যে কারণে অকালে চুল ঝরে টাক পড়ে

টাক পড়ে যাওয়া এখন খুব স্বাভাবিক একটি বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। বয়স হয়তো ত্রিশও ছোঁয়নি, অথচ টাক পড়ার কারণে দেখতে লাগে বয়স্ক। এরকম সমস্যায় ভুগে থাকেন অধিকাংশ পুরুষই।

বেশ কয়েকটি কারণে অকালে চুল ঝরে যেতে পারে। তার মধ্যে মাত্রাতিরিক্ত মানসিক চাপ, ব্যাকটেরিয়ার কারণে সংক্রমণ বা অ্যালার্জি, রক্তস্বল্পতা, আবহাওয়া, অপুষ্টি এবং দূষিত পানি অন্যতম। তবে অকালে চুল ঝরে যাওয়ার ক্ষেত্রে বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই কারণ হিসেবে সামনে আসে অপুষ্টি।

পুষ্টিবিদদের মতে, কয়েকটি খাবার বা মশলা নিয়মিত খেতে পারলে অপুষ্টিজনিত কারণে চুল ঝরা বন্ধ হয়ে যাবে। নতুন চুলও গজাবে। চলুন জেনে নেই কোন খাবারগুলো আপনার টাক পড়া রোধ করবে-

আমলকীতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি। চুলের পরিচর্যায় যুগ যুগ ধরেই আমলকীর ব্যবহার হয়ে আসছে। প্রতিদিন একটা করে আমলকী খেতে পারলে অকালে চুল ঝরে যাওয়া থেকে রেহাই পাওয়া সম্ভব।

পালং শাকে রয়েছে ভিটামিন বি, সি, ই, আর ভিটামিন এ। এ ছাড়াও এতে রয়েছে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড ও আয়রন। এই উপাদানগুলি চুলের গোড়া শক্ত করতে সাহায্য করে।

চুলের পরিচর্যায় মেথি অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান। মেথিতে রয়েছে প্রচুর প্রোটিন ও নিকোটিনিক অ্যাসিড যা চুলের গোড়া শক্ত করে অকালে অতিরিক্ত চুল ঝরে যাওয়া রুখতে সাহায্য করে। প্রতিদিন মেথি ভেজানো পাবেন খেতে পারলে ফল পাবেন।

নারিকেল তেলে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে লরিক অ্যাসিড যা চুলে প্রোটিনের জোগান দিয়ে গোড়া মজবুত করতে সাহায্য করে। মাথায় নারিকেল তেল মাখার সঙ্গে সঙ্গে নারিকেল তেলে রান্না করে খেতে পারলেও অকালে চুল ঝরে যাওয়ার সমস্যায় দুর্দান্ত ফল মিলবে।


টয়লেটে মোবাইল ব্যবহার করলেই হবে
অনেকে অস্বীকার করলেও এটাই বাস্তব যে অনেকেই টয়লেটে বসে মোবাইল
বিস্তারিত
অ্যান্টিবায়োটিক ঔষধ খাওয়ার পর এই
যেকোনো ধরণের একটু বেশি অসুস্থতার জন্যই আমরা ডাক্তারের শরণাপন্ন হই।
বিস্তারিত
স্বপ্নে কারো শারীরিক সম্পর্ক হলে
ঘুমের ঘোরে আমরা অনেক স্বপ্ন দেখি। কোনোটা মনে থাকে, কোনোটা
বিস্তারিত
সুখে থাকতে হলে সিঙ্গেল থাকুন
সোশ্যাল সাইট নিয়ন্ত্রিত আজকের জীবনে নিজেকে ছাড়া সবাইকেই জোড়ায় জোড়ায়
বিস্তারিত
যৌবনের উম্মাদনায় নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করবেন
তরুণ যুবকদের মাঝে বয়ঃসন্ধিক্ষণে এক ধরনের কামনা বাসনা বা হতাশা
বিস্তারিত
যে কারণে বয়স লুকাতে চান
নিজেকে কম বয়সী দেখানো কে না চায়। তবে বেশির ভাগ
বিস্তারিত