বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের বাণিজ্যিক সেবা শুরু

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের বাণিজ্যিক সেবা কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথিরা

দেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১-এর বাণিজ্যিক সেবা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। মহাকাশে স্যাটেলাইটটির উৎক্ষেপণ করার এক বছরের মাথায় এ সেবা কার্যক্রম শুরু করতে পারল বাংলাদেশ। এখন দেশের অনেক টেলিভিশন চ্যানেল স্যাটেলাইটটির সেবা নিতে শুরু করছে। একই সঙ্গে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের মাধ্যমে ১৯ মে থেকে ডিরেক্ট টু হোম বা ডিটিএইচ সেবা দেওয়া শুরু করেছে বেক্সিমকো কমিউনিকেশন।
ঢাকার একটি হোটেলে ১৯ মে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের উৎক্ষেপণের এক বছর পূর্তি উদযাপন ও বাণিজ্যিক সেবা কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট বাংলাদেশের জন্য গর্বের বিষয়। এত দিন দেশের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোকে বিদেশি স্যাটেলাইটের ওপর নির্ভর করতে হতো। এখন তারা বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমেই সম্প্রচারে যেতে পারবে। দেশে এখন ৪৫টি চ্যানেলের লাইসেন্স রয়েছে, যার মধ্যে ৩১টি চ্যানেল সম্প্রচারে আছে, আরও কয়েকটি নতুন চ্যানেল আসবে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, আমরা এখন বঙ্গবন্ধু-২ স্যাটেলাইট নিয়ে কাজ শুরু করছি। আমরা প্রত্যাশা করছি, খুল অল্প সময়ের মধ্যে সেটি কোন ধরনের স্যাটেলাইট হবে এবং তার কাজ কী কী হবে, সেগুলো পর্যালোচনা করে প্রধানমন্ত্রীকে জানাতে পারব। প্রাকৃতিক দুর্যোগপ্রবণ দেশ হিসেবে বাংলাদেশ এখন বঙ্গবন্ধু-১-এর মাধ্যমে দুর্যোগকালীন যোগাযোগ ব্যবস্থা অব্যাহত রাখা যাবে।
অনুষ্ঠানে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, আমরা যে লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে চলছি তাতে ২০২১ সালের মধ্যে দেশের সবপ্রান্তে উচ্চগতির ইন্টারনেট পৌঁছে দেব। আমরা দেশের প্রতি ইঞ্চি মাটিতে দাঁড়িয়েই যেন ইন্টারনেট পাওয়া যায় সেই ব্যবস্থা করব।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন বিসিএসসিএলের চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ। অনুষ্ঠানে যমুনা টিভি, দীপ্ত টিভি, সময় টিভি, মাই টিভি ও বাংলা টিভির সঙ্গে চুক্তি হস্তান্তর করা হয়। চুক্তি অনুযায়ী টিভিগুলো বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ব্যবহার করে সম্প্রচার করবে। এছাড়া সোনালী ব্যাংকের সঙ্গেও চুক্তি হয়। যাতে ব্যাংকটি ব্রাঞ্চ-টু-ব্রাঞ্চ যোগাযোগ ও এটিএম এ সেবা দেবে।
গত বছরের ১২ মে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে বঙ্গবন্ধু-১ উৎক্ষেপণ করা হয়। এর ছয় মাস পর এর সবগুলো সিগন্যাল পরীক্ষা করে স্যাটেলাইট সিস্টেম নির্মাণকারী ফরাসি কোম্পানি থ্যালাস অ্যালিনিয়া স্পেসের মালিকানা বুঝিয়ে দেয় কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড (বিসিএসসিএল)। এরপর বাংলাদেশের প্রকৌশলীরাই নিয়ন্ত্রণ করছে এর সব টেকনিক্যাল বিষয়।


ডিজিটাল লিডারশিপ তৈরির উদ্যোগ
ডিজিটাল পার্লামেন্ট বাস্তবায়নে সংসদ সদস্যদের আরও দক্ষ করে তুলতে প্রশিক্ষণের
বিস্তারিত
বিশ্বকাপ ক্রিকেটের আপডেট জানুন অ্যাপেই
বিশ্বকাপ ক্রিকেট নিয়ে চলছে উন্মাদনা। কিন্তু নানা ব্যস্ততায় অনেক ক্রিকেটপ্রেমীরই
বিস্তারিত
খাবার ডেলিভারি দেবে উবার ইটসের
ফুড ডেলিভারির জন্য এবার ড্রোন ব্যবহার করবে উবার। আপাতত পরীক্ষামূলকভাবে
বিস্তারিত
ট্যাক্সি ভিন্ন পথে গেলে সতর্ক
গুগল ম্যাপে প্রতিনিয়তই যোগ হচ্ছে নতুন সব ফিচার। কিছুদিন আগেও
বিস্তারিত
স্মার্টফোনে ক্রিকেট খেলা
জমে উঠেছে বিশ্বকাপ ক্রিকেটের এবাবের আসর। চলছে দলগুলোর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি
বিস্তারিত
লাকী আখন্দের জন্মদিনে গুগলের শুভেচ্ছা
বাংলাদেশের কিংবদন্তি শিল্পী লাকী আখন্দের ৬৩তম জন্মদিন ছিল ৭ জুন।
বিস্তারিত