আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের জামিন শুনানি মঙ্গলবার

ঢাকায় নিরপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনের সময়ে তথ্য-প্রযুক্তি আইনে দায়ের করা মামলায় আলোকচিত্রী ড. শহিদুল আলমের জামিন চেয়ে করা আবেদনের শুনানির জন্য আগামীকাল মঙ্গলবার দিন ঠিক করেছেন হাইকোর্ট।

সোমবার (৩ সেপ্টেম্বর) রাষ্ট্রপক্ষ থেকে সময় চাইলে বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুস ও বিচারপতি খোন্দকার দিলুরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ শুনানির জন্য এ দিন ঠিক করেন।

আদালতে শহিদুল আলমের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার সারা হোসেন ও ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ূয়া। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অরবিন্দ কুমার রায়।

পরে সারা হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, অ্যাটর্নি জেনারেলের পক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আদালতকে জানিয়েছেন, এ আবেদনের শুনানিতে অ্যাটর্নি জেনারেল নিজেই থাকতে চান। এ কারণে আগামীকাল পর্যন্ত সময় চান। পরে আদালত নট টু ডে আদেশ দেন।

এর আগে গত ২৮ আগস্ট শহিদুল আলমের জামিন চেয়ে আবেদন করেন তার আইনজীবীরা।

আইনজীবী সূত্রে জানা যায়, এ মামলায় ৬ আগস্ট ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম শহিদুল আলমের জামিন আবেদন না মঞ্জুর করেন। গত ১৪ আগস্ট ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতে জামিন আবেদন করা হলে ১১ সেপ্টেম্বর শুনানির জন্য দিন ধার্য রাখেন। এরপর ১৯ আগস্ট শুনানির তারিখ এগোনোর জন্য আবেদন করা হলে তা গ্রহণ করেননি আদালত। এ অবস্থায় ২৬ আগস্ট শহিদুল আলমের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন চাইলে ওই আদালত শুনানির জন্য তা গ্রহণ করেন নি। এ অবস্থায় হাইকোর্টে তার জামিন চেয়ে আবেদন করা হয়।

উল্লেখ্য, সড়কের দাবিতে আন্দোলনের সময় গত ৫ আগস্ট শহিদুল আলমকে বাসা থেকে নেওয়ার পর ‘উসকানিমূলক মিথ্যা’ প্রচারের অভিযোগে তথ্য-প্রযুক্তি আইনের মামলায় ৬ আগস্ট রিমান্ডে নেয় পুলিশ।


ডিআইজি মিজান-বাছিরের বিরুদ্ধে ঘুষের মামলা
বরখাস্তকৃত পুলিশের ডিআইজি মিজানুর রহমান ও দুদকের পরিচালক এনামুল বাছিরের
বিস্তারিত
নতুন করে আর ডেমু ট্রেন
দেশে নতুন করে আর ডেমু ট্রেন না কেনার নির্দেশ দিয়েছেন
বিস্তারিত
চাল রফতানি করবে বাংলাদেশ
কৃষিমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাক জানিয়েছেন, ফিলিপাইনে সিদ্ধ চাল রফতানির বাজার খুলছে।
বিস্তারিত
আদালতে আসামিকে ছুরি দিয়েছে কারা,
কুমিল্লা জেলা জজ আদালতের এজলাসে বিচারকের সামনেই এক আসামিকে অপর
বিস্তারিত
এইচএসসি ও সমমানের ফল আগামীকাল
উচ্চমাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার ফল আগামীকাল প্রকাশ করা
বিস্তারিত
আট হাজার অনলাইন গণমাধ্যম নিবন্ধনের
নিবন্ধনের জন্য আট হাজারেরও বেশি অনলাইন গণমাধ্যম সরকারের কাছে আবেদন
বিস্তারিত