মাসআলা

নামাজে কলিংবেল বাজলে

প্রশ্ন : আমি নামাজ পড়ছিলাম, তখন দরজায় কলিংবেল বাজা শুরু হলো। ঘরে আমি ছাড়া আর কেউই নেই। এমন অবস্থায় আমার কী করা উচিত? যদি আমি নামাজ ছেড়ে দিই, তাহলে গোনাহ হবে কি? 
তাওহিদ ইসলাম, বছিলা, ঢাকা

উত্তর : প্রশ্নোক্ত অবস্থায় উঁচু আওয়াজে তাকবির বা তেলাওয়াতের দ্বারা যদি আগমনকারীকে বোঝানো যায় যে, আপনি নামাজরত অবস্থায় রয়েছেন তাহলে নামাজ ছাড়া যাবে না। অবশ্য নামাজে থাকা অবস্থায় সর্বোচ্চ দুই কদম সামনে অগ্রসর হয়ে এক হাতে দরজা খোলা সম্ভব হলে এবং কেবলা থেকে সিনা ঘুরে না গেলেÑ এ অবস্থায় দরজা খোলা জায়েজ আছে। আর কেউ যদি বাসার নিচ থেকে কলিংবেল চাপে তখন গেট খোলার জন্য নামাজ ছাড়া যাবে না। (নাসায়ি : ১২০৬; হেদায়া : ১/৬৩, আদ্দুররুল মুখতার : ১/৬২৭; তাতারখানিয়া : ২/২৩০)।

উত্তর প্রদান : মুফতি হিফজুর রহমান


মহান আদর্শের মহানায়ক
  মহানবী হজরত মোহাম্মদ (সা.) ছিলেন সব শ্রেণিপেশার মানুষের জন্য এক
বিস্তারিত
জ্ঞান সাধনায় মুসলিম মনীষীদের অবদান
আল-বেরুনী ‘মা লিল-হিন্দ’ গ্রন্থটি বিশ্বে আল-বেরুনীর ভারত দর্শন নামে পরিচয়
বিস্তারিত
নৌবাহিনীর বার্ষিক কেরাত ও আজান
নৌবাহিনীর বার্ষিক কেরাত ও আজান প্রতিযোগিতা-২০১৮ শুক্রবার ঢাকা সেনানিবাসে নৌবাহিনী
বিস্তারিত
বেনামে সুদ : একটি শরয়ি
অনেক ওলামায়ে কেরাম জমি বন্ধকের এ মুয়ামালাটিকে জায়েজ করার জন্য
বিস্তারিত
মিতব্যয়িতা ইসলামে পছন্দনীয় কাজ
মানুষকে মিতব্যয়ী হতে উৎসাহিত করতে প্রতি বছর ৩১ অক্টোবর বিশ্বজুড়ে
বিস্তারিত
ইসলামের দৃষ্টিতে উপহার বিনিময়
পারস্পরিক উপহার আদান-প্রদান আমাদের সামাজিক জীবনের একটি সাধারণ বাস্তবতা। বিষয়টি
বিস্তারিত