নিত্যপণ্যের দাম বাড়বে না: অর্থমন্ত্রী

জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট পেশ করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। এটি ক্ষমতাসীন সরকারের চলতি মেয়াদের প্রথম এবং দেশের ৪৮তম বাজেট।

বাজেট আলোচনার শুরুতেই সংসদে অর্থমন্ত্রী জানান, এবার বাজেটে এমনভাবে ব্যবস্থা রাখা হয়েছে যেন নিত্যপণ্যের দাম না বাড়ে।

‘সমৃদ্ধ আগামীর’ প্রত্যাশা সামনে রেখে আওয়ামী লীগের তৃতীয় মেয়াদের প্রথম বছরে পাঁচ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেট জাতীয় সংসদের সামনে উপস্থাপন করা হচ্ছে।

নতুন অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত এই ব্যয় বিদায়ী অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের ১৮ শতাংশ বেশি।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) বিকেলে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের এই বাজেট প্রস্তাব উপস্থাপন শুরু করেন অর্থমন্ত্রী। তবে শারীরিক অসুস্থতার জন্য অর্থমন্ত্রী বাজেট পাঠ করতে অসুবিধার সম্মুখীন হওয়ায় বাজেট পাঠ শুরু করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এর আগে মন্ত্রিসভার অনুমোদনের পর ওই প্রস্তাবে সই করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

এর আগে দুপুরে ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এর আগে বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জাতীয় সংসদ ভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে প্রস্তাবিত বাজেট অনুমোদন দিতে মন্ত্রিসভার বিশেষ বৈঠক শুরু হয়।

এবারের বাজেটের নাম দেওয়া হয়েছে ‘সমৃদ্ধ আগামীর পথযাত্রায় বাংলাদেশ: সময় এখন আমাদের, সময় এখন বাংলাদেশের’।

চলতি অর্থবছরের মূল বাজেট চার লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকা। তবে লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী, রাজস্ব আদায় করতে না পারায় ও উন্নয়ন প্রকল্পে পরিকল্পনা অনুযায়ী অর্থ খরচ করতে না পারায় চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের আকার নির্ধারণ করা হয় চার লাখ ৪২ হাজার ৫৪১ কোটি টাকা। অর্থাৎ আগামী বাজেটের আকার সংশোধিত বাজেট থেকে ৮০ হাজার ৬৪৯ কোটি টাকা বেশি।

এটি দেশের ৪৮তম ও বর্তমান সরকারের তৃতীয় মেয়াদের প্রথম বাজেট। আর অর্থমন্ত্রী হিসেবে আ হ ম মুস্তফা কামাল এটি প্রথম বাজেট।

মন্ত্রিসভার অনুমোদন মিললে আজ বেলা ৩টায় জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপন করবেন। এটি দেশের ৪৮তম ও বর্তমান সরকারের তৃতীয় মেয়াদের প্রথম বাজেট। আর অর্থমন্ত্রী হিসেবে আ হ ম মুস্তফা কামাল এটি প্রথম বাজেট।


এবারও মেয়েদের পাসের হার বেশি
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘এবারও আমাদের ছাত্রীদের পাসের হার একটু
বিস্তারিত
পাসের হার ও জিপিএ-৫ উভয়ই
এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ফল প্রকাশ হয়েছে। আজ বুধবার (১৭
বিস্তারিত
৯০৯ প্রতিষ্ঠানে শতভাগ পাস
এইচএসিস ও সমমানের পরীক্ষায় এবার ৯০৯টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শতভাগ শিক্ষার্থী পাস
বিস্তারিত
৪১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের একজনও পাস
চলতি বছরের উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমান পরীক্ষায় ৪১
বিস্তারিত
যেভাবে জানা যাবে এইচএসসির ফলাফল
এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ হচ্ছে আজ বুধবার। সকাল
বিস্তারিত
উচ্চমাধ্যমিকের ফল প্রকাশ: পাশের হার
উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমান পরীক্ষা ২০১৯-এর ফলের সারসংক্ষেপ
বিস্তারিত