ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক হবে, সড়কমন্ত্রীর আশা

মহাখালী বাস টার্মিনাল পরিদর্শনকালে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আমার বিশ্বাস এবারের ঈদ যাত্রা স্বস্তিদায়ক হবে। সব মিলিয়ে গত ঈদের চেয়েও এবারে ঈদ স্বস্তিদায়ক হবে।’ ঈদযাত্রায় এবার যাত্রীদের অভিযোগ কম পাওয়া যাচ্ছে বলেও দাবি করেন মন্ত্রী।

শুক্রবার বেলা ১১টায় রাজধানীর মহাখালী বাস টার্মিনাল পরিদর্শন ও ঈদযাত্রীদের সাথে কুশল বিনিময় শেষে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এসব কথা বলেন।

মহাখালিতে ঘরমুখো মানুষের ঈদযাত্রা পরিদর্শনে গিয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তি ও আরামদায়ক হবে। রাস্তায় যেসব স্থানে সমস্যা ছিল তা সমাধান করা হয়েছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ঈদের ১০ দিন আগেই সড়কের কাজ ও খোঁড়াখুঁড়ি বন্ধ করা হয়েছে। শুধুমাত্র পশুবাহী পরিবহন যদি সঠিক লেন মেনে চলাচল করে তবে আর সমস্যা হবে না।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী ২৩টি সেতু উদ্বোধন করেছেন। ঢাকা-টাঙ্গাইল পথে অন্যান্য সমস্যার সমাধান করা হয়েছে। রাস্তায় খোড়াখুঁড়ি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। আর ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ফেনী রেল ওভারপাসের কারণে গত ঈদের সময় কিছুটা সমস্যা হয়েছিল, এটাও এবার খুলে দেয়া হয়েছে। তাই ঈদযাত্রা এবার স্বস্তিদায়ক হবে, সহনীয় হবে ভোগান্তি।’

পশুবাহী যানবাহন যথাযথ জায়গায় রাখার পরামর্শ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘পশুবাহী গাড়িগুলো যথাযথভাবে রাখলে এবং ফিটনেসবিহীন গাড়ি রাস্তায় না নামালে আর কোথায় কোনো সমস্যা থাকবে না। আপনারা পশুবাহী গাড়িগুলো যথাযথ স্থানে রাখবেন।’

মন্ত্রী বলেন, ফিটনেসবিহীন গাড়ির বিরুদ্ধে পুলিশসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কাজ অব্যাহত রেখেছে। এর বাইরে বিআরটিএর ভিজিলেন্স টিম কাজ করছে। সবকিছু মিলিয়ে ভারি বর্ষণ না হলে গত ঈদের তুলনায় এবার স্বস্তিদায়ক হবে।

অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ে বাস কাউন্টার বন্ধের নির্দেশ দেন মন্ত্রী। এ সময় বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান মশিয়ার রহমানসহ ওই কাউন্টারে যান মন্ত্রী। তবে মন্ত্রী যাওয়ায় খবরে পরিবহনটির কাউন্টার বন্ধ রাখা হয়। পরে মন্ত্রী সেটা বন্ধের নির্দেশ দেন।

মন্ত্রী জানান, ‘যাত্রীদের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়েছি বেশি ভাড়া নিচ্ছে। সঙ্গে সঙ্গে জিজ্ঞাসা করেছি কোন কাউন্টার, সে বললো সিরাজগঞ্জের স্টারলাইন। সঙ্গে সঙ্গে এটা বন্ধ করে দিয়েছি। এছাড়া আর কোনো অভিযোগ আসেনি।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, তাৎক্ষণিক অভিযোগেই আমি ব্যবস্থা নিয়েছি। এছাড়া আর কোনো অভিযোগ পাইনি। আমাদের এখানে যাত্রীদের সেবাদানে ভিজিলেন্স টিম কাজ করছে। যাত্রীদের সব ধরনের সহযোগিতা দেয়া হচ্ছে। অভিযোগ পেলেই তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান মশিয়ার রহমান, বিআরটিএ ঢাকা বিভাগের উপ-পরিচালক মো. মাসুদ আলম, ট্রাফিক উত্তরের এডিসি নাজমুল আলম, মহাখালী ট্রাফিক পুলিশের সহকারী কমিশনার আশরাফ উল্লাহ প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আমার বিশ্বাস এবারের ঈদ যাত্রা স্বস্তিদায়ক হবে। সব মিলিয়ে গত ঈদের চেয়েও এবারে ঈদ স্বস্তিদায়ক হবে।’ ঈদযাত্রায় এবার যাত্রীদের অভিযোগ কম পাওয়া যাচ্ছে বলেও দাবি করেন মন্ত্রী।

শুক্রবার বেলা ১১টায় রাজধানীর মহাখালী বাস টার্মিনাল পরিদর্শন ও ঈদযাত্রীদের সাথে কুশল বিনিময় শেষে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এসব কথা বলেন।

মহাখালিতে ঘরমুখো মানুষের ঈদযাত্রা পরিদর্শনে গিয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তি ও আরামদায়ক হবে। রাস্তায় যেসব স্থানে সমস্যা ছিল তা সমাধান করা হয়েছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ঈদের ১০ দিন আগেই সড়কের কাজ ও খোঁড়াখুঁড়ি বন্ধ করা হয়েছে। শুধুমাত্র পশুবাহী পরিবহন যদি সঠিক লেন মেনে চলাচল করে তবে আর সমস্যা হবে না।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী ২৩টি সেতু উদ্বোধন করেছেন। ঢাকা-টাঙ্গাইল পথে অন্যান্য সমস্যার সমাধান করা হয়েছে। রাস্তায় খোড়াখুঁড়ি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। আর ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ফেনী রেল ওভারপাসের কারণে গত ঈদের সময় কিছুটা সমস্যা হয়েছিল, এটাও এবার খুলে দেয়া হয়েছে। তাই ঈদযাত্রা এবার স্বস্তিদায়ক হবে, সহনীয় হবে ভোগান্তি।’

পশুবাহী যানবাহন যথাযথ জায়গায় রাখার পরামর্শ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘পশুবাহী গাড়িগুলো যথাযথভাবে রাখলে এবং ফিটনেসবিহীন গাড়ি রাস্তায় না নামালে আর কোথায় কোনো সমস্যা থাকবে না। আপনারা পশুবাহী গাড়িগুলো যথাযথ স্থানে রাখবেন।’

মন্ত্রী বলেন, ফিটনেসবিহীন গাড়ির বিরুদ্ধে পুলিশসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কাজ অব্যাহত রেখেছে। এর বাইরে বিআরটিএর ভিজিলেন্স টিম কাজ করছে। সবকিছু মিলিয়ে ভারি বর্ষণ না হলে গত ঈদের তুলনায় এবার স্বস্তিদায়ক হবে।

অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ে বাস কাউন্টার বন্ধের নির্দেশ দেন মন্ত্রী। এ সময় বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান মশিয়ার রহমানসহ ওই কাউন্টারে যান মন্ত্রী। তবে মন্ত্রী যাওয়ায় খবরে পরিবহনটির কাউন্টার বন্ধ রাখা হয়। পরে মন্ত্রী সেটা বন্ধের নির্দেশ দেন।

মন্ত্রী জানান, ‘যাত্রীদের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়েছি বেশি ভাড়া নিচ্ছে। সঙ্গে সঙ্গে জিজ্ঞাসা করেছি কোন কাউন্টার, সে বললো সিরাজগঞ্জের স্টারলাইন। সঙ্গে সঙ্গে এটা বন্ধ করে দিয়েছি। এছাড়া আর কোনো অভিযোগ আসেনি।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, তাৎক্ষণিক অভিযোগেই আমি ব্যবস্থা নিয়েছি। এছাড়া আর কোনো অভিযোগ পাইনি। আমাদের এখানে যাত্রীদের সেবাদানে ভিজিলেন্স টিম কাজ করছে। যাত্রীদের সব ধরনের সহযোগিতা দেয়া হচ্ছে। অভিযোগ পেলেই তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান মশিয়ার রহমান, বিআরটিএ ঢাকা বিভাগের উপ-পরিচালক মো. মাসুদ আলম, ট্রাফিক উত্তরের এডিসি নাজমুল আলম, মহাখালী ট্রাফিক পুলিশের সহকারী কমিশনার আশরাফ উল্লাহ প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।


আত্মসমর্পণের আহ্বানে ‌‘সাড়া দিচ্ছে না
নরসিংদীর মাধবদী পৌরসভার ছোট গদাইরচর গাঙপাড় এলাকার আফজাল হাজির ‘নিলুফা
বিস্তারিত
উন্নয়ন মেলা শেষে নকলায় পুরষ্কার
সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড জনগণের কাছে তুলে ধরতে সারা দেশের
বিস্তারিত
আত্মতুষ্টি মানেই পতন: প্রধানমন্ত্রী শেখ
আত্মতুষ্টিতে না ভুগে নেতা-কর্মীদের সদা সর্তক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী
বিস্তারিত
জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগদান শেষে দেশে
জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৩তম অধিবেশনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী
বিস্তারিত
দুর্নীতিবাজরা এক হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যুক্তফ্রন্টের নামে দুর্নীতিবাজরা এক হয়েছে। তবে
বিস্তারিত
১ম ও ২য় শ্রেণির চাকরিতে
প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির (৯ম থেকে ১৩তম গ্রেডে চাকরির ক্ষেত্রে)
বিস্তারিত