বাম জোটের মিছিলে পুলিশের লাঠিপেটা, সংঘর্ষ

বাম গণতান্ত্রিক জোটের নির্বাচন কমিশন ঘেরাও কর্মসূচি পুলিশের বাধায় পন্ড হয়ে গেছে। পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী বৃহস্পতিবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জমায়েত হয় নেতা-কর্মীরা। সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে নির্বাচন কমিশন ঘেরাওয়ের উদ্দেশে যাত্রা করে।

মৎস্য ভবন অতিক্রম করার পরই পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এ বাধা অতিক্রম করে তারা এগিয়ে যায়। কাওরান বাজার সিগন্যালে এলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এসময় তারা এগিয়ে যেতে চাইলে পুলিশ লাঠিচার্জ করে। এতে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকিসহ অর্ধশতাধিক লোক আহত হন।

সেখানে তারা কিছুক্ষণ অবস্থান করে। পরে সেখানেই সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আগামী ১১ অক্টোবর সচিবালয় ঘেরাও করা হবে। যে কোন মূল্যে শেখ হাসিনাকে পদত্যাগে বাধ্য করা হবে।

নির্বাচন কমিশন ঘেরাওয়ে নেতৃত্ব দেন- সিপিবি’র সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক ও বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, বাসদ-এর সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, সিপিবি’র সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ আলম, বাসদ (মার্কসবাদী)’র কেন্দ্রীয় নেতা শুভ্রাংশু চক্রবর্তী, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন নান্নু, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু ও সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের আহ্বায়ক হামিদুল হক।

লাঠিচার্জের ব্যাপারে পুলিশের তেজগাঁও জোনের এডিসি বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণভাবে তাদের গতিরোধ করার চেষ্টা করেছি। কিন্তু মিছিল থেকে আমাদের ওপর হামলা চালালে আমরা লাঠিচার্জ করতে বাধ্য হই।  


‘বিজয়ের মাসে বিজয় উপভোগ করবে
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ বেশির ভাগ আসনে বিজয়ী
বিস্তারিত
আন্দালিব পার্থর ফেসবুক আইডি হ্যাকড
বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির (বিজেপি) চেয়ারম্যান আন্দালিব রহমান পার্থর ফেসবুক আইডি
বিস্তারিত
বিচারপতির প্রতি খালেদার আইনজীবীর অনাস্থা
নির্বাচনে প্রার্থিতা ফিরে পেতে খালেদা জিয়ার তিনটি রিট আবেদনের শুনানি
বিস্তারিত
‘পরিবর্তন আনতে হলে ভোট দিতে
পরিবর্তন আনতে হলে ধানের শীষে ভোট দিতে হবে বলে মনে
বিস্তারিত
‘টিকে থাকার জন্য শেষ মরণকামড়
টিকে থাকার জন্য সরকার শেষ মরণকামড় দিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন
বিস্তারিত
আওয়ামী লীগকে ৬৬ শতাংশ মানুষের
আওয়ামী লীগের প্রতি সমর্থন ৬৬ শতাংশ মানুষের এবং বিএনপির প্রতি
বিস্তারিত