হেমন্তের সুর

শরৎ শেষে হেমন্তটা তুলছে সুরধ্বনি
ঘাসের পিঠে ভোর কুয়াশা শীতের আগমনী।

দক্ষিণ থেকে বাঁক ফিরিয়ে উত্তর থেকে বায়ু
বৃক্ষ-লতায় ধূসর পাতা কমছে সবুজ আয়ু।

মাঠে মাঠে ধানের গায়ে লাগছে পাকা রঙ
বসবে মেলা জমবে খেলা সাজবে নানান সং।

উঠবে ঘরে আউশ-আমন নবান্ন উৎসব
গাঁয়ে গাঁয়ে অভিন্ন রূপ খুশির কলরব।

ফুটবে ছাতিম মল্লিকা আর কামিনী ফুল বনে
শিউলি ফুলের গন্ধ-শোভায় নাচবে ভ্রমর মনে। 


মায়ের ভালোবাসা
সাবধানে মুখ খোলার চেষ্টা করবি। কিন্তু কী হলো হঠাৎ করে
বিস্তারিত
সহানুভূতি মামুন অপু
দূর আকাশে আলোর নায়ে চড়ব ফাগুন রাতে আম্মু তখন বলবে
বিস্তারিত
বড় হতে হলে বই পড়াটা
আলোকিত মানুষ গড়ার কারিগর বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু
বিস্তারিত
আমি সেরা
বাবা আমায় কাছে ডেকে বললেন,‘মা রে, শোনো’ বড়াই করে মিছেমিছি লাভ কি আছে
বিস্তারিত
কালবৈশাখী
বৈশাখ এলো বৈশাখ এলো এল নতুন ডাক কষ্ট ব্যথা কালবৈশাখী উড়িয়ে নিয়ে যাক। কালবৈশাখীর
বিস্তারিত
শিশু বাথাইন্নাদের অন্যরকম জীবন
চারপাশে নদী। মাঝখানে জেগে ওঠা বিশাল চর। এর নাম-দমারচর। বঙ্গোপসাগরের
বিস্তারিত