আবারও প্রমাণ করলেন ‘গরিবের বন্ধু শিহাব’

একজন মানুষ, কাজ অনেক। অসহায় দরিদ্র, অবহেলিত, শিক্ষা বঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোই তার নেশা। তিনি পেশায় একজন ব্যবসায়ি। ব্যবসায় সফলতার পরে অংশ নেন রাজনীতিতে। রাজনীতির প্রতি অগাদ ভালোবাসায় জড়িয়ে যান তৃণমূলের মানুষের সঙ্গে। তৃণমূলের সেই অসহায় মানুষদের পাশে সবসময় তাকে দেখা গেছে কারো সন্তান, কারো ভাই, কারো বন্ধুর হিসেবে। বার বার অসহায় মানুষদের বিপদে আপদে পাশে থেকে প্রমাণ করেছেন তিনি গরিবের বন্ধু।

এবার আরেকবার প্রমাণ করলেন তিনি আসলেই কত দয়ালু ও মহান। বলছিলাম বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক ও বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এবং স্পন্দন পাওয়ার অ্যান্ড অ্যানার্জি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মশিউর রহমান শিহাবের কথা। দেশের সর্ব দক্ষিণের জেলা বরগুনার রোড পাড়া গ্রামে তার জন্ম।

সম্প্রতি বরগুনার আয়লা পাতাকাটার হতদরিদ্র নাজমা বেগম নামের এক অসহায় নারীর অনেক কষ্টের টাকায় কেনা ছিল একটি গরু। সেই গরুটি ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় মারা যায়। আর এ মৃত গরুটি পাশে মাটিতে গড়াগড়ি করে নাজমা বেগমের কান্নার একটি ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়।

সেই ভিডিওটি চোখে পরে গরিবের বন্ধু শিহাবের। ভিডিওটি শেয়ার করা দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশের সহ-সম্পাদক এম সোলায়মানের সঙ্গে যোগাযোগ করে নাজমা বেগমকে একটি গরু কিনে দেওয়ার কথা দেন।

মশিউর রহমান শিহাব জানান- অসহায় গরিব নাজমা বেগমের গরু মারা যাওয়া একটি দুঃখজনক সংবাদ। তাই নাজমা বেগমকে আমি একটি গরু কিনে দিতে চাই। আশা করছি আগামী ২৯ জুন তার হাতে একটি গরু তুলে দিতে পারবো।

এদিকে মশিউর রহমান শিহাবের এই উদারতার প্রসংশা করেছেন বহু মানুষ। ভাইরাল হওয়া ভিডিওটির কমেন্টে অনেকেই তার প্রসংশা করে জানান- ‘সত্যিই আমরা বরগুনাবাসী আপনার (মশিউর রহমান শিহাব) জন্য গর্বিত। এভাবেই মানবতার সেবায় এগিয়ে যাক আমাদের প্রিয় মশিউর রহমান শিহাব ভাই।’

মো. আলিম হোসেন নামের এক ফেসবুক ব্যবহারকারী লিখেন- ‘আমাদের বরগুনার অহংকার...আমার প্রান প্রিয় কাকা।’

জেসমিন নিপা নামের আরেকজন লিখেন- ‘এ মহৎ উদ্যোগ এর জন্য শিহাব ভাইকে ধন্যবাদ’।

মো. রাকিবুজ্জামান নামের অন্য এক ব্যক্তি লিখেন- শিহাব ভাই এই রকম অনেকের পাশে দাঁড়িয়েছেন। আল্লাহ তাকে সুস্থ রাখুক।’

বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম সিদ্দিকুর রহমান বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। তৎকালীন সেই নেতার বড় ভাগ্নের ছেলে হিসেবে তার আদর্শকে বুকে ধারণ করে মানুষের পাশে দাঁড়ান এই গরিবের বন্ধু শিহাব।

মশিউর রহমান শিহাব বলেন- আমি শুধু রাজনীতিই করি না। আমি একজন সফল ব্যবসায়ি। আর এই ব্যবসার উপার্জন দিয়েই মানুষের পাশে আছি ভবিষ্যতেও থাকবো। বরগুনার মাটি ও মানুষ আমার প্রাণ। প্রতিটি মূহুর্তেই আমার চিন্তা ও স্বপ্ন বরগুনার উন্নয়নের জন্য, বরগুনার অবহেলিত মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য। আমার যতই বিপদ আসুক না কেন দক্ষিণবঙ্গের অবহেলিত জেলা বরগুনার উন্নয়নের জন্য আমি চেষ্টা করে যাবো জীবনের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে। মানুষের ভালোবাসা ও দোয়াই আমার পথ চলার শক্তি।


নিজের নিরাপত্তায় হেলমেট ব্যবহার করেন
বাংলাদেশে ট্রাফিক আইন প্রয়োগে সবথেকে বড় সমস্যা হলো অতি গরীব
বিস্তারিত
ই-সিগারেট সম্পর্কিত কিছু ভুল তথ্য
ইলেকট্রনিক সিগারেট বা ই-সিগারেট ব্যাটারি চালিত একধরনের যন্ত্র, যার মাধ্যমে
বিস্তারিত
অপসাংবাদিকতা রোধে চাই কার্যকর পদক্ষেপ
সাংবাদিকতা একটি মহান পেশা। একজন সাংবাদিককে সকল পেশার মানুষ অত্যন্ত
বিস্তারিত
নৌকার ইতিহাস ও ঐতিহ্য সংরক্ষণে
নৌকা এবং বাংলাদেশের সংস্কৃতি ওতপ্রোতভাবে জড়িত। দীর্ঘকাল ধরে এদেশের মানুষের
বিস্তারিত
মাদকমুক্ত বরগুনা গড়তে প্রয়োজন সম্মিলিত
বরগুনা আমাদের আবেগ ও অনুভূতির জায়গা। এখানে বেড়ে ওঠা প্রতিটি
বিস্তারিত
৩৮ লাখ বছর আগের মাথার
আবিষ্কার হওয়া মাথার খুলি তৈরি করেছেন এক শিল্পী। আনামেনসিস দেখতে
বিস্তারিত