উন্মাসিক চৈত্রকাল

চারদিকে চৈত্র ঝলসানো চোখ
খেয়ালি রোদে খাঁ-খাঁ মাঠ, 
অসংখ্য ফাটলে খানখান হৃদয়
আর যারা ছিল নিপুণ সন্ন্যাসী,
ব্রত ভেঙে তারা আজ পিতা
হাটবাজার নিয়ে গেছে গেরুয়া রঙ-

আমরা যারা গৃহে ছিলাম, ভালোবেসে-
দুধ-ভাতের চিন্তায়, সাথে স্বপ্ন জাহাজ
এবং ফুল-পাখি-নদী প্রেমে যারা ছিলাম
করুণ স্তব্ধতায় ডুবে আছি আকণ্ঠ
পৈশাচিক পীড়নে কাঁদে মা, কোলের শিশু
কাঁদে শুভ্র মন বিপুল আর্তনাদে-

আমরা অরণ্যে চলে যেতে চাই
ঝলসানো চৈত্র আর শ^াপদ লোকালয় 
এবং মানুষের দাঁতাল থাবা থেকে
যেতে চাই গেরুয়া রঙে, বৃক্ষছায়ায়...

মূলত আমরা পালাতে চাই এ উন্মাসিক চৈত্রকাল থেকে।


পরমানন্দ মূল : জন ডান
শয্যার পরে রাখলে বালিশ দেখায় যেমন মাটির ঢিবি তেমনি একটি
বিস্তারিত
কোনোদিন কথা হয়নি
  লাল কাঁকড়ার পদচিহ্ন খুঁজে খুঁজে হাঁটি পথ বালিচরে নগ্ন পা,
বিস্তারিত
গাঁয়ের বধূ
বড়ালের পাড়ে তরুণী বধূটি, তাদের সংসারে নুন আনতে পান্তা ফুরাতো।
বিস্তারিত
আমাদের গল্প অল্প
তোমাদের গল্প, আমাদের গল্প এক নয়, এক হতে পারে না 
বিস্তারিত
কবিতা ও ভাবনা
কবিতা একটি শিল্প, যা শুধু উপলব্ধি করার বিষয়। গভীর চিন্তাভাবনার
বিস্তারিত
হেমন্তিকা
সবুজ পাতার খামের ভেতর হলুদ গাঁদা চিঠি লেখে কোন পাথারের
বিস্তারিত