চিতার আগুনে

বিস্তীর্ণ ঘুমের অন্দরে

নিয়তির নিষ্ঠুর খেলার ছলে
এই প্রান্তরের ধূলিমাখা মেঠোপথে
লতা-পাতা-ঘাস-সবুজ গাছপালা
ভোরের আলোর সাথে করে খেলা
ধূমল ধূসর পূজার গন্ধ
সবই রয়ে যাবেÑ
দিগন্তময় নিশ্বাসে প্রশ্বাসে।

আমার এ চিরচেনা শহর-বন্দর-মাঠ
আঙিনার কামরাঙা গাছ
বিকেলের বন্ধু আর কোলাহল খেলার মাঠ
শিশুর তুলতুলে গালে চুমুমাখা পরশ
রবে কি তারা শব্দের প্লাবনে?

আমি কীÑ
হেমন্তের রিক্ত মাঠে পড়ে রবো
নিরন্ন পথের কিনারে
পাথরের মতোÑ
জোনাকির মিটিমিটি আলো-আঁধারে
রাতের শিশিরের সাথে মিশে
জীর্ণ ঝরাপাতার মতো
ঊষা রাঙা ভোরের প্রহরে
চিরকাল জ্বলে জ্বলে ছাইভষ্ম হব
চন্দন কাঠের চিতার আগুনে?


বৈশাখের আহ্বান
বাতাসের সুরে সুরে ঝড়ের ঝংকার  আকাশের কালো মেঘে কালের হুংকার  বজ্রের
বিস্তারিত
ডোম
প্রথমে লোকটির ডান হাত কেটে ফেললাম তারপর বাম হাত তার পা
বিস্তারিত
আয়না সিরিজ
এক একদিন প্রেমিকার চশমায় প্রবেশ করি,  ঢুকে পড়ি অজান্তে আয়নার শহরে
বিস্তারিত
শ্রেষ্ঠ ডায়ালগ
(এক স্রোতস্বিনীর পাশে আমার সুন্দর ফুলবাগান। সেখানে আমি মন নিয়ে খেলা
বিস্তারিত
প্রতীক্ষা
সমুদ্রের মুখোমুখি, বসে আছি একাকী মনের তুলিতে আছ তুমি, কল্পনায় করি
বিস্তারিত
এসো হে বৈশাখ
বৈশাখ দরজায় নাড়ছে কড়া বাঙালি সাজাবে নতুন এই ধরা চারদিকে বসবে
বিস্তারিত