জামশেদ নাজিমের

গল্পটির বাকি অংশ

নিজের সন্তানকে হত্যা! কীভাবে হত্যা করবে! হত্যার অস্ত্র কী হবে? এশা পেশাদার খুনি নয়। সুখের জন্য একটি হত্যা। ক’দিন ধরে ঘরে বসে হত্যার সিদ্ধান্ত করছে। কোনো পথ পাচ্ছে না। দেওয়ালে টাঙানো সামির ছবি। আদরের সন্তান। এশা তাকিয়ে আছে। বারবার দেখছে। ছবি থেকে আজ চোখ ফিরছে না। নিজ গর্ভের সন্তানকে হত্যা! কী ভয়ংকর! এশা মাতাল হবে। প্রেম খেলার মাতাল। 

আরিফ বিরক্ত। আরিফ বিরক্ত হলে এশা কষ্ট পায়। আদরে অপূর্ণতা থাকে। অপূর্ণতার কারণ সামি। আরিফের সঙ্গে দেখা আরও আগে কেন হলো না। তাহলে এশার গর্ভে সন্তান আসত না। সামি নামের কোনো ঝামেলা আজ শেষ করতে হতো না। সামি না থাকলে এশা স্বাধীন। প্রেম ময়দানে আদিম খেলায় এশাকে কেউ বাধা দিতে পারবে না। কলিং বেল বেজে উঠল। এশার ভেতর আনন্দের ঢেউ। মুখে হাসি। দৌড়ে দরজার সামনে। দরজা খুলতেই আরিফের চেহারা। এখনকার প্রেমিক-প্রেমিকা কাউকে সালাম দেয় না। সালাম বিনিময় হয় হাসিতে। আরিফ আর এশাও তাই করে। এই হাসিটা এশার সম্বল। 
অভিমান আর আদুরের সুরে এশাÑ ‘এত দেরি করলা। হাতের পোটলা এশার কাছে দিয়ে লাজুক হাসিতে আরিফÑ ‘দেরি করলাম কই? সূর্য ডোবার সঙ্গে সঙ্গেই আসতে বললা। এখনও সূর্য ডোবেনি।’


সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে নবারুণ স্কুল
সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে স্বাধীনতাবিরোধী কর্মকা- থেকে দূরে থাকার শপথ নিয়ে
বিস্তারিত
সুন্দর ও নিরাপদ সমাজ গঠনে
মাদক ব্যবসায়ীকে যে কোনো মূল্যে বিচারের সম্মুখীন হতে হবে। যারা
বিস্তারিত
নৈতিকতার সঠিক পরিচর্যা আমাদের মাঝে
সংস্কৃতি, সভ্যতা ও সামাজিক অগ্রগতিতে শিক্ষার বিকল্প নেই। পরিবার, সমাজ,
বিস্তারিত
মানুষের চিকিৎসাসেবায় বন্ধুত্বের বন্ধনে রয়েল
সমাজের সবশ্রেণির মানুষের সেবায় বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে রাজধানীর শনির
বিস্তারিত
বন্ধু ফোরামের দপ্তর থেকে
উন্নয়নের মূলধারায়Ñ এ সেøাগানকে সামনে রেখে দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশের লেখক-পাঠক-শুভানুধ্যায়ীদের
বিস্তারিত
প্রশংসনীয় ভূমিকায় সিসিইআর মডেল কলেজ
সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে স্বাধীনতাবিরোধী কর্মকা- থেকে দূরে থাকার শপথ নিয়ে
বিস্তারিত