মাসআলা

রক্তদান ও ক্রয়-বিক্রয়

মুফতি শফী সাহেব (রহ.) লিখেছেন, ‘রক্ত মানব দেহের অংশবিশেষ। দেহ থেকে নির্গত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা নাপাক হয়ে যায়। নাপাক বস্তুর ব্যবহার নিষিদ্ধ বিধায় এবং সৃষ্টির সেরা জীব মানব অঙ্গের মর্যাদার কথা বিবেচনা করে স্বাভাবিক অবস্থায় রক্তদান নিষিদ্ধ। তবে যদি কোনো অভিজ্ঞ ডাক্তার রোগীর ব্যাপারে বলেন যে, এ মুহূর্তে তাকে রক্ত না দিলে তার মৃত্যু, কোনো অঙ্গহানি বা মারাত্মক শারীরিক ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে; আর এর বিকল্প কোনো ওষুধও পাওয়া না যায়, তাহলেই তাকে স্বেচ্ছায় রক্ত দেওয়া যাবে। অন্যথায় রক্ত দেওয়া বা বিক্রি করা বৈধ নয়। (ফাতাওয়া হিন্দিয়া : ৫/৩২৮)।


রক্তনেশার আক্রোশে ইদলিব : তারপর
তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের আভাস জোরেশোরেই দিচ্ছেন বিশ্লেষকরা। বিশ্বযুদ্ধের অবয়ব কী? সিরিয়ায়
বিস্তারিত
ইমাম বোখারির আসনে যুগের বোখারির দরস
আলোচনায় তিনি বলেন, ‘ইমাম বোখারি এ ভূমিতেই বেড়ে উঠেছেন। এখানেই
বিস্তারিত
সৌদির জাতীয় দিবসে মক্কা-মদিনার পরিষদ
সৌদি আরবের ৮৮তম  জাতীয় দিবস উপলক্ষে দেশবাসীর উদ্দেশে গুরুত্বপূর্ণ বাণী
বিস্তারিত
প্রাচীন মসজিদে ঘেরা বারোবাজার শহর
ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ থানার বারোবাজার ইউনিয়ন। পূর্বনাম শহর মোহাম্মদাবাদ। প্রায়
বিস্তারিত
পিতামাতার প্রতি করণীয়
সমগ্র বিশ্বের স্রষ্টা আল্লাহ্ রাব্বুল আলামিন স্বীয় ‘রহমত’ গুণটির ছায়া-প্রভাব
বিস্তারিত
নবীজির পোশাক কেমন ছিল
প্রিয় নবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর কথাই কি শুধু তাঁর
বিস্তারিত