চিঠি

ঢাকা শহর এক আশ্চার্য শহর বটে
পাহাড় নেই, শাল মহুয়া নেই
যমুনা নেই, কদম গাছ নেই
অথচ সেই ঘর পালানো মন আছে।

প্রাচীনতম বাঁশির ডাক শুনে
খুঁজছে অন্ধকারের কুঞ্জবন 
কথা দিলে, অ্যাপয়েন্টমেন্ট করলে 
সেটা রাখতে হয়, সেটাই সভ্যতা।

আজ ঘড়ির কাঁটায় কাঁটায় রেস্টুরেন্ট 
মশায়ের কোনো দেখা নেই
চেনা বেয়ারা আমাকে দেখে পাথর
তোমাকে সারপ্রাইজ দেব বলে পরে এসেছিলাম
মায়ের লাল বেনারসি। 

বাসের জন্য যখন মোড়ে দাঁড়িয়েছিলাম
সামনে এলো এক ফুলঅলা
বেলি ফুল নিলাম তোমার পছন্দ বলে
সে-ও তোমার চিঠিতে লেখা ছিল।

আধঘণ্টা পেরোতেই মাথার শিরা ছিঁড়ে যুদ্ধের সাইরেন
অবশেষে নিজের ছায়াকে মাড়িয়ে মাড়িয়ে বাড়ি ফেরা
সেদিন রাতের ঘুম না হওয়ার খবর কেবল জানে
আকাশের একটি নক্ষত্র।


ভাতঘুম
সুমন রহমান লাজুক ভঙিতে হাসে। তার মাথাটা নুয়ে আসে বুকের
বিস্তারিত
কাঠমান্ডুর দরবারে
নেপালের কাঠমান্ডুতে অবস্থিত হনুমান ধোকা দরবার ১৯৭৯ সালে ইউনেস্কোর বিশ্ব
বিস্তারিত
কবিতা
কাজী জহিরুল ইসলাম গৃহগল্প দাঁড়াবার জন্য কিছুটা সময় নেয় এরপর টুপ
বিস্তারিত
গণসমুদ্রচোখ আমাকে পাহারা দেয়
দাগহীন আত্মসমর্পণ, গোটা থানকুনি বাঁক তা দিচ্ছে। ধুলোর গায়ে-বেদনায়, প্রয়াণে;
বিস্তারিত
পথিক
তোমার বাস কোথায় গো পথিক, দেশে না বিদেশে আমি তোমায়
বিস্তারিত
নদী এবং নদীরা
হ্যাঁ, মেয়েটির নাম ছিলÑ নদী! পারভীন জাহান নদী। হয়তো আরও
বিস্তারিত