বাড়াবে শোভা, রাখিবে নিরাপদ

এনভাইরনমেন্ট প্রোটেকশন এজেন্সির মতে, যতই তা ধোঁয়া মোছা করেন না কেনো তবুও আনার ঘরে রোগের জীবাণু রয়েই যায়! এর কারণ, দিনে অন্তত তিন থেকে পাঁচবার বাইরের মতোই ঘরে জীবাণু ছড়িয়ে পড়ে! ভুল শুনছেন না, এইটাই ঠিক।

বলবেন কেন? উত্তর হলো- আপনার ঘরের দেয়ালে যে রঙ লাগিয়েছেন, যে আলকাতরার লেপ দিয়েছেন এখান থেকে ক্ষতিকার রাসায়নিক আছে তা ছড়িয়ে পড়ে। এছড়াও, বাইরের জীবানু ঘরে প্রবেশ করে। ফলে আপনার বা আপনার সন্তানের হতে পারে মাথাব্যথা, অ্যালার্জিসহ অনেক ধরণের রোগ।

এগুলো থেকে বাঁচার জন্য দীর্ঘদিন ধরে গবেষণা করেছে নাসা। তারা খুব সাধারণ কিছু পরামর্শ দিয়েছে। মার্কিন ওই সংস্থাটি ঘর বা অফিসে কিছু বনসাই জাতীয় গাছ রাখার পরামর্শ দিয়েছে। এখন আমরা সেগুলোই জানবো। 

পেগমি ডেট প্লাম: বামন আকৃতির খেঁজুর জাতীয় এই গাছটি খুবই ধীরগতিতে বাড়ে। যা বেঁচে থাকে দশকের পর দশক। এটা বেড়ে সর্বোচ্চ আট থেকে ১০ ফিট হয়। বাতাসের ক্ষতিকারক জাইলিন বা হাইড্রোকারর্বনসহ বিভিন্ন পদর্থ নিঃসরণ করে ডেট প্লাম। নাসা বলছে, এটি প্রতি ১০০ স্কয়ার ভিটে একটি করে লাগাতে হবে।

বোস্টন ফার্ন: এটা সাধারণত গ্রীষ্মপ্রধান বন, জলাভূমিতে জন্মে। এ গাছটি বাড়ার জন্য অল্প আলো এবং শৈত্য এলাকা হলে ভালো হয়। ঘরে বা অফিসে লাগাতে চাইলে- উত্তম হবে বাথরুমে রাখা। এ গাছটি আপনার বাথরুমের তরল ক্ষতিকর পদার্থগুলো শুষে নেবে। 

কিমবার্লি কুইন ফার্ন: অস্ট্রেলিয়ায় জন্ম কিমবার্লি কুইন ফার্নের। উষ্ণ অঞ্চল ও সূর্যের তাপ এর খুবই পছন্দ। সেখানে বেড়ে ওঠেও ভালো। থাকে তাজা। সেইসঙ্গে নিয়মিত পানিও দিতে কিমবার্লিকে। বিনিময়ে আপনাকে রাখবে জেলিন ও যানবাহনের ধোঁয়া থেকে মুক্ত। রাখবে একেবারেই ফ্রেস ও তাজা।

স্পাইডার উদ্ভিদ: উদ্ভিদটি বাতাস থেকে কার্বন ও ফর্মালডিহাইড দূর করে স্বাস্থ্যসম্মত। নাসা বলছে, বাসা বা অফিসে স্পাইডার প্লান্ট খুবই কার্যকরি। বাতাস থেকে স্পাইডার একাই ৯৫ ভাগ কার্বন দূর করে।

চীনা চিরহরিৎ উদ্ভিদ: চীনা চিরহরিৎ উদ্ভিদের খুব বেশি যন্ত নিতে হয় না। এটা আপনার কাজের ডেস্কে শোভা বর্ধণ করতে পারে। এটা স্বল্প আলোতেও বেঁচে থাকে। রাখতে পারে কার্যকর ভূমিকা। 

ব্যাম্বো প্লান্ট: এটা বাতাসের রাসায়নিক এবং ফর্মালডিহাইড দূর করে। এটা শীতকালে লাগালে দূতই বেড়ে ওঠে। থাকে তাজা। এটা বার্তি যন্ত চায়। সরাসরি সূর্যের আলো পড়বে এমন জায়গায় না লাগানোই ভালো। -টাইমস অব ইন্ডিয়া


বাসর রাতে স্ত্রীর কাছে কী
বিয়ের প্রথম রাত, অর্থাৎ ফুলশয্যার রাত হচ্ছে যে কোনো দম্পতির
বিস্তারিত
আত্মীয়ের মধ্যে বিয়ের কারণে যে
নিকট আত্মীয়ের সঙ্গে বিয়ের কারণে জন্ম নেয়া শিশু আক্রান্ত হচ্ছে
বিস্তারিত
ঘুমের মধ্যে মৃত্যু হতে পারে
জন্ম নিলে মারা যেতেই হবে। এই বাস্তবতা থেকে বের হওয়ার
বিস্তারিত
অতিরিক্ত সেলফি পোস্ট ভালো নাকি
সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক বা ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে শুধুই সেলফি!তবে অতিরিক্ত সেলফি
বিস্তারিত
৯ ঘণ্টার বেশি বসে কাজ
টানা অথবা বসে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কাজ করে যাচ্ছেন। কিন্তু
বিস্তারিত
জেনে নিন যেসব কারণে সন্তান
স্পার্ম কাউন্ট কম হওয়ায় বাবা-মা হওয়ার স্বাদ পান না অনেক
বিস্তারিত