জমিজমা নিয়ে পূর্বশত্রুতার জের

প্রবাসী আ.লীগ নেতাকে উচ্ছেদের পায়তারা, বাড়িতে হামলা, লুটপাট

গ্রেফতার ২

জমি নিয়ে পূর্বশত্রুতার জের ধরে মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় আওয়ামী লীগের ফ্রান্স প্রবাসী এক নেতার বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়েছে।

গত মঙ্গলবার রাতে লতব্দী ইউনিয়নের খিদিরপুর গ্রামের মিজানুর রহমান সরকারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে। তিনি ফ্রান্স আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এবং তার ভাই ভাগ্নে আওয়ামী লীগ কর্মী।

বৃহস্পতিবার বিকালে সরেজমিনে দেখা যায়, শোবার ঘরের বিছানাপত্র ছড়ানো-ছিটানো। ভেঙে তছনছ করা হয়েছে ঘরের রেফ্রিজারেটর, খাট, আলমারি ও টিভি থেকে শুরু করে ব্যবহারের সব জিনিসপত্র। বাদ যায়নি ঘরের দরজা-জানালাও।

খিদিরপুর এলাকার বাসিন্দারা জানায়, প্রবাসী আওয়ামী লীগ নেতা বিভিন্ন প্রজেক্ট তৈরির জন্য তাদের পৈত্রিক ও ক্রয়কৃত জমি বালু ভরাট  শুরুর পর থেকেই জমিজমা নিয়ে পূর্বশত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলার পরিকল্পনা করতে থাকে।

মিজানুর রহমান সরকার বলেন, জমিজমা নিয়ে পূর্বশত্রুতার জের ধরে পূর্ব রামকৃষ্ণদী গ্রামের নুর হোসেন (৩০), ইকবাল হোসেন (৩৩), জহিরুল (৩১), জুয়েল (২৮), আসাদুল (৩৫), আব্বাস আলী (২৭), নুরুল ইসলাম (৫০), জমির হোসেন (৩৫), মিয়ার হোসেন (৩২) সোহাগ (৩২)সহ ৩০-৪০ জন ক্ষুব্ধ হয়ে মঙ্গলবার রাত আটটার দিকে আমার বাড়িতে হামলা-ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়। এ সময় আমার ভাই হাবিবুর রহমান, ভাগিনা মুকুল ও সজীবকে রাম দা দিয়ে মাথায় কুপিয়ে জখম করে।

মিজানুর রহমানের রহমানের ছোটভাই আহত হাবিবুর রহমান বলেন, ‘রাত আটটার দিকে মুখচেনা ৩০-৪০ জন সন্ত্রাসী রামদা, পাইপ, লাঠি দিয়ে ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে। তারা প্রায় ৩৫ মিনিট ধরে সব ঘরে ভাঙচুর তান্ডব চালায়। যাওয়ার সময় আমার ফ্রান্সের পাসপোর্ট, ছোট ভাইয়ের স্ত্রী ২০ ভরি ওজনের সোনার গয়না, ১৬৭০০ ইউরো ও নগদ ১১লাখ টাকা এবং দুইটি মোবাইল লুট করে নিয়ে যায়।

প্রতিবেশী জামাল হোসেন বলেন, ‘হামলাকারীদের সবার হাতে ধারালো অস্ত্র ছিল। ভয়ে কেউ প্রতিরোধ করার সাহস পায়নি। মিজানুর রহমানের চাচাত ভাইয়ের ছেলে থিদিরপুর ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি দেলুয়ার হোসেন দেলু বলেন, ফ্রান্স প্রভাসী আওয়ামী লীগ নেতার বাড়িতে হামলা-ভাঙচুর ও লুটপাট করে যাওয়ার এলাকায় আতংকের সৃষ্টি হয়েছে।

এ ব্যাপারে সিরাজদিখান থানার ওসি মো. ফরিদউদ্দিন বলেন, আওয়ামী লীগের প্রবাসী নেতার বাড়িতে হামলার ঘটনায় বুধবার দুপুরে থানা মামলা হয়েছে, পরে দুই জনকে আটক করে বৃহস্পতিবার কোর্টে পাঠানো হয়। আটকরা হলেন- নুরুল ইসলাম ও আসাদুল।

এদিকে ফ্রান্স প্রভাসী মিজানুর রহমানের রহমান বলেন- থানায় অভিযোগ দেয়ায় হামলাকারীরা ফের শুক্রবার আমাকে হুমকি দিয়ে এলাকা ছাড়া করতে চাচ্ছে এসব কারণে আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।

এঘটনায় খিদিরপুর এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংর্ঘষের ঘটনা ঘটতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছে স্থানীয় বাসিন্দারা।

সিরাজদিখান থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ফরিদ উদ্দিন আরও বলেন, শুক্রবার বিকালে উভয় পক্ষকে সিরাজদিখান থানায় ডাকা হয়েছে আমরা থানা থেকে চাইছি উভয়কে শান্ত করতে। স্থানীয় মেম্বার ও ফ্রান্স প্রভাসী মিজানুর রহমানের সাথে কথা বলে এলাকার সার্বিক পরিস্থিতি জানার চেষ্টা চলছে।


হঠাৎ উধাও নবম শ্রেণির ছাত্রী
ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার ভাইটকান্দি উচ্চ বিদ্যালয়ের চম্পা, রাজিয়া ও সুলতানা
বিস্তারিত
দশ টাকার জন্য মাকে কুপিয়ে
মাত্র দশ টাকার গুলের দাম না দেওয়ায় পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে মাকে
বিস্তারিত
শান্তিপূর্ণ নির্বাচন উপহার দিতে প্রশাসনকে
শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির ৪র্থ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৬ জুন
বিস্তারিত
১০ ঘন্টা পর ঢাকা-ময়মনসিংহ রুটে
কিশোরগঞ্জ রেল স্টেশনের কাছে হোম সিগন্যালে লোকাল ট্রেনের ইঞ্জিন লাইনচ্যুত
বিস্তারিত
চবিতে প্রকৌশলীর রুমে তালা, মুঠোফোনে
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) প্রকৌশল দপ্তরের এক প্রকৌশলীর রুমে তালা দেয়ার
বিস্তারিত
নদী দখলকারীরা যত ক্ষমতাশালীই হোক
জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান হাওলাদার বলেছেন, যে
বিস্তারিত