দীর্ঘজীবী ফরাসি যমজ

১০৪ বছর বয়সী পাউলেত্তে অলিভিয়ার এবং সিমন ফ্রান্সের সবচেয়ে দীর্ঘজীবী যমজ বোনের স্বীকৃতি পেয়েছেন।
১৯১২ সালের ৩০ জানুয়ারি লিমেরের এক গ্রামে দর্জি মায়ের গর্ভে তাদের জন্ম। পেশায় পাউলেত্তে ছিলেন একজন হেয়ার ড্রেসার। প্যারিস ছাড়াও হেয়ার ড্রেসার হিসেবে কাজ করেছেন আলজেরিয়ায়। ৩৬ বছর বয়সে স্বামী হারান তিনি। আর পেশায় দর্জি সিমন স্বামী হারান ৬৪ বছর বয়সে। তাদের একমাত্র ভাই ৯৯ বছর বয়সে দুর্ঘটনায় মারা যান। তবে বর্তমানে দুই বোনের অলস সময় কাটে। চাকরি বাকরি ছেড়ে দিয়েছেন। একই বাড়িতে সময় কাটে তাদের কারণ একে অন্যকে না দেখে থাকতে পারেন না তারা।
মজার বিষয় হলো, যে তারিখে তাদের ভূমিষ্ঠ হওয়ার কথা ছিল, তার আগেই জন্ম হয় সিমন ও পাউলেত্তের। জন্মের সময় সিমনের ওজন ছিল মাত্র এক কেজি।  তখন ডাক্তাররা তার বাঁচার আশা ছেড়েই দিয়েছিলেন। কিন্তু কপাল গুণে এখনও বেঁচে আছেন।
কিন্তু তাদের দীর্ঘজীবী হওয়ার রহস্য কী? এ ব্যাপারে তারা সাংবাদিকদের বলেন, ‘এখনও বেঁচে আছি কারণ আমরা একসঙ্গেই থাকি। দু’জনে আলাদা রুমে থাকলেও খুবই কাছাকাছি থাকি। সুযোগ পেলেই দুই বোন আড্ডায় মেতে উঠি।'

 

 


হাসি ও গম্ভীর মুখের পার্থক্য
আমরা কথায় কথায় কাউকে না কাউকে ছাগল বলে ফেলি। ছাগল
বিস্তারিত
স্কুলে শিক্ষক একজন, শিক্ষার্থীও এক!
ভারতের কলকাতার ঝাঁ চকচকে গুরুগ্রাম (গুরগাঁও) থেকে মাত্র ৬০ কিমি
বিস্তারিত
হাতে হেঁটে ১০ কিমি. পাড়ি!
প্রবল ইচ্ছাশক্তির কঠিন পরীক্ষা দিয়েছেন সোলায়মান মাগোমেদয়। রাশিয়ার দাগেনস্টানের ৫৩
বিস্তারিত
৬৬ বছর পর নখ কাটলেন
হাতের নখ কাটাতে ভারতের পুনে থেকে নিউ ইয়র্কে উড়ে গেলেন
বিস্তারিত
দুই মাথাওয়ালা বাছুর দুধ পান
দুই মাথাওয়ালা এই বাছুরের জন্ম হয়েছে ব্রাজিলের গোইয়া প্রদেশের কাইয়াপোনিয়া
বিস্তারিত
১৮৫ কেজি ওজনের উড়ন্ত মাছ!
গল্পের মতো মনে হলেও সত্যি। মাছও উড়তে পারে। এতদিন নাম
বিস্তারিত