ইসলামপুরে বন্যায় ব্যাপক ক্ষতি, যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

জামালপুর জেলার ইসলামপুরে স্মরণ কালের ভয়াবহ বন্যায় অসহায় মানুষের কান্না থামছেন না। এবারের বন্যার তীব্র স্রোতে ৩৩৫টি পরিবারের বাড়িঘর সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং ৫ হাজার ৫৫০টি পরিবারের বাড়িঘর আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

বন্যায় ইসলামপুরের প্রায় ১৭০ কিলোমিটার পাকা সড়ক ৩০৫ কিলোমিটার কাঁচা সড়ক এবং ৪ কিলোমিটার বন্যানিয়ত্রন বাঁধ সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া ২৫৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ১৩৫টি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, ২৬ হাজার ৯১০টি ল্যাট্রিন, ৫৫টি ব্রীজ, ৮০টি কালভার্ট, ১ হাজর ৫৭০টি পুকুর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিশেষ করে ইসলামপুর-উলিয়া, ইসলামপুর-মাহমুদপুর, মলমগঞ্জ-গুঠাইল, মলমগঞ্জ-কুলকান্দি, উলিয়া-মাহমুদপুর, উলিয়া-পচাবহলা এলাকার পাকা সড়ক সমূহে অসংখ্য খানা খন্দে ভরপুর হয়ে আবার কোথাও কোথাও পাকা সড়ক ভেঙ্গে ডোবার সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমানে ইসলামপুর উপজেলার পশ্চিমাঞ্চলের ৬টি ইউনিয়নের অধিকাংশ সড়ক যোগাযোগ সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

এ বিষয়ে পাথর্শী ইউপি চেয়ারম্যান ইফতেখার আলম বাবুল বলেন, এবারের ভয়াবহ বন্যায় অধিকাংশ বসতভিটার ঘরবাড়ি পাকা সড়কের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। প্রায় সকল সড়ক পথ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

চিনাডুলী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস ছালাম জানান, এবারের ভয়াবহ বন্যায় যমুনা তীরবর্তী ইউনিয়ন গুলো আগ্রাসী যমুনার ভাঙ্গনে দিশেহারা হয়ে পড়েছে এলাকার মানুষ।

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মেহেদী হাসান টিটু জানান, বন্যায় উপজেলার বহু বাড়িঘর সম্পুর্ণ বিধ্বস্ত হয়েছে। এছাড়াও বন্যার পানির স্রোতে ইউনিয়নের সকল সড়ক ভেঙে লণ্ডভণ্ড হয়ে যাওয়ায় অভ্যন্তরীণ সকল সড়কের যোগাযোগ বিছিন্ন রয়েছে।

এ বিষয়ে ইসলামপুর স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী বিভাগের উপসহকারি প্রকৌশলী আবু সালে মো.ইউসুফ শাহী এবং উপজেলা প্রকৌশলী মো. আমিনুল হক জানান, এবছর বন্যায় এ  উপজেলার প্রাথমিক জরিপে প্রায় ২২০কিলোমিটার পাকা রাস্তা, ৪শ কিলোমিটার কাঁচা রাস্তা, প্রায় ১৩০টি ব্রিজ/কালভাট, দুই হাজার মিটার ব্রিজ, ৩টি হেলথ সেন্টার, ১০টি হাটবাজার, ৪টি ইউপি ভবন, ১৩৪টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবন চরম ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৫ শ কোটি টাকা।

ইসলামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, এ বারের ভয়াবহ বন্যায় এ উপজেলায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

অপরদিকে স্থানীয় এমপি আলহাজ্জ ফরিদুল হক খান দুলাল বলেন, গত ১২বৎসরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেক দৃষ্টির কারণে এলাকায় যেসব উন্নয়ন মুলক কাজ করে ছিলাম তার অধিকাংশ এবারের বন্যায় মারাত্বক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।


সাপাহারের প্রতিবন্ধী যুবক ঢাকায় নিখোঁজ,
নওগাঁর সাপাহারে এক বুদ্ধি প্রতিবন্ধী যুবক এক মাস ধরে নিখোঁজ
বিস্তারিত
গৃহপরিচারিকাকে গণধর্ষণ, থানায় মামলা
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় এক গৃহ পরিচারিকা (১৯) কে ৩ বখাটে মিলে
বিস্তারিত
মঠবাড়িয়ায় ছাদ থেকে পরে নির্মাণ
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার মিরুখালী স্কুল এন্ড কলেজে সোমবার সকালে নির্মাণাধীন একাডেমিক
বিস্তারিত
আশুলিয়ায় নির্মাণাধীন ভবনে যুবকের মরদেহ
নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের আশুলিয়ায় একটি নির্মাণাধীন ভবন থেকে অজ্ঞাত এক যুবকের
বিস্তারিত
রাজশাহীতে প্রথম শুরু হচ্ছে জাহানারা
ঢাকার বাইরে এই প্রথম রাজশাহীতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে জাহানারা জামান
বিস্তারিত
ঢাকার সব ওসির আমলনামা নেওয়া
শিগগিরই ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন পর্যায়ে শুদ্ধি অভিযান শুরু
বিস্তারিত