দ্যূতক্রীড়া

সাইয়্যিদ মঞ্জু 
দ্যূতক্রীড়া

অতল গহ্বরে হাবুডুবু-প্রমত্ত উল্লাস
ভূলুন্ঠিত মানবতা সভ্যতার দ্যূতক্রীড়ায়
এ ঘুমঘোর ইন্দ্রিয় যেনো বোধহীনÑ
নিঃশব্দে ছেয়ে থাকে প্রত্যাশার মতো চোখ।

সময়ের আয়নায় নগ্ন-উন্মাদনা
পশুচোখ লজ্জাবোধে চেহারা লুকায়।

জাগবে কি! বিবেকÑ
অসভ্যতার তিমির আস্ফালন মুছে
আলোক প্রভার দিশারি কোনো এক দিন।


শরীর
সন্ধ্যা নামে। রাত বাড়ে। তার চিরচেনা গাঁয়ের মতো ঝিঁ ঝিঁ
বিস্তারিত
পাতার প্রাসাদ
ঘোরলাগা শীতকাল দাঁড়িয়ে সমুখে নীরবে পাতারা ঝরে, সুখে নাকি দুঃখে?  ঝরে
বিস্তারিত
হারমনি অব ওশ্যান
লবণের জল ঠিক জানে কতটা দোলনায় ফেরা যাবে পাড়ে কোন খামে
বিস্তারিত
সোনালি সকাল
চেয়েছিলাম অভিমানে শীতের সকালের রোদ্দুরে অভিমানী চিঠি হয়ে খেজুর পাতার পাটিতে
বিস্তারিত
হাবিল-কাবিল
মনোদেশ ছুঁয়ে গেল ঘোর কোনো নেশা নিষিদ্ধ ফুলের পরাগে অনুচিত স্বপ্নরা
বিস্তারিত
যাওয়া হয় না ঈপ্সিত গন্তব্যে
কুয়াশাচ্ছন্ন ভোরকে নিত্য পেছনে ঠেলে অতীতের গ্লানিময় অথৈ স্মৃতিকে  বারবার ভুলে
বিস্তারিত