নৌকা গেলো ধানে, ধান এলো নৌকায়

এবারের নির্বাচনে লক্ষ্মীপুর-৪ (রামগতি-কমলনগর) আসনের দুই প্রার্থী আ স ম আব্দুর রব ও মেজর (অব.) আবদুল মান্নান। দুজনেই রাজনৈতিক অঙ্গনে বেশ পরিচিত ও আলোচিত মুখ। উভয়েই ছিলেন বাংলাদেশের প্রধান দুই রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কাণ্ডারী এবং ওই দুই দলের গঠন করা সরকারের মন্ত্রী।

কিন্তু দিন পাল্টেছে, এই দুজনের হিসাব-নিকাশও পাল্টেছে। এখন একজন পুরনো ঘরে আশ্রয় নিলেও আরেকজন উল্টো পথে ফিরে নতুন অধ্যায়ের সৃষ্টি করলেন- এমনটা মত সকলের।

স্থানীয়ভাবে জানা গেছে, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লক্ষ্মীপুর-৪ (রামগতি-কমলনগর) আসনে ধানের শীষ প্রতীকে লড়বেন স্বাধীনতার প্রথম পতাকা উত্তোলক, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা এবং জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব। যিনি এক সময়ে ছিলেন ছাত্রলীগের কাণ্ডারী। সময়ের প্রেক্ষাপটে নিজে দল গঠন করেন। ১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০১ ও ২০০৮ সালের সংসদ নির্বাচনে এ আসনের ধান প্রতীকের প্রার্থীরাই ছিল তার প্রধান প্রতিপক্ষ। এর মধ্যে '৯৬-র নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে তিনি আওয়ামী লীগে সরকার গঠন করলে তাতে যোগ দেন। ওই সময় তিনি মন্ত্রিত্বও পান। কিন্তু এবার তিনি নির্বাচন করছেন তার কট্টরবিরোধী সেই ধানের শীষ প্রতীক নিয়েই। ঐক্যফ্রন্ট থেকে তার এ আসনের মনোনয়ন আগেই চূড়ান্ত হয়েছে।

অপরদিকে, যুক্তফ্রন্ট নেতা ও বিকল্প ধারা বাংলাদেশের মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নান একই আসন থেকে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়বেন। যিনি ছিলেন বিএনপির শীর্ষস্থানীয় নেতা। ১৯৯১ সালের নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে পরাজিত করে নির্বাচিত হন তিনি। সে সময় বিএনপি’র গঠন করা সরকারে তিনি বস্ত্র প্রতিমন্ত্রী ছিলেন। কিন্তু দল বদলের খেলায় এবার আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট থেকে শুক্রবার তাকে নৌকা প্রতীকের চূড়ান্ত মনোনয়ন দেয়া হয়।

তাদের এ দল বদলের খেলায় এলাকাবাসী বলছেন, ‘সময়ের প্রেক্ষাপটে নিজেদের প্রয়োজনে তারা দুজনে একে অন্যের দল বেছে নিলেও এখন ভোটাররা কাকে বেছে নেয় সেটাই দেখার পালা।’


প্রধানমন্ত্রীর সাহায্য চান প্রবাসী শ্রমিকের
মালয়েশিয়া প্রবাসী শ্রমিক সিরাজগঞ্জের আল আমিন সমো (৩৫) মৃত্যুর প্রায়
বিস্তারিত
গ্রামীণ জনপদের উন্নয়নে সংসদে কথা
গ্রামীণ জনপদের উন্নয়নে জাতীয় পার্টি সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়ে সংসদে
বিস্তারিত
চাঁদপুরে ২৮ জেলের ১ বছর
চাঁদপুরে পৃথক চারটি অভিযানে জেলা টাস্কফোর্স, মৎস্য বিভাগ, নৌ-পুলিশ ও
বিস্তারিত
শীতের শুরুতেই চমেকে ঠাণ্ডাজনিত শিশু
শীতের আগমনী বার্তায় ঠাণ্ডা পড়তে শুরু করেছে পাহাড় আর সাগরে
বিস্তারিত
বাবার সাথে গড়ে উঠুক সন্তানের
সময়ের দাবির কারণে কিছুটা পরিবর্তন এলেও এখনো দেখা যায় যে,
বিস্তারিত
বিশ্বে প্রতিদিন প্রায় ৭ হাজার
আজকের শিশু আগামীর ভবিষ্যত। তারপরও প্রতিদিন জন্মের পরই অনেক শিশু
বিস্তারিত