রিফাত হত্যা মামলা

পলাতক ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

বরগুনার বহুল আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছেন আদালত। অভিযোগপত্র গ্রহণ করে এ মামলার পলাতক নয় আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন বিচারক।

বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুর ২টার দিকে শুনানি শেষে বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী এ অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন।

এ বিষয়ে বাদীপক্ষের আইনজীবী মজিবুল হক কিসলু বলেন, শুনানি শেষে রিফাত হত্যা মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন আদালত। একই সঙ্গে মামলার পলাতক নয় আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়। মামলার চার্জ গঠনের জন্য আগামী ৩ অক্টোবর দিন ধার্য করেছেন আদালত। ওই দিন সব আসামিকে আদালতে হাজিরের নির্দেশ দেয়া হয়।

কিসলু আরো বলেন, রিফাত হত্যা মামলার শুনানির আগে মো. সাগর, আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বি আকন, মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, রেজোয়ান আলী খান ওরফে টিকটক হৃদয়, মো. হাসান, রাফিউল ইসলাম রাব্বির জামিনের আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়।

আদালত সূত্র থেকে জানা গেছে, ১ সেপ্টেম্বর আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় স্ত্রী মিন্নিসহ ২৪ জনকে অভিযুক্ত করে অভিযোগপত্র দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বরগুনা সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির।

এর আগে বুধবার সকালে অভিযোগপত্রের শুনানি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও মামলার মূল নথি বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে থাকায় শুনানি শুরু হতে বিলম্ব হয়। এ অবস্থায় বেলা ১১টার দিকে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. সিরাজুল ইসলাম গাজী অভিযোগপত্র শুনানির জন্য দুপুর ২টায় সময় নির্ধারণ করেন।

এদিন মামলার শুনানির জন্য বরগুনা জেলা কারাগারে থাকা রিফাত হত্যাকাণ্ড মামলার সাত আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়। তারা হলেন- মো. রাকিবুল হাসান ওরফে রিফাত ফরাজী, আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বি আকন, মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, রেজোয়ান আলী খান ওরফে টিকটক হৃদয়, মো. হাসান, রাফিউল ইসলাম রাব্বি ও মো. সাগর। এ মামলায় জামিনে থাকা আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি ও আরিয়ান হোসেন শ্রাবণ আদালতে উপস্থিত হন তাদের অভিভাবকদের সঙ্গে। বাবার মোটরসাইকেলে চড়ে আদালতে যান মিন্নি। শুনানি শুরু হওয়ার আগেই আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়ান এ মামলায় গ্রেফতার আসামিরা।

এ দিকে, আসামিপক্ষের আইনজীবী মাহবুবুল বারী আসলাম বলেন, রিফাত হত্যা মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছেন আদালত। এদের মধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধি ৩০২, ৩৪, ১৩৯, ১২০ (বি-১) ধারায় অভিযোগ গ্রহণ করা হয়। পাশাপাশি শিশু-কিশোর অভিযুক্তদের অভিযোগ আমলে নিয়ে সেই আদেশ শিশু আদালতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, রিফাত হত্যা মামলায় অভিযুক্ত ২৪ জনের মধ্যে ১৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ মামলার প্রাপ্তবয়স্ক অভিযুক্ত মো. মুছা, মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, মো. হাসান, কিশোর অভিযুক্ত মো. আবদুল্লাহ ওরফে রায়হান, মো. সাইয়েদ মারুফ বিল্লাহ ওরফে মহিবুল্লাহ, মারুফ মল্লিক, প্রিন্স মোল্লা পলাতক। মামলার এজাহারে প্রধান অভিযুক্ত নয়ন বন্ড বন্দুকযুদ্ধে নিহত হওয়ায় তাকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।


সাভার ও আশুলিয়া থেকে কোটি
ঢাকার সাভার ও আশুলিয়া থেকে কুরিয়ার সার্ভিসে খাদ্য সামগ্রীর আড়ালে
বিস্তারিত
কোস্ট গার্ডের অভিযানে মাদকদ্রব্যসহ দুই
বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের অভিযানে মাদকদ্রব্যসহ দুই মাদক পাচারকারীকে আটক করা
বিস্তারিত
সাঁথিয়ায় হারুন চেয়ারম্যান গ্রুপের তাণ্ডব,
পাবনার সাঁথিয়ায় উপজেলার নাগডেমড়া ইউপি চেয়ারম্যান হারুন গ্রুপের তান্ডবে প্রতিপক্ষের
বিস্তারিত
সখীপুরে ঘুড়ি উড়াতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে
সখীপুরে ঘুড়ি উড়াতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আব্দুল আজিজ (২৫) নামের
বিস্তারিত
করোনায় দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের বাড়ি খাদ্য
করোনায় আক্রান্ত বিশ্বের এ কঠিন সময়ে ছিন্নমূল মানুষের পাশে দাঁড়ানোর
বিস্তারিত
শেওলা দিয়ে ফিরলেন ২০ বাংলাদেশী,
করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে চলমান লকডাউনে ভারতের বিভিন্ন এলাকায় আটকে পড়া ২০
বিস্তারিত