অমায়ার আনবেশে

সাদা মুখোশে থাকতে গেলে ছুড়ে দেওয়া কালি 

হয়ে যায় সার্কাসের রংমুখ, 
তবুও দাঁড়কাকের সৌভাগ্যে উঠোন মাড়ানো নতুন বউ 
দুমুঠো অন্ন ছড়ায় বেহুলাবাতাসে
দিগি¦দিক...

বাসি মাংসের মতো বুড়ি জংশন পাউরুটি চিবোয় আজও
তারই পাশে ফুটো টিনের নিচে রৌদ্দুর মেলে চোখ ঝলকে
গমের ক্ষেত মুখ ভ্যাংচায় কালো নখের দেয়ালজুড়ে,
সুপারিপাতার বাহনে দোল খায় প্রাচীন বাতাস, খেয়ালিপনায়। 
দৌড় ইতিহাস থমকে রেখে ডায়েরি ভাঁজের নিঃসঙ্গ গোলাপ 
একলা বাঁধে ঘর বর্ষাট্যাবুর পায়ের পাতায়।

অতঃপর, বহু ব্যবধান শেষের বাহুডোর ফেলে
জিহ্বার স্বাদে কড়া নেড়ে গেলে কাটাছেঁড়ার একটা জীবন 
বোধের আবাদে উর্বর হয়ে ওঠে আয়ুÑ ধিক্কারে!


নিস্তব্ধ অন্তরে
তুমি আছো নিস্তব্ধ অন্তরে আমার অন্তরের দেবালোকে। পাইনি বলে আজও
বিস্তারিত
মধ্য রাতের ইচ্ছে
বৈশাখের মধ্যরাতে আমি অপেক্ষা করছিলাম কোনো এক সম্পূর্ণ কবির জন্য দু’হাত
বিস্তারিত
চিঠি
ঢাকা শহর এক আশ্চার্য শহর বটে পাহাড় নেই, শাল মহুয়া
বিস্তারিত
বিমিশ্র প্রচ্ছদে সমুদ্র রূপ
পাহাড় মুখ অবলোকন আসা যাওয়ার স্বরচিত সমুদ্র পথে পারাপার যান
বিস্তারিত
সুতোয় বেঁধো না
তোমার হস্তের নাটাই সুতোয় বেঁধো না আমায়  প্রিয়তম আমাকে সুতোকাটা
বিস্তারিত
নমস্য দীর্ঘশ্বাস
নমস্য দীর্ঘশ্বাস, তোমাকে পুনরায় নমস্কার ঘোলা চাঁদ পা-ুরতায় তোমার এমন
বিস্তারিত