কোরবানির পশুর হাট জমে উঠেছে। 

স্থানীয় খামারিরা জানান, দেশীয় গরুর চাহিদা বেশি। গত ৩ মাস আগের চেয়ে গরুর দাম থেকে ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে। এবারের ঈদে বিভিন্ন এলাকার খামার ও গৃহস্থদের বাড়ির গরু তাদের হাটে প্রাধান্য পাচ্ছে। অন্য বছরের মতো এবারে স্থানীয়ভাবে গড়ে ওঠা খামারের সংখ্যাও কম নয়। তবে বিভিন্ন গ্রামের গৃহস্থদের বাড়িতে বাড়িতে ৩-৪টি দেশীয় গরু পালন করেছেন অনেকে। 

সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তরা বলছেন, কোরবানির পশুর হাটগুলোতে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছে। হাটে ছিনতাই, অজ্ঞান পার্টি ও দালাল মুক্ত করার জন্য পোশাকধারী পুলিশসহ সাদা পোশাকে ও গোয়েন্দার মাধ্যমে থানা এলাকায় প্রতিটি পশুর হাটে ব্যাপক নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। জালনোট শনাক্তের জন্য মেশিন বসানো হয়েছে।


বাসক পাতায় ভাগ্য বদল
বাসক পাতার ঔষধি গুণাগুণ সম্পর্কে কম-বেশি সবাইর জানাশোনা আছে। সর্দি-কাশি
বিস্তারিত
মতলব উত্তরে আখের বাম্পার ফলন
মতলব উত্তর উপজেলায় এ বছর চিবিয়ে খাওয়া আখের বাম্পার ফলন
বিস্তারিত
রংপুরে সড়ক-মহাসড়কে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে অবৈধ
রংপুরে সড়ক-মহাসড়কগুলোতে ব্যাপকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে অবৈধ নছিমন, করিমন, মুড়িরটিন, মোটরসাইকেল,
বিস্তারিত
দেশের চাহিদা পূরণ করে রপ্তানির
রংপুর বিভাগে পোলট্রি শিল্পের ১১ বছরে প্রসার হয়েছে ১১ গুণের
বিস্তারিত
জগন্নাথপুরে আমন রোপণে কোমর বেঁধে
আর ১৫ দিন পরেই শেষ হচ্ছে ভাদ্র মাস। ভাদ্র মাসের
বিস্তারিত
এবার রংপুরে বেশি পশু
রংপুর বিভাগে এবার ঈদে বেশি পশু কোরবানি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
বিস্তারিত