বাংলাদেশকে ২৫৬ রানের চ্যালেঞ্জ দিল আফগানরা

এশিয়া কাপ শুরু হওয়ার আগে সাকিব আল হাসানের ফিটনেস নিয়ে কথা উঠেছিল। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে তার প্রভাব পড়েছিল। তবে তামিমের দেশাত্ববোধ আর মুশফিকের লড়াকু সেঞ্চুরিতে ম্যাচ জিতে নেয় বাংলাদেশই। লঙ্কা জয়ের দুই নায়ক আজকের ম্যাচে নেই। তাই দায়িত্বটা সাকিবের কাঁধেই বেশি ছিল। আর এমন গুরুত্বপূর্ণ সময়ে জ্বলে উঠলেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। শিকার করেন ৪ উইকেট। অবশ্য শেষ দিকে গুলবদন এবং রশীদ খানের লড়াকু ব্যাটে বাংলাদেশকে ২৫৬ রানের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেয় আফগানিস্তান।  

এদিন শুরুতেই আফগানিস্তানকে বড়সড় ধাক্কা মারেন অভিষিক্ত আবু হায়দার রনি। নিজের টানা দুই ওভারে দুই উইকেট তুলে নেন বাংলাদেশের এই বাঁ-হাতি পেসার। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে প্রথম উইকেট পায় বাংলাদেশ। আবু হায়দার রনির করা অফ স্টাম্পের বেশ খানিকটা বাইরের বলে ব্যাট চালিয়ে কাভারে ধরা পড়েন ইহসানউল্লাহ। মোহাম্মদ মিঠুনের তালুবন্দী হওয়ার আগে আফগান ব্যাটসম্যান করেন ৮ রান। এরপর নিজের তৃতীয় ওভারে আবার উইকেট তুলে নেন বাংলাদেশ বাঁ-হাতি পেসার রনি। রহমত শাহকে বোল্ড করে ফেরান তিনি।

এরপর দারুণ প্রতিরোধ গড়ে তোলেন মোহাম্মদ শাহজাদ ও হাসমতউল্লাহ শহিদি। তাদের ৯১ রানের জুটি ভাঙেন সাকিব আল হাসান। আবু হায়দার রনির হাতে ধরা পড়ে বিদায় নেয়ার আগে ৪৭ বলে ৩৭ রান করেন মোহাম্মদ শাহজাদ। নিজের চতুর্থ ওভারে আবারও উইকেট তুলে নেন সাকিব। আজগর আফগানকে সরাসরি বোল্ড করে ফিরিয়ে দেন তিনি।

এরপর ব্যাটে নতুন ব্যাটসম্যান সামিউল্লাহ সেনওয়ারিও ফিরেছেন সাকিবের বলে বোল্ড হয়ে। তবে ক্রমেই ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছিলেন হাসমতউল্লাহ শহিদি। তুলে নিয়েছিলেন হাফ সেঞ্চুরি। এই আফগান ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে টাইগার শিবিরে স্বস্তি আনেন পেসার রুবেল হোসেন। এরপর নিজের শেষ ওভারে বল করতে এসে সাকিব আফগানদের সপ্তম উইকেট তুলে নেন। আর নিজের নামের পাশে লেখান ৪ উইকেট।

বাংলাদেশের বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের মাঝে লড়াইয়ের পুঁজি জোগাড় করতে চেষ্টা করে আফগানিস্তান। সেই চেষ্টায় অনেকটা সফল রশীদ খান এবং গুলবদন নবী। ৯৫ রানের জুটি গড়ে বাংলাদেশকে কড়া চ্যালেঞ্চ ছুঁরে দিয়েছে তারা। এই জুটিতে ভর করেই ৭ উইকেটে ২৫৫ রান করে আফগানিস্তান। রশীদ ৩২ বলে ৫৭ এবং গুলবদন ৩৮ বলে ৪২ রান করে অপরাজিত থাকেন। বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান ৪২ রান দিয়ে ৪টি এবং আবু হায়দার রনি ৫০ রান দিয়ে ২টি উইকেট নিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২০ সেপ্টেম্বর) আবু ধাবিতে এশিয়া কাপ ক্রিকেটের ১৪তম আসরের ষষ্ঠ ও ‘বি’ গ্রুপের শেষ ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আফগানিস্তান অধিনায়ক আসগর আফগান। এই ম্যাচ দিয়ে ওয়ানডে অভিষেক হয়েছে ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত ও বাঁহাতি পেসার আবু হায়দার রনির।

আজকের ম্যাচে দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল নেই। প্রথম ম্যাচেই কবজির চোটে শেষ হয়ে গেছে তাঁর এশিয়া কাপ। লঙ্কানদের বিপক্ষে হাতে প্লাস্টার নিয়েও এক হাতে ব্যাটিং করে মুশফিককে গুরুত্বপূর্ণ সঙ্গ দিয়েছেন। ‘বীর’ তামিমকে তাই আজ যথেষ্ট মিস করছে বাংলাদেশ দল। তাঁর বদলে আজ আরেক বাঁহাতি ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেনের ওয়ানডে অভিষেক হয়েছে। দুইয়ে মুমিনুল হক এবং মুস্তাফিজের বদলে দলে নেওয়া হয়েছে বাঁ-হাতি পেসার আবু হায়দারকে।  


‘বুদ্ধিমানেরা কথায় নয়, কাজে উত্তর
জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বাকি আর মাত্র কয়েকদিন। এই নির্বাচনে এবার
বিস্তারিত
লা লিগায় মেসির গোলের রেকর্ড
ক্যারিয়ার জুড়ে রেকর্ড ভাঙা-গড়ার খেলায় নতুন আরেকটি ইতিহাস গড়েছেন লিওনেল
বিস্তারিত
উইন্ডিজকে হারিয়ে সহজ জয় বাংলাদেশের
বিগত বছর তিনেক ধরেই ঘরের মাঠে অপ্রতিরোধ্য মাশরাফি-সাকিবরা। সেটি হোক
বিস্তারিত
ভক্তদের প্রতি মাশরাফির ভালোবাসা ও
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজে প্রথমটিতে আজ বাংলাদেশের প্রথম
বিস্তারিত
মাশরাফির ‘ডাবল সেঞ্চুরি’
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডে টস করতে মাঠে নেমেই
বিস্তারিত
বাংলাদেশের জিততে চাই ১৯৬ রান
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে জিততে বাংলাদেশের
বিস্তারিত