৩৪ টিভি চ্যানেলের জন্য বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উদ্বোধন ১ অক্টোবর

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে দেশের ৩৪ টিভি চ্যানেলের পূর্ণাঙ্গ সম্প্রচার শুরু হবে আগামী ১ অক্টোবর।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল মালিকদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্স (অ্যাটকো) এর সঙ্গে বৈঠকের পর এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

বিসিএসসিএল এর চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ আজ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ১ অক্টোবর দেশের ৩৪ টি টিভি চ্যানেলের সবকটিতে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ (বিএস-১) এর সেবা অনুষ্ঠানিকভাবে চালু করবেন।

তিনি বলেন, সম্প্রতি স্থানীয় চ্যানেলগুলো বিএস-১ এর মাধ্যমে তাদের সম্প্রচার কার্যক্রম সফল ভাবে পরিচালনা করতে সক্ষম হয়েছে। আরো ১৫ টি টিভি চ্যানেল শিগগির তাদের সঙ্গে যোগ দিবে।

ড. মাহমুদ বলেন, আমরা ইতোমধ্যেই বিএস-১ এর ৪০ শতাংশ সক্ষমতা বিক্রি করে দিয়েছি। আগামী দিনগুলোতে বাকি সক্ষমতা বিক্রি হয়ে যাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

বেসরকারি টিভি চ্যানেল মালিক এসোসিয়েশনের একটি প্রতিনিধি দল গত ২৮ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তাঁর কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেন। তারা বলেন, আগামী ১ অক্টোবর বিএস-১ এর মাধ্যমে তারা সকল বেসরকারি টিভি চ্যানেলের সম্প্রচার কার্যক্রম সম্পন্ন করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আন্তরিক ভাবে কাজ করছেন।

পাশাপাশি, বিসিএসসিএল টিভি চ্যানেল মালিকদের খরচ কমিয়ে আনতে আর্থস্টেশনের পরিবর্তে গ্রাউন্ড স্টেশনের সঙ্গে ফাইবার অপটিক ক্যাবলের মাধ্যমে সকল টিভি চ্যানেল সংযুক্ত করেছে।

ফরাসি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান থ্যালেস অ্যালেনিয়া স্পেস গত বছরের নভেম্বরে বিএস-১ এর নিয়ন্ত্রন কর্তৃত্ব বিসিএসসিএল-এর কাছে হস্তান্তর করে। ২০১৮ সালের ১২ মে ফ্লোরিডা থেকে এটি মহাকাশে উৎক্ষেপণ করা হয়।

দক্ষিণ এশীয় ফুটবল ফেডারেশন (সাফ) চ্যাম্পিয়ন ২০১৮ সম্প্রচারের মাধ্যমে প্রথম বিএস-১ এর সফল সম্প্রচার করা হয়।

বিসিএসসিএল প্রতিবেশী চারটি দেশসহ ৬টি দেশে বিএস-১ এর সংযোগ বাজারজাত ও বিক্রয় করার জন্য আন্তর্জাতিক কনসালটেন্সি ফার্ম থাইকমকে ভাড়া করেছে। এই থাই ফার্মটি বর্তমানে বিশটি দেশে কাজ করছে। ২ হাজার ৭৬৫ কোটি টাকা ব্যায়ে বিএস-১ উৎক্ষেপণ করা হয় এবং পরিকল্পনা অনুযায়ী বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরুর ৭ বছরের মধ্যে এটি ব্রেক ইভেন্ট পয়েন্টে পৌঁছুবে।

জিওস্টেশনারি স্লটের ১১৯.১ পূর্বে অবস্থিত বিএস-১ সার্ক দেশ সমূহ এবং ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, মিয়ানমার, তাজিকিস্তান, কিরগিজস্তান, উজবেকিস্তান এবং কাজাকস্তানের কিছু অংশ কাভার করবে। ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, ভারত, শ্রীলংকা, নেপাল, এবং ভুটান পুরোপুরি কাভার করবে। ফলে ব্যবসার জন্য এই ছয়টি দেশ বেছে নেয়া হয়েছে।


আলোচনা করেই গ্রামীণ ফোন-রবির পাওনা
আলোচনার মাধ্যমেই গ্রামীণ ফোন ও রবির কাছ থেকে পাওনা আদায়
বিস্তারিত
প্রযুক্তি হবে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের
ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের বৈশ্বিক
বিস্তারিত
ডেটা জার্নালিজম বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা
ইন্টারনেট সোসাইটি (আইসক) বাংলাদেশ চ্যাপ্টারের আয়োজনে ১৩ সেপ্টেম্বর ঢাকায় একটি
বিস্তারিত
প্রযুক্তির কর্মক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ বৃদ্ধিতে
তথ্যপ্রযুক্তিতে নারীর আগ্রহ তৈরি ও দক্ষতা বৃদ্ধির মাধ্যমে প্রযুক্তির কর্মক্ষেত্রে
বিস্তারিত
টুইটারে অপপ্রচারের শিকার শাওমি
চীনের ফোন নির্মাতা কোম্পানির অভিযোগ ৯০০টি টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে রেডমি
বিস্তারিত
‘পরিচয়’ এর সঙ্গে ইস্টার্ণ ব্যাংকের
দেশের প্রথম প্রতিষ্ঠান হিসেবে বেসরকারী খাতের ইস্টার্ণ ব্যাংক লিমিটেড (ইবিএল)
বিস্তারিত