নিজের পাড়া ফাটাই

 

লাটাই আছে আমার হাতে

উড়ছে ঘুড়ি আকাশে

আমি কি আর উড়াই তারে

উড়ায় দেখি বাতাসে! 

 

আগে ছিল মৃদু মন্দ

এখন দেখি বাবারে 

দাঁড়িয়ে থাকা যাচ্ছে না তো

দিচ্ছে বাতাস চাপারে।

 

হঠাৎ দেখি আকাশ ফাঁকা

নাই তো আমার ঘুড়ি

বাতাস বলে বন্ধু আসো 

তোমায় নিয়ে উড়ি।

 

কোথায় ঘুড়ি, কোথায় আমি 

টানছি কেবল সুতো

এমন সময় উটকো ছাগল

মারল পায়ে গুঁতো।

 

গুঁতো খেয়ে ছিঁড়ল সুতা 

থাকল হাতে লাটাই

মায়ের কাছে কান্না করে

নিজের পাড়া ফাটাই।


ভাইয়ের ভালোবাসা
রুহানকে ভাইয়ের ভালোবাসা বোঝানোর জন্যই মামার এই কৌশল। এ কথা
বিস্তারিত
শরৎ সাজ
শরৎ সাজ পাই খুঁজে আজ শিউলি ফোটা ভোরে পল্লী গাঁয়ের মাঠে
বিস্তারিত
মশারাজ্যে
প্যাঁপো লাফাতে লাফাতে বলল, ‘আমি আগেই সন্দেহ করেছিলাম, আপনি বিদেশি
বিস্তারিত
আবার শরৎ এলো
নদীর ধারে শাদা ফুলের দোলা,
বিস্তারিত
জাতীয় কবি
ছোট্টবেলায় বাবা মারা যান অসহায় হন ‘দুখু’ সংসারে তার হাল ধরা
বিস্তারিত
বিদ্রোহী নজরুল
চুরুলিয়ার সেই ছেলে তুমি  কবিতার নজরুল, রণাঙ্গনের বীর সৈনিক প্রাণেরই বুলবুল। কেঁদেছো তুমি দুখীর
বিস্তারিত