কে এই ছাত্রদলের নতুন সভাপতি খোকন?

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ৬ষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলের ভোট গণনা শেষে ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। এ মাধ্যমে নির্বাচনে ছাত্রদলের সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন ফজলুর রহমান খোকন। সাধারণ সম্পাদক পদে জয় লাভ করেছেন ইকবাল হোসেন শ্যামল।

বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ভোররাত ৫টার দিকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস নির্বাচিতদের নাম ঘোষণা করেন।

মোট  ৫৬৬ জন কাউন্সিলরের মধ্যে ৫৩৩ জন উপস্থিত ছিলেন তাদের মধ্যে ৪৮১ জনের প্রদত্ত ভোটের ভিত্তিতে সংগঠনটির সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন মো. ফজলুর রহমান খোকন, এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন মো. ইকবাল হোসেন শ্যামল। সভাপতি পদে খোকন পেয়েছেন ১৮৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণ পেয়েছেন ১৭৮ ভোট।

নবনির্বাচিত সভাপতি খোকন বলেন, দেশে ভোটাধিকার নেই। যখনই গণতন্ত্রকে হরণ করা হয়েছে তখনই খালেদা জিয়া গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে এনেছিলেন এবং মানুষের ভোটাধিকার দিয়েছিলেন। আমাদের প্রথম চ্যালেঞ্জ খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে মুক্ত করা। তার মুক্তির মধ্য দিয়েই আমরা বাংলাদেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত করব। এছাড়া ছাত্র সমাজের অধিকার আদায়ে কাজ করব।

অপরদিকে, সাধারণ সম্পাদক পদে শ্যামল পেয়েছেন  ১৩৯ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দবী জাকির হোসেন পেয়েছেন ৭৮ ভোট।

ছাত্রদলের নতুন এই সাধারণ সম্পাদক বলেন, গণতন্ত্র মানেই খালেদা জিয়া। খালেদা জিয়া আমাদের মা। তার মুক্তির মাধ্যমেই গণতন্ত্রকে মুক্ত করব। ডাকসু নিবার্চনে শিক্ষার্থীরা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেনি। আমরা ছাত্র সমাজের অধিকার আদায়ের আন্দোলনে কাজ করব।

কে এই খোকন ও শ্যামল:

সভাপতি খোকনের বাড়ি বগুড়া জেলায়। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগে ২০১০ সালে মাস্টার্স শেষ করেছেন। আর সাধারণ সম্পাদক শ্যামলের বাড়ি নরসিংদীতে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লাইব্রেরি সায়েন্সের শিক্ষার্থী ছিলেন।

এর আগে, ছাত্রদলের সর্বশেষ কমিটি হয়েছিল ২০১৪ সালের ১৪ অক্টোবর। ওই কমিটিতে সভাপতি হন রাজীব আহসান ও সাধারণ সম্পাদক হন আকরামুল হাসান।

ছাত্রদলের ফলাফলের বিষয়ে মির্জা আব্বাস বলেন, বিএনপির পক্ষ থেকে আমি তাদেরকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। এদেরকে সাথে নিয়ে আগামীতে আমরা স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে এগিয়ে যাব।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক ডাকসুর সাবেক জিএস বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি (১৯৯৬-৯৮) বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী, ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম-আহ্বায়ক (২০০২) বিএনপির প্রশিক্ষণবিষয়ক সম্পাদক এ বি এম মোশাররফ হোসেন, ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক (২০০৫-২০০৯) স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক (২০০৯-১২) বিএনপির সহ-প্রচার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খান আলিম, ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি (২০১৪-২০১৯) বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য রাজিব আহসান।

এর আগে নয়াপল্টনে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় অফিসে বিদ্যুত না থাকায় ভোট গ্রহণের স্থান পরিবর্তন করা হয়। পরে বুধবার রাত পৌনে ৯টায় রাজধানীর শাহাজানপুরে মির্জা আব্বাসের বাসায় ছাত্রদলের ৬ষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলের ভোটগ্রহণ শুরু হয় যা চলে রাত ১২টা ২০ পর্যন্ত। ছাত্রদলের নেতৃত্ব দীর্ঘদিন পর ভোটের মাধ্যমে নির্ধারিত হলো। সর্বশেষ ১৯৯২ সালের ভোটে রুহুল কবির রিজভী সভাপতি ও এম ইলিয়াস আলী সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন।


‘প্যারোলের সঙ্গে দোষ স্বীকার করার
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের কথার তীব্র সমালোচনা
বিস্তারিত
বিদেশি প্রভুরাও সরকারের পতন ঠেকাতে
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন- সরকারের অনাচারে দেশে
বিস্তারিত
ছাত্রলীগের রাজনীতি বন্ধ করতে হবে
ছাত্র রাজনীতি নয় ছাত্রলীগের রাজনীতি বন্ধ করতে হবে বলে মন্তব্য
বিস্তারিত
আবরার হত্যায় সরকার বিব্রত: কাদের
আবরার হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে বুয়েট শিক্ষার্থীদের আন্দোলন না করে ক্লাসে ফিরে
বিস্তারিত
সম্রাটের মুক্তির দাবিতে আদালতের বাইরে
‘ক্যাসিনো কিং’, যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন
বিস্তারিত
উস্কানি দিয়ে পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করা
আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, ১৪ দলের মুখপাত্র ও খাদ্য মন্ত্রণালয়
বিস্তারিত