আলজেরিয়ার ইতিহাসে প্রথম নির্বাচন কমিশন

 

কয়েক মাস ধরে আলজেরিয়ার রাজনৈতিক পরিস্থিতি আশঙ্কাজনক মনে হলেও সম্প্রতি নির্বাচন কর্তৃপক্ষের আহ্বানে দেশটির রাজনৈতিক পরিস্থিতি এখন অনেকটাই অনুকূলে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। নতুন নির্বাচন চেয়ে দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা বিক্ষোভ ও আন্দোলন শেষে গত শনিবার দেশটির অন্তর্র্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট আবদুল কাদির ইবনে সালাহ আগামী ডিসেম্বরে নতুন নির্বাচনের সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করেছেন। তীব্র আন্দোলনের মুখে সাবেক প্রেসিডেন্ট আবদেল আজিজ বুতেফলিকার পদত্যাগের পর এ পুনর্নির্বাচনই ছিল বিক্ষোভকারীদের প্রধানতম দাবি।
নির্বাচনকে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করার জন্য গঠন করা হয়েছে ‘সুপ্রিম ইলেক্টোরাল অথোরিটি’। এ ধরনের ঘটনা আলজেরিয়ার ইতিহাসে প্রথম। নবগঠিত এ অথোরিটির প্রধান হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন সাবেক বিচারপতি মুহাম্মদ শরীফ। ন্যাশনাল ডায়ালগ অথোরিটির প্রধান করিম ইউনুসের সঙ্গে অনুষ্ঠিত প্রথম বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। স্বৈরশাসকের পতন-পরবর্তী সময়ে দেশের এ নতুন শক্তিজোটে যুক্ত রয়েছেন সাংবাদিক আলি আর্ম, মানবাধিকারকর্মী হাফনাও গুল, ‘হাই কমিটি অব ডিগনিট্যারিজ অ্যান্ড ক্ল্যান্স অব ওয়াদি’ এর সদস্য মিজাব আমারা মুসা, ইসা বেলখদার, ‘দ্য অসোশিয়েশন অব ওম্যান ইন দ্য গ্রিন’ এর প্রেসিডেন্ট কারিমা তুতিসহ অনেকে। এছাড়া মুহাম্মাদ বিন মেহবুব, হাফিজা তাজরুনি, ফারসাও হানান, আবদুল্লাহ সানি কাদ্দরসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের আরও অনেক অধ্যাপক ও শিক্ষাবিদ সম্পৃক্ত রয়েছেন এ জোটে। ২০ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা স্বৈরশাসকের পতনের পর বুদ্ধিজীবীদের নিয়ে গঠিত এ শক্তিজোটের মাধ্যমেই দেশটিতে সুশাসন প্রতিষ্ঠিত হতে পারে বলে মনে করছেন অনেকে। বুদ্ধিজীবীদের এ সংঘবদ্ধতা নির্বাচনকে সুষ্ঠু করতে এবং নির্বাচন-পরবর্তী দেশের সার্বিক পরিস্থিতি সুন্দর রাখতে বিরাট ভূমিকা রাখবে বলে মনে করা হচ্ছে।  
আসন্ন এ নির্বাচনে ‘সুপ্রিম ইলেক্টোরাল অথোরিটি’তে কারা থাকবেন, সেটি প্রাথমিকভাবে ন্যাশনাল ডায়ালগের চেয়ারম্যান করিম ইউনুস কর্তৃক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তিনি জানান, এ অথোরিটিতে ২০ জন স্নাতক শিক্ষার্থী, বিচারক সমিতি, বার অ্যাসোসিয়েশন, দুজন নটারি, কিছু সংখ্যক উকিলসহ কিছু পেশাজীবী থাকতে পারেন। এরই মধ্যে করীম ইউনুস সিভিল সোসাইটির সঙ্গে যোগাযোগ করাসহ অথোরিটি তৈরির কাজ শুরু করে দিয়েছেন।
আলজেরিয়ান পার্লামেন্ট গত শুক্রবারই আলজেরিয়ার প্রথম সর্বোচ্চ নির্বাচন কর্তৃপক্ষের অনুমোদন করে। যেটা সম্পূর্ণভাবে নতুন আইনের আওতাভুক্ত হবে। ভোটার রেজিস্ট্রেশন থেকে শুরু করে প্রার্থী, নির্বাচনি প্রচারণা, ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া ও ফলাফল ঘোষণাসহ সবকিছু এ আইনের আওতায় থাকবে। নির্বাচনের সুষ্ঠুতা রক্ষার্থে প্রস্তুত করা এ আইন অনুসারে নির্বাচনি প্রক্রিয়ায় সরকার, মন্ত্রী, মিউনিসিপ্যালিটির প্রধান এবং বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণ সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ। 
শনিবার আলজেরিয়ার অন্তর্র্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট আবদেল কাদির বিন সালেহ স্বাধীন, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ‘সুপ্রিম ইলেক্টোরাল অথোরিটি’ এর জন্য গঠিত এ আইন সম্পর্কে স্পষ্ট ঘোষণা দেন এবং নির্বাচনের জন্য এ আইন সামনে আনেন। তিনি দৃঢ়ভাবে জানিয়ে দেন, ‘যেহেতু সংবিধান কর্তৃক বর্ণিত যাবতীয় বিষয় ও শর্তাবলি পাঠ করেই এটিতে সবাই স্বাক্ষর করেছে; তাই নির্বাচন বিঘিœত হয়Ñ এমন কোনো আচরণ গ্রহণযোগ্য হবে না।’

সূত্র : নিউ অ্যারাব আরবি 


মানসিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে ইসলাম
গত ১০ অক্টোবর বিশ্বজুড়ে পালিত হয়ে গেল বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য
বিস্তারিত
জুলুমবাজ ও হত্যাকারীর পরিণতি
বর্তমানে চারদিকে একটি দৃশ্য ফুটে উঠছে। দুর্বলের ওপর সবলের অত্যাচার।
বিস্তারিত
কোরআনের আলোকে পরস্পরের প্রতি শিষ্টাচার
আমরা মানুষ, পৃথিবীতে আমাদের বসবাস। প্রয়োজনের তাগিদে মানুষের সঙ্গে মেলামেশা,
বিস্তারিত
পোশাকের শালীনতা
পোশাক-পরিচ্ছদ মানুষের লজ্জা নিবারণ করে। পোশাকে মানুষের রুচি, ব্যক্তিত্ব, ঐতিহ্য,
বিস্তারিত
কে এই নোবেল বিজয়ী আবি
তিনি নিজেও ওরোমো মুসলিম ছিলেন। তার বাবা ছিলেন মুসলিম আর
বিস্তারিত
মুসলিম নোবেল বিজয়ীরা
  ১৯০১ সাল থেকে নোবেল পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে। তবে প্রথম মুসলমান
বিস্তারিত