দুই মাধ্যমে অর্থ পাচার, কঠোর হচ্ছে সরকার

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, মূলত ব্যাংক ব্যবস্থা ও আমদানি-রপ্তানির আড়ালে অর্থ পাচার করা হয়। অর্থ পাচার ঠেকাতে সরকার আরও কঠোর কার্যকর পদক্ষেপ নিচ্ছে। আমদানি ও রপ্তানির সব পণ্য সঠিকভাবে স্ক্যানিংয়ের ব্যবস্থা করা হবে। আমদানি ও রপ্তানিতে ওভার অ্যান্ড আন্ডার ইনভয়েসিংয়ের সঙ্গে জড়িতদের জরিমানা করা হবে, তাদের বিরুদ্ধে মামলাও হবে। আইনি ব্যবস্থায় কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) সচিবালয়ে মানি লন্ডারিং বিষয়ে জাতীয় সমন্বয় কমিটির আলোচনা সভা শেষে অর্থমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মুস্তফা কামাল বলেন, ব্যাংক ও এনবিআরের বাইরে বড় অংকের অর্থ পাচারের ব্যবস্থা নেই। আমদানি-রপ্তানিতে মিথ্যা ঘোষণা এবং ব্যাংকের মাধ্যমে এলসি খোলার মধ্য দিয়ে অর্থ পাচার করা হচ্ছে। আমদানি-রপ্তানির মাধ্যমে অর্থ পাচার রোধে শতভাগ স্ক্যানারের ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ওভার প্রাইসিং ও আন্ডার প্রাইসিং রোধে পিএসআইয়ের মতো করে এনবিআরে সেল খোলা হবে। যার মাধম্যে ইন্টারনেটে বিশ্বের বিভিন্ন পণ্যের মূল জানা যাবে। ওই মূল্যের সঙ্গে সামান্য ব্যবধান হলে ঝামেলা নেই, তবে ব্যবধান বড় হলে পণ্যগুলো বাজেয়াপ্ত হবে। জারিমানার পাশাপাশি আগামীতে আইন অনুযায়ী মামলা করা হবে।

মন্ত্রী বলেন, সন্ত্রাসে অর্থায়ন ও মানি লন্ডারিংয়ের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলে দিয়েছেন- আর দুর্নীতি হতে দেওয়া হবে না। মানি লন্ডারিংও দুর্নীতি। দুর্নীতির অর্থই সন্ত্রাসী কাজে যাচ্ছে। তাই দুই ক্ষেত্রকেই রোধ করতে হবে।


এবার ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলার
এবার ফেসবুক লাইভ স্ট্রিমিং করে আলোচিত ও সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার
বিস্তারিত
প্রিয়া সাহার ভাইয়ের বাড়িতে কী
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশের প্রিয়া সাহা তার বাড়িঘর
বিস্তারিত
একদিনেই শেয়ারবাজার থেকে ৫ হাজার
আবারো বড় ধরণের দরপতনের মুখে পড়েছে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা
বিস্তারিত
ডিআইজি মিজানকে গ্রেপ্তার দেখানো হলো
দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) এক কর্মকর্তাকে ঘুষ দেয়ার অভিযোগে সাময়িক
বিস্তারিত
ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল পদে ৭০
সুপ্রিম কোর্টের আপিল ও হাইকোর্ট বিভাগে রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনার জন্য
বিস্তারিত
ট্রাম্পের কাছে অভিযোগের ব্যাখ্যা দিলেন
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতনের
বিস্তারিত