সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে কমিশনকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দিবে সরকার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকার আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনে নির্বাচন কমিশনকে সাংবিধানিক দায়িত্ব পালনে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান করবে। প্রধানমন্ত্রী আজ তাঁর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকারি দলের সদস্য মো. মনিরুল ইসলামের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশন তাদের অর্পিত সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা অনুযায়ী সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানের সকল কার্যক্রম গ্রহণ করবে বলে সরকার প্রত্যাশা করে। খবর বাসস’র

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন স্বাধীনভাবে নির্বাচন পরিচালনা করতে পারে। নির্বাচন কমিশনের ব্যবস্থাপনায় দেশের জনগণ সুষ্ঠুভাবে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবে। সুষ্ঠুভাবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে ইতোমধ্যে নির্বাচন কমিশনের চাহিদা অনুসারে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনকে শক্তিশালী করার জন্য জনবলের সংখ্যা বৃদ্ধি করা হয়েছে। ভৌত অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য কমিশনের চাহিদা অনুসারে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, রাষ্ট্রপতি সংবিধানের উদ্দেশ্য পূরণকল্পে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলসমূহের সঙ্গে আলোচনাক্রমে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনার নিয়োগের লক্ষ্যে ৬ সদস্য বিশিষ্ট একটি সার্চ কমিটি গঠন করেছিলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, সার্চ কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে রাষ্ট্রপতি ১ জন প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং ৪ জন নির্বাচন কমিশনারের সমন্বয়ে নির্বাচন কমিশন গঠন করেছেন।


আইসিসির সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালেন প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নৃসংশতার ‘প্রাথমিক পরীক্ষা’র
বিস্তারিত
ভাষা আন্দোলন নিয়ে আরও বেশি
রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ আশা প্রকাশ করেছেন যে দেশের নাট্যকার, চলচ্চিত্রকার,
বিস্তারিত
ঢাকার একাংশে গ্যাস নেই
ঢাকার ধানমন্ডি, গ্রিন রোড, জিগাতলা, টালিমোড়, হাজারীবাগ এলাকায় শনিবার সকাল
বিস্তারিত
আখেরি মোনাজাতে শেষ হলো প্রথম
দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে ৫৪তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম
বিস্তারিত
সেবার মাধ্যমেই জাতীয় ঐক্য গড়ে
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন,
বিস্তারিত
উন্নয়নশীল দেশগুলোর স্বাস্থ্য নিরাপত্তায় প্রত্যাশিত
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) তথ্য অনুসারে উন্নয়নশীল ও স্বল্পোন্নত দেশগুলোর
বিস্তারিত