শরৎ এলেই

শরৎ এলেই নাকে আসে শিউলি ফুলের গন্ধ

ভোরবেলায় মাটির বুকে অপূর্ব এক ছন্দ।

ঢেউয়ে ঢেউয়ে ভরে ওঠে নদীর দুটি কূল
কাশফুল আর নদীর ঢেউয়ে যাই হয়ে মশগুল।

দূর্বা ঘাসে শিশির যেন মণিমুক্তোর দানা
সকাল বেলা সূর্য আলো খাঁটি দুধের ছানা।

আকাশে খেলা করে শুভ্র মেঘের ভেলা 
শিল্পকলার কারুকাজে দেশটা আমার ভরা।

শরৎ এলেই খালে বিলে শত মাছের মেলা
মাছ ধরে মাহিন সোনার কেটে যায় বেলা।

এই শরতের শুভ্র আকাশ আমার গাঁয়ের মুখ
তাই না দেখে মাহিন সোনার গর্বে ভরে বুক।


ভাইয়ের ভালোবাসা
রুহানকে ভাইয়ের ভালোবাসা বোঝানোর জন্যই মামার এই কৌশল। এ কথা
বিস্তারিত
শরৎ সাজ
শরৎ সাজ পাই খুঁজে আজ শিউলি ফোটা ভোরে পল্লী গাঁয়ের মাঠে
বিস্তারিত
মশারাজ্যে
প্যাঁপো লাফাতে লাফাতে বলল, ‘আমি আগেই সন্দেহ করেছিলাম, আপনি বিদেশি
বিস্তারিত
আবার শরৎ এলো
নদীর ধারে শাদা ফুলের দোলা,
বিস্তারিত
জাতীয় কবি
ছোট্টবেলায় বাবা মারা যান অসহায় হন ‘দুখু’ সংসারে তার হাল ধরা
বিস্তারিত
বিদ্রোহী নজরুল
চুরুলিয়ার সেই ছেলে তুমি  কবিতার নজরুল, রণাঙ্গনের বীর সৈনিক প্রাণেরই বুলবুল। কেঁদেছো তুমি দুখীর
বিস্তারিত