শারদীয় বিকেল

ঝিরিঝিরি বাতাসের অবিরাম দোলায়

মননের মুকুরে ফুটে ওঠে
মুঠো মুঠো শেফালিকা ফুল।
উদাসীন বিকেলের হলুদ রোদ্রের সাথে
প্রণয়ের কলকোলাহলে
ফুলগুলো বিবর্ণ হয়ে 
নিশ্চল পড়ে থাকে পথের ধারে।
পুনশ্চ রাত্রির মধুমিতায় 
ফুলে ফুলে নির্ভার শেফালিকা বৃক্ষ।
সাদা সাদা মেঘ ভাঙা রোদ্রের কিরণে
কচিকচি পাতাগুলো করে ঝিকিমিকি
জীবনের ফুলভারে শারদীয়া আকাশের
নীলরঙা আবিরের ঢেউয়ের দ্যোতনায় 
মেঘভাঙা জোছনার আঁচলের বিছানায়
বাতাসের উতলায় সাদা কাশবনে
জীবনের মনরাঙা ময়ূরে
স্মৃতিভরা জগতের নীলিমার সাগরে
নির্মল যৌবনের উদ্যাম মাতামাতি
কোমলতার পেলবে-বোধের আঙিনায়
মেঘেদের তারুণ্যের দুষ্টুমির উল্লাসে 
লুকোচুরি প্যাশনায়
ঘন নীল আকাশের স্বপ্নলোকে
অনিবার অভিলাষের লুটোপুটি।


আত্মজীবনী লিখলে ঘরে ও বাইরে
ঢাকায় বাতিঘর আয়োজন করে ‘আমার জীবন আমার রচনা’ শীর্ষক আলাপচারিতা।
বিস্তারিত
যে নদীর মন বোঝে
পদ্মা মেঘনার মতো দুই ভাগ হয়ে গেছে মানুষ চলে পাশাপাশি তবুও
বিস্তারিত
সেই তুমুল অঘ্রানলোকে
সবকিছু উগরে দিয়েছে ওরা  প্রীতি ও বিচ্ছেদ, সুর ও সুরভী, রতি
বিস্তারিত
চোরাচালানি
কুয়াশায় আচ্ছন্ন প্রতিদিনের সন্ধ্যা গভীর রাতে শিয়ালের কান্না শীতের আগমনী
বিস্তারিত
অভিশাপ
অভিশাপে কপালের আধখান শেষ। ভাগ্যরা আর পাশে নেই। উড়ে গেছে
বিস্তারিত
যে বৃক্ষে বাতাস জমেনি
আমাদের দুই জোড়া হাতে যে বৃক্ষটি রোপণ করেছি। সেটি যেদিন
বিস্তারিত