মানুষ একটি পায় না, তিনি করেন একসঙ্গে তিনটি সরকারি চাকরি!

মানুষ একটি পায় না, আর তিনি সবার চোখ ফাঁকি দিয়ে একসঙ্গে তিন তিনটি সরকারি চাকরি করেছেন। ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআইয়ের এক প্রতিবেদন থেকে এমন বিস্ময়কর তথ্য জানা গেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সুরেশ রাম নামের ওই ব্যক্তি একই সঙ্গে নির্মাণ দপ্তর, জলবণ্টন দপ্তর এবং বাঁধ মেরামতি দপ্তরে কাজ করতেন।

বিহারের কিশোরগঞ্জে নির্মাণ দপ্তরের সহকারী ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন। বাঁকা জেলার বেলহার ব্লকে করতেন জলবণ্টন দপ্তরের কাজ। তৃতীয় চাকরি সুপাউলে বাঁধ মেরামতির।

সুরেশ ১৯৮৮ সালে প্রথম পাটনায় সরকারি দপ্তর নির্মাণ বিভাগের জুনিয়র ইঞ্জিনিয়ারের কাজ করেন। সেখানে কাজ করতে করতেই তার হাতে আসে আরও একটি চিঠি। ১৯৮৯ সালে জলসম্পদ দপ্তরের চাকরিও পেয়ে যান তিনি। আর তার কিছুদিনের মধ্যেই বাঁধ মেরামতির কাজের জন্যও ডাক পেয়ে যান। এই দুটি চাকরির জন্য আগে পরীক্ষা দিয়ে রেখেছিলেন।

সুরেশ ধরা পড়েন গত জুলাই মাসে। দেশটির কম্প্রিহেনসিভ ফিন্যান্সিয়াল ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের কারণেই আটকে যান তিনি।

গত বছরে বিহার সরকার এই কম্প্রিহেনসিভ ফিন্যান্সিয়াল ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম বা CMFS প্রথা চালু করে। রাজ্যের একাধিক জায়গায় আর্থিক কারচুপি ধরতেই মূলত এই উদ্যোগ।

জুলাইয়ের শুরুতে কিশোরগঞ্জ নির্মাণ দপ্তরের ডেপুটি সেক্রেটারি সুরেশ রামকে তার চাকরির সব কাগজ জমা দিতে বলেন। তাতেই সামনে আসে কারচুপি। মামলা হওয়ার পর তিনি পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।


কেনিয়ায় স্কুল ভবনধসে নিহত ৭
কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবিতে একটি স্কুলের ভবনধসে অন্তত সাত জনের মৃত্যু
বিস্তারিত
আমি কি আমন্ত্রণ পাব, মোদিকে
ভারতে যাওয়ার আমন্ত্রণ পাবেন কি না সে বিষয়ে দেশটির প্রধানমন্ত্রী
বিস্তারিত
টানা ৫ ঘণ্টা শারীরিক সম্পর্কের
প্রেমিকের সঙ্গে নিয়মিত অন্তরঙ্গভাবে মিলিত হতেন তিনি। তবে এদিন চেয়েছিলেন
বিস্তারিত
হামলার প্রতিশোধ নেবে সৌদি
দুটি তেল ক্ষেত্রে হামলার প্রতিশোধ হিসেবে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে
বিস্তারিত
জাকির নায়েকের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত
বর্তমানে মালেয়েশিয়ায় অবস্থান করছেন ধর্ম প্রচারক জাকির নায়েক। কেননা অনেক
বিস্তারিত
দিল্লিতে বৈঠকে বসবেন মমতা-মোদি! সরগরম
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে আজ বিকেলে বৈঠক করবেন পশ্চিমবঙ্গের
বিস্তারিত