মুন্সীগঞ্জে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধসহ আহত ২০

মুন্সীগঞ্জের সদর উপজেলার মোল্লাকান্দিতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে একপক্ষের সন্ত্রাসী হামলা ও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় গুলিবিদ্ধসহ ২০ জন আহত হয়েছে। মঙ্গলবার ভোরে মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের নোয়াদ্দা ও ঢালী কান্দিতে এই হামলার ঘটনা ঘটে। এতে নোয়াদ্দা এলাকার নুরউদ্দীন (৫৫), সোলেমান (৪০), আকরাম (৩৭), আবু সায়েদ (৫০), রহমত উল্লাহ (১৭), আবুল কালাম (৩৫), মোঃ সুজন (৩৫), গৃহবধূ তাসলিমা (৫০), শাহনাজ (৩০), কলেজছাত্র মোঃ সাকিলসহ (১৯) ২০ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ আকরাম ও নূর উদ্দীনকে গুরুতর অবস্থায় মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসাপাতালে নেয়া হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য স্বপন দেওয়ানের নেতৃত্বে এ হামলা হয়েছে। এদিকে এ ঘটনায় অভিযান চালিয়ে ৭ জনকে আটক করেছে মুন্সীগঞ্জ সদর থানা পুলিশ।

সরজমিনে জানা যায়, সম্প্রতি কয়েকদিন ধরেই মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য স্বপন দেওয়ান ও ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মেজবাউদ্দিন ঢালীর মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিরোধের জেরে হামলা পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটে আসছিল এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার ভোরে একপক্ষে স্বপন দেওয়ানের নেতৃত্বে অর্ধশতাধিক সন্ত্রাসী নোয়াদ্দা ও ঢালী কান্দি এলাকায় হামলা চালায়। এ সময় মেজবাউদ্দিন ঢালীকে না পেয়ে এলাকার নিরীহ মানুষরে উপর হামলা চালায় তারা। হামলাকারীদের হাত থেকে রক্ষা পায়নি গবাদিপশুও। 

স্থানীয়রা জানায়, ভোরের সূর্য ওঠার আগেই সন্ত্রাসীরা আমাদের ওপর হামলা চালায়, তারা গবাদিপশুর ওপরও হামলা চালিয়েছে। গত কয়েকদিন ধরেই সন্ত্রাসীবাহিনীর হামলায় এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে, আমরা এর থেকে রেহাই চাই। 

একপক্ষের মেজবাউদ্দিন ঢালী জানায়, সকালে আমার এলাকায় নিরীহ মানুষদের ওপর আচমকা হামলা চালায় এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী স্বপন বাহিনী।

এ ব্যাপারে স্বপন দেওয়ান জানান, ভোরে আমি বাজারে আসলে আমার ওপর হামলা চালানো হয়, পরে আমার লোকেরা পাল্টা হামলা চালায়।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) গাজী সালাহউদ্দিন জানান, ঘটনাস্থলের আশপাশ থেকে জড়িত সন্দেহে নারীসহ ৭ জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের ঘটনাস্থলেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা আছে। আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মাঝে মাঝে এ এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। তবে এ ঘটনায় জড়িতদের ধরার চেষ্টা চলছে।

এ ব্যাপারে মুন্সীগঞ্জ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম পিপিএম (বার) জানান, ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গ্রামগুলোতে চিরুনি অভিযান অব্যাহত রয়েছে। জড়িত থাকার প্রমাণ পেলেই গ্রেফতার করা হবে।


নাগরপুরে ১০টি বেইলি সেতুই যেন
নাগরপুর-আরিচা আঞ্চলিক মহাসড়কের ১০টি বেইলি সেতুর সবই নড়বড়ে হয়ে পড়েছে।
বিস্তারিত
পালিয়ে থাকা বুদ্ধিজীবী হত্যাকারীদেরও বিচার
ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ বলেছেন, দেশের বাইরে পালিয়ে
বিস্তারিত
সিরাজগঞ্জে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল
সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বনবাড়ীয়া গ্রামে এক স্কুলছাত্রীকে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা
বিস্তারিত
বিজয় দিবস উদযাপনে প্রস্তুত জাতীয়
১৬ ডিসেম্বর, মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন
বিস্তারিত
টিআর কাবিখার অর্থ লুটপাট করলে
টিআর কাবিখার প্রকল্পের অর্থ লুটপাট ও অনিয়ম-দুর্নীতির আশ্রয় নিলে কঠোর
বিস্তারিত
পাবনায় সড়ক দুর্ঘটনায় জামাই-শ্বশুর নিহত
পাবনায় সড়ক দুর্ঘটনায় জামাই-শ্বশুর নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন
বিস্তারিত