স্বপ্ন ছুঁয়ে হাঁটা

 

পাতা ঝরার ঝিম কুয়াশায় ঝিমায় রাখাল বাঁশি
রসের পিঠায় সরস তবু জোছনা মুখের হাসি।

সকাল বেলার হালকা রোদে প্রেমের স্মৃতি পোহাই
ঝুম শীতে আজ কাছে এসো দোহাই তোমার দোহাই।

নরম রোদের পরম সোহাগ ভাপা পিঠার মতো
কিংবা তুমি মিষ্টি পায়েস প্রণয় অবিরত।
ঠোঁটের ভেতর ঠোঁট ডুবিয়ে যেন পাখির ছানা
খুটে খুটে নেব দু’জন এই জীবনের দানা।

নকশি কাঁথার চেয়ে অধিক মোহন আদর দিতে
কাশ্মীরি শাল-কার্ডিগানের মিলন হবে শীতে।
মাঘের শীতে বাঘ কাঁপে তাই আরো কাছে এসো
বুকের ভেতর বুক জমিয়ে ফ্রিজ হয়ে বসো...

রঙিন মনের ঘুড়ির মতো গ্রহণ লাগা চাঁদে
প্রথম চুমো যেমন ছিল গোপন বাড়ির ছাদে
পাটিসাপটা পিঠার ভাঁজে উষ্ণ পাশাপাশি
মাফলারে মন জমিয়ে নিলে নিগূঢ় ঠোঁটের হাসি।

আমি তোমার লেপ যেন লাল, তুমি আমার তোশক
সংসারি ঢেউ দেখে পালাক দুষ্টু গ্রহের শোষক।
পালাক ভুলের যাবতীয় সর্বনাশা কাঁটা
এই শীতে ফের নতুন জীবন স্বপ্ন ছুঁয়ে হাঁটা।


দীপা
পহেলা ফাল্গুন। বইমেলায় শাড়ি পরিহিতা সুশ্রী একজন লেখিকা ৩০১ নম্বর
বিস্তারিত
মেঘ শুধু মেঘ নয়
মেঘ শুধু মেঘ নয়; খুঁজেছো কি মেঘে তুমি কিছু  শাদা
বিস্তারিত
আলো অন্ধকারে যাই
ভ্যান থেকে যখন নামল সে, বহু মানুষ দাঁড়িয়ে আছে। সন্ধ্যা
বিস্তারিত
চেতনা বিকাতে পারি
  যিনি চেতনাবাজ হয়ে বেঁচে আছেন এক মেরদ-ী শিক্ষকের কথা বলি যিনি
বিস্তারিত
টুপটুপ রক্ত ঝরছে
কপালে লাল টিপ সেঁটে দৌড়ে ছুটছে লাল ষাঁড় শিং ছুঁয়ে
বিস্তারিত
মায়ের শরীরের একাংশ আমি
আমার অস্তিত্বের অঙ্কুরোদগম হয়েছিল এক মায়াবী নারীর গূঢ় কর্ষিত জঠরে
বিস্তারিত