আইপিএলে স্পট ফিক্সিং, মুখ খুললেন ধোনি

মহেন্দ্র সিংহ ধোনি

২০১৩ সালের আইপিএল চেন্নাই সুপার কিংস অধিনায়ক ছিলেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। সেসময় দলের বিরুদ্ধে স্পট ফিক্সিংয়ের অভিযোগ ওঠে। নিজের দলের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠলেও সমালোচকদের তীর ধোনিকে ছাড়েনি। তবে কেউ সাহস পায়নি তাকে ফিক্সিংয়ের বিষয়ে প্রশ্ন করতে। এতদিন পর সে বিষয়েই কথা বললেন ধোনি।

সম্প্রতি একটি তথ্যচিত্রে তিনি বলেছেন,‘সমস্যা হল, মানুষ যখন ধরে নেয় কাউকে খুব শক্ত ধাতের, তখন বেশির ভাগ সময়েই কেউ তার কাছে এসে জানতে চায় না, কী হে কেমন চলছে সব। সেই সময়টায় আমি এই ব্যাপারে অন্য কারো সঙ্গে কথা বলতাম না। তবে ব্যাপারটা আমাকে খুব অস্বস্তিতে রাখত। আমি চাইতাম না কোনোকিছু আমার ক্রিকেটের উপর প্রভাব ফেলুক। আমার কাছে, ক্রিকেটই সব।’ 

দুটি বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় অধিনায়ক ‘রোর অফ দ্য লায়ন’ তথ্যচিত্রে প্রশ্ন তুলেছেন ২০১৩ আইপিএল ফিক্সিং কাণ্ডে সিএসকে ক্রিকেটারদের কী দোষ ছিল? ‘আমাদের সেই সময় শাস্তি প্রাপ্য ছিল। কিন্তু কত বড় শাস্তি? শেষ পর্যন্ত আমরা জানতে পারলাম, দু’বছরের জন্য চেন্নাইকে নির্বাসিত করা হচ্ছে। মিশ্র প্রতিক্রিয়া হয়েছিল শাস্তির কথা ঘোষণা হওয়ার পরে। কারণ, অনেক কিছুই ব্যক্তিগত ভাবে আঘাত করে, তা ছাড়া অধিনায়ক হিসেবে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে, দলের দোষ কোথায়,’ বলেন ধোনি। 

তিনি আরো যোগ করেছেন, ‘এটা ঠিক আমাদের (ফ্র্যাঞ্চাইজি) তরফে ভুল হয়েছিল। কিন্তু তাতে কী ক্রিকেটারেরা যুক্ত ছিল? আমরা কী দোষ করলাম যে আমাদের এত কিছুর মধ্যে দিয়ে যেতে হল?’ 

আইপিএলের এই ফিক্সিং বিতর্কে ধোনির নামেও আঙুল তুলেছিলেন কেউ কেউ। ‘ফিক্সিং নিয়ে কথাবার্তায় আমার নামও উঠত। মিডিয়া, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এমন ভাবে সবকিছু দেখানো হত, যেন ফিক্সিংয়ে আমাদের দলও জড়িত, আমি জড়িত। এটা কী সম্ভব? হ্যাঁ, এটা ঠিক যে কেউ স্পট ফিক্সিং করতে পারে। আম্পায়াররা পারে, ব্যাটসম্যান বা বোলাররা পারে, কিন্তু ম্যাচ ফিক্সিং দলের বেশির ভাগ ক্রিকেটার যুক্ত না থাকলে কী ভাবে সম্ভব,’ বলেন সিএসকে অধিনায়ক।

ভারতীয় ক্রিকেটে তোলপাড় ফেলে দেয়া সেই বিতর্কে ২০১৫ সালের জুলাইয়ে চেন্নাই সুপার কিংস এবং রাজস্থান রয়্যালসকে দু’বছরের জন্য নির্বাসিত করা হয় তাদের দুই কর্তা বেটিংয়ে যুক্ত থাকার অভিযোগে। সেই দুই কর্তা চেন্নাইয়ের গুরুনাথ মইয়াপ্পন এবং রাজস্থানের রাজ কুন্দ্রা। 

ধোনি এটাও স্বীকার করে নিয়েছেন, চেন্নাই দলের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তৎকালীন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট এন শ্রীনিবাসনের জামাই মইয়াপ্পন। তবে ধোনির মন্তব্য, মইয়াপ্পন দলের সঙ্গে কতটা যুক্ত ছিলেন, তা নিয়ে তর্ক উঠতে পারে। -আনন্দবাজার


সৌম্যের ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ড
অনেকদিন ধরে নিজেকে হারিয়ে খুঁজছিলেন বাংলাদেশ দলের ওপেনার সৌম্য সরকার।
বিস্তারিত
আরব আমিরাতকে হারিয়ে বাংলাদেশের শুভ
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিণী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা
বিস্তারিত
গোল্ডেন বুটজয়ী আঁখি পাচ্ছেন ঘর
দক্ষিণ এশিয়ার সেরা নারী ফুটবলার গোল্ডেন বুটজয়ী সিরাজগঞ্জের আঁখি খাতুন
বিস্তারিত
অঝোরে কাঁদলেন তাসকিন (ভিডিও)
বিশ্বকাপের জন্য নিজেকে উজাড় করে দিতে প্রস্তুত বলে বারবার জানিয়েছিলেন
বিস্তারিত
বিশ্বকাপে বাংলাদেশের স্কোয়াড ঘোষণা
বিশ্বকাপটা ক্রিকেটারদের কাছে স্বপ্নের টুর্নামেন্ট। এই বিশ্বকাপে খেলতেই কত সাধনা
বিস্তারিত
মালিঙ্গা-হার্দিকের সৌজন্যে কোহলিদের হারিয়ে তিনে
আগের ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে হারিয়ে জয়ের সরণিতে ফিরেছিল রয়েল
বিস্তারিত