শরীরের যে পরিবর্তনগুলো কখনও অবহেলা করবেন না

অনেক সময় আমরা শরীরের নানা নীরব লক্ষণ এড়িয়ে যাই কিংবা অবহেলা করি। যা পরবর্তীতে বড় ধরনের বিপদের কারণ হতে পারে। তাই যদি কখনও অনুভূত হয় যে শরীরের আকস্মিক পরিবর্তন ঘটছে, তা মোটেই অবহেলা করা উচিত নয়।

যেসব পরিবর্তন অবহেলা করবেন না-

১. শরীরের কোনো স্থান হতে অনভিপ্রেত রক্তক্ষরণ
২. বার বার মলত্যাগ
৩.আকস্মিক ওজন হ্রাস
৪. হঠাৎ রেগে যাওয়া
৫. শারীরিক ক্ষমতা হ্রাস
৬. স্কিন র‌্যাশ যা থেকে চুলকানো হয়
৭. নাক ডাকা
৮. দীর্ঘস্থায়ী খুশখুশে কাশি
৯. দাঁতের সমস্যা হওয়া
১০. প্রিয়জনের নাম মনে রাখতে না পারা

এ সমস্যাগুলো এক বা একাধিক এক সঙ্গে থাকতে পারে। যেমন- আকস্মিক ওজন হ্রাস, পাকস্থলী, গলনালী, প্যানক্রিয়াস অথবা ফুসফুসের ক্যান্সারের লক্ষণ। এ ব্যাপারে আমেরিকান ক্যান্সার সোসাইটির প্রধান ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা ড. রিসার্ড ওয়েন্ডারের মতে কোনো ধরনের ডায়েটিং অথবা এক্সারসাইজ ছাড়া শরীরের ওজন ১০ কেজি কমে গেলে অবশ্যই ক্যান্সারের বিষয়টি মাথায় আনতে হবে।

উল্লেখ্য, বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী এসব সমস্যা চিহ্নিত করা যায়। তাই তাদের মতে, শরীরের যে কোনো ধরনের রোগের লক্ষণ কোনো ভাবেই অবহেলা করা উচিত নয়।


বিয়ের আগে সঙ্গীকে যে ৬
বিবাহিত জীবনের সাফল্য বহুলাংশেই নির্ভর করে উপযুক্ত জীবনসঙ্গী নির্বাচনের উপর।
বিস্তারিত
প্রথম ডেটিং-য়ে ছেলেদের যে বিষয়গুলো
বেশ কিছুদিন ধরেই একটি মেয়েকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ফলো করছেন আপনি।
বিস্তারিত
কিডনি ঠিকমতো কাজ করছে না,
কিডনি এমন একটি অঙ্গ, যেটি অবিরত কাজ করতে থাকে। এটি
বিস্তারিত
বাংলাদেশে পুরুষের চেয়ে দ্বিগুণ অলস
বাংলাদেশি পুরুষদের তুলনায় নারীরা বেশি ‘অলস’ বা শরীর চর্চায় বিমুখ
বিস্তারিত
যেভাবে বাড়াবেন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা
যেকোনো ভাইরাস এবং ব্যাকটেরিয়া শরীরকে তখনই কাবু করতে পারে যখন
বিস্তারিত
যে পাঁচটি বিষয় নিয়ে পুরুষরা
প্রতি ৪০ সেকেন্ডে পৃথিবীতে একজন ব্যক্তি আত্মহত্যা করে। যারা নিজের
বিস্তারিত