গণতন্ত্র সুদৃঢ় বলেই জনগণের পছন্দের প্রার্থীরা বিজয়ী: প্রধানমন্ত্রী

ফাইল ফটো

প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা ব‌লে‌ছেন, বাংলাদেশের গণতন্ত্র সুদৃঢ় ভিত্তির ওপর প্রতিষ্ঠিত বলে জনগণ ভোট দিয়ে পছন্দের প্রার্থীকে বিজয়ী করতে পারছে। তাই দলীয় প‌রিচ‌য়ে নয়, নির্বা‌চিত জনপ্রতি‌নি‌ধি হি‌সে‌বে সব ধরনের সু‌যোগ সু‌বিধা পা‌বেন।

তিনি বলেন, য‌দি সেখা‌নে অনিয়ম হয়, দুর্নী‌তি হয়, সন্ত্রাস ও জ‌ঙ্গিবা‌দের সাথে জড়া‌নোর কোনো অভি‌যোগ উঠে তাহ‌লে যে দ‌লের নেতাই হন না কেন, রেহাই পা‌বেন না।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যাল‌য়ে বুধবার রাজশাহী ও সিলেট সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠা‌নে তি‌নি এসব কথা বলেন।

রাজশাহীতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও সিলেটে বিএনপির প্রার্থীর জয়ী হওয়ার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কাউন্সিলররাও বিভিন্ন দল ও স্বতন্ত্র থেকে নির্বাচিত হয়ে এসেছেন। বাংলাদেশ গণতন্ত্র সুদৃঢ় ভিত্তির ওপর প্রতিষ্ঠিত। প্রত্যেকটা এলাকার জনগণ ভোট দেয়ার অধিকার অর্জন করেছে এবং ভোট দিয়ে তাদের মনোনীত প্রার্থীকে জয়যুক্ত করতে পারছে এটাই আজ প্রমাণিত।

তিনি বলেন, গণতন্ত্রকে সুপ্রতিষ্ঠিত করবার জন্য আমরা সংগ্রাম করেছি। নির্বাচনে কিন্তু বাংলাদেশের জনগণ স্বাধীনভাবে ভোট দিতে পারেন। সেটাও আমরা সুনিশ্চিত করেছি। গণতন্ত্র মানে জনগণের ভোটের অধিকার, সাংবিধানিক অধিকার। সেই অধিকারের প্রতি আমরা সম্পূর্ণভাবে নিবেদিত। আমরা চাই জনগণের অধিকার জনগণের হাতেই থাকবে। আমার ভোট আমি দেব, যাকে খুশি তাকে দেব- স্লোগানটা আমারই ছিল আপনারা জানেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কখনো কখনো ছোট-খাট ঘটনা ঘটে। যেখানেই ঘটে আমরা সাথে সাথে ব্যবস্থা নেই। জনগণের মৌলিক অধিকার তারা প্রয়োগ করবে। তাদের মনমতো প্রার্থী নির্বাচিত করবে।

তিনি বলেন, যদি গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতা থাকে তাহলে একটা দেশ উন্নত হয়, সম্মৃদ্ধশালী হয় এবং উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় থাকে।

প্রধানমন্ত্রী ব‌লেন, যারাই ক্ষমতায় আসুক দে‌শের উন্নয়ন যেন থে‌মে না যায়। বাংলা‌দেশ যেন পি‌ছি‌য়ে না যায়। জনগণ অনেক আশা-আকাঙ্ক্ষা নি‌য়ে আপনা‌দের ভোট দি‌য়ে‌ছে। তা‌দের আশা পূর‌ণে আপনা‌দের কাজ কর‌তে হ‌বে। আগামী ডি‌সেম্বরে জনগণ তা‌দের ভোটা‌ধিকার প্রয়োগ ক‌রে নতুন সরকার গঠন কর‌বে।

তিনি বলেন, যেই সরকার গঠন করুক না কেন, তারা নি‌জে‌দের সম্পদশালী না ক‌রে যেন জনগণ‌কে সম্পদশালী ক‌রে। তাহ‌লে দে‌শের উন্নয়ন হ‌বে, দেশ এগি‌য়ে যা‌বে। জনগণ যেন সম্পদশালী হয় সে দি‌কে লক্ষ্য রে‌খে আপনা‌দের কাজ ক‌রে যে‌তে হ‌বে।

তিনি আরো বলেন, আমরা দেশকে উন্নত করতে চাই এবং দেশের মানুষের শান্তি, উন্নয়ন, নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চাই।

স্থানীয় সরকার সচিব ড. জাফর আহমেদ খানের সঞ্চালনায় শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, প্রধানমন্ত্রীর কার্যাল‌য়ের মূখ্য স‌চিব মোঃ ন‌জিবুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আত্মসমর্পণের আহ্বানে ‌‘সাড়া দিচ্ছে না
নরসিংদীর মাধবদী পৌরসভার ছোট গদাইরচর গাঙপাড় এলাকার আফজাল হাজির ‘নিলুফা
বিস্তারিত
উন্নয়ন মেলা শেষে নকলায় পুরষ্কার
সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড জনগণের কাছে তুলে ধরতে সারা দেশের
বিস্তারিত
আত্মতুষ্টি মানেই পতন: প্রধানমন্ত্রী শেখ
আত্মতুষ্টিতে না ভুগে নেতা-কর্মীদের সদা সর্তক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী
বিস্তারিত
জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগদান শেষে দেশে
জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৩তম অধিবেশনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী
বিস্তারিত
দুর্নীতিবাজরা এক হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যুক্তফ্রন্টের নামে দুর্নীতিবাজরা এক হয়েছে। তবে
বিস্তারিত
১ম ও ২য় শ্রেণির চাকরিতে
প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির (৯ম থেকে ১৩তম গ্রেডে চাকরির ক্ষেত্রে)
বিস্তারিত