রক্তের সন্ধান দেবে লাইভ ব্লাড ব্যাংক

বক্তব্য রাখছেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক

সারা দেশে দ্রুততম সময় ও জরুরি প্রয়োজনে রক্তের সন্ধান দিতে যাত্রা শুরু করেছে ‘লাইভ ব্লাড ব্যাংক’ অ্যাপ। ৪ সেপ্টেম্বর ঢাকার আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল মিলনায়তনে এ অ্যাপের উদ্বোধন করেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। প্রতিমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগে আইসিটি বিভাগের সার্বিক সহযোগিতায় এ অ্যাপ তৈরি হয়েছে। এটি পরিচালনা করবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ও ডাকসু।
তথ্যপ্রযুক্তি সচিব এনএম জিয়াউল আলমের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পলক বলেন, বাংলাদেশের মাটিতে একজন মানুষও যেন রক্তের অভাবে মৃত্যুবরণ না করে সে প্রত্যয় বাস্তবায়নে ছাত্রলীগ এগিয়ে আসবে, রক্ত দিয়ে মানুষকে বাঁচাবে। ডিজিটাল যুদ্ধে দেশবিরোধী চক্র ও চক্রান্তকে পরাজিত করে ডিজিটাল বাংলাদেশে গড়ে তোলা হবে। অ্যাপটি এখন অ্যান্ড্রয়েডে ডাউনলোড করা যাবে। কয়েক মাসের মধ্যে আইওএসে চলে আসবে। এছাড়া ফেইসবুক-টুইটারে ইন্টারফেস করে দেওয়া হবে, সেখান থেকেও সরাসরি নিবন্ধন করা যাবে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন বুয়েট ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সাম্পাদক ও সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশনের (সিআরআই) সমন্বয়ক তন্ময় আহমেদ, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) জিএস গোলাম রাব্বানী, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থ প্রতিম দেব। সঞ্চালনা করেন ছাত্রলীগের উপ-তথ্যপ্রযুক্তি সম্পাদক ও স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপের সমন্বয়ক আশিকুর রহমান রুপক।
যেভাবে কাজ করবে এ অ্যাপ : লাইভ ব্লাড ব্যাংক হলো রক্তদাতা ও গ্রহীতার জন্য একটি দ্রুত, সহজ ও নিরাপদ প্ল্যাটফর্ম। এ অ্যাপ ব্যবহার করে যে কোনো সময় জরুরি রক্তের জন্য অনুরোধ করা যাবে। রক্তের অনুরোধটি ব্লাড গ্রুপ অনুযায়ী সঙ্গে সঙ্গে কাছের রক্ত দিতে ইচ্ছুক ব্যক্তির কাছে পাঠানো হবে। যিনি বা যারা অনুরোধটি গ্রহণ করবেন তার ছবি, নাম ও মোবাইল নম্বর অনুরোধকারীর অ্যাপে চলে আসবে। এভাবেই সহজে প্রকৃত রক্তদাতা খুঁজে পাবেন এ অ্যাপ ব্যবহারকারীরা। এছাড়াও এতে রয়েছে ব্লাড ডোনার ম্যাপ, কাছাকাছি ব্লাড ব্যাংকসহ বিভিন্ন ফিচার ও নিউজ ফিড, যেখানে এ সংক্রান্ত কার্যক্রম দেখা যাবে। এরই মধ্যে প্লেস্টোরে অ্যাপটির বেটা ভার্সন ৫ হাজারের বেশি ডাউনলোড হয়েছে। রক্তদাতা হিসেবে নিবন্ধন হয়েছেন প্রায় ৪ হাজার। প্রায় তেরশ বার অ্যাপটিতে রক্ত চাওয়া হয়েছে। আর এ অ্যাপ যোগাযোগ রক্তদান হয়েছে ৫০০-এর বেশি।


ডিজিটাল ডিভাইস অ্যান্ড ইনোভেশন এক্সপো
রাজধানী ঢাকায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘ডিজিটাল ডিভাইস এবং ইনোভেশন এক্সপো-২০১৯’।
বিস্তারিত
অনলাইন ফিন্যান্স অলিম্পিয়াডে পুরস্কার পেলেন
অনলাইন ফিন্যান্স অলিম্পিয়াডে পুরস্কার পেয়েছেন ৬ শিক্ষার্থী। শুক্রবার কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন
বিস্তারিত
বিশ্বের সবচেয়ে পাতলা লেন্স তৈরি বাংলাদেশি
স্মার্টফোনের জন্য চুলের চেয়ে হাজার গুণ পাতলা ক্যামেরা লেন্স তৈরি
বিস্তারিত
১৬তম আইজেএসওর জন্য বাংলাদেশ দল
বিজ্ঞান শিক্ষায় শিক্ষার্থীদের আগ্রহী এবং বিজ্ঞানমনষ্ক করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে
বিস্তারিত
জাকারবার্গের পোস্টে বাংলাদেশের বিজ্ঞানীদের সাফল্যের
বাংলাদেশের বিজ্ঞানীদের এক আবিষ্কারের খবর জানিয়েছেন ফেইসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা
বিস্তারিত
গুগলের ২১তম জন্মদিন
বিশ্বের বৃহত্তম ইন্টারনেট প্রতিষ্ঠান গুগলের জন্ম হয়েছিল ২১ বছর আগে
বিস্তারিত