দীর্ঘজীবী ফরাসি যমজ

১০৪ বছর বয়সী পাউলেত্তে অলিভিয়ার এবং সিমন ফ্রান্সের সবচেয়ে দীর্ঘজীবী যমজ বোনের স্বীকৃতি পেয়েছেন।
১৯১২ সালের ৩০ জানুয়ারি লিমেরের এক গ্রামে দর্জি মায়ের গর্ভে তাদের জন্ম। পেশায় পাউলেত্তে ছিলেন একজন হেয়ার ড্রেসার। প্যারিস ছাড়াও হেয়ার ড্রেসার হিসেবে কাজ করেছেন আলজেরিয়ায়। ৩৬ বছর বয়সে স্বামী হারান তিনি। আর পেশায় দর্জি সিমন স্বামী হারান ৬৪ বছর বয়সে। তাদের একমাত্র ভাই ৯৯ বছর বয়সে দুর্ঘটনায় মারা যান। তবে বর্তমানে দুই বোনের অলস সময় কাটে। চাকরি বাকরি ছেড়ে দিয়েছেন। একই বাড়িতে সময় কাটে তাদের কারণ একে অন্যকে না দেখে থাকতে পারেন না তারা।
মজার বিষয় হলো, যে তারিখে তাদের ভূমিষ্ঠ হওয়ার কথা ছিল, তার আগেই জন্ম হয় সিমন ও পাউলেত্তের। জন্মের সময় সিমনের ওজন ছিল মাত্র এক কেজি।  তখন ডাক্তাররা তার বাঁচার আশা ছেড়েই দিয়েছিলেন। কিন্তু কপাল গুণে এখনও বেঁচে আছেন।
কিন্তু তাদের দীর্ঘজীবী হওয়ার রহস্য কী? এ ব্যাপারে তারা সাংবাদিকদের বলেন, ‘এখনও বেঁচে আছি কারণ আমরা একসঙ্গেই থাকি। দু’জনে আলাদা রুমে থাকলেও খুবই কাছাকাছি থাকি। সুযোগ পেলেই দুই বোন আড্ডায় মেতে উঠি।'

 

 


এক ছোবলে ৮৬০ ভোল্ট কারেন্ট,
একদিকে ধ্বংসের আর্তনাদ, অন্যদিকে নতুন প্রজাতির খোঁজ। আমাজনের পরতে পরতে
বিস্তারিত
কুকুর-মুরগীরসহ এক মোটরসাইকেলে ৭ জন!
সাধারণত একটি মোটরসাইকেলে দুই থেকে তিনজন চড়তে পারেন। তবে একটি
বিস্তারিত
জন্মের পর ডেলিভারি রুমেই দাঁড়িয়ে
ইন্টারনেটের সৌজন্যে একটা অবিশ্বাস্য ও অদ্ভুত ঘটনার সাক্ষী হলো গোটা
বিস্তারিত
প্রেমে ব্যর্থ হয়ে কুকুরকে বিয়ে
ডেটিংয়ে ব্যর্থ হয়েছেন ২২১ বার! আবার বিয়েও ভেঙেছে চার বার।
বিস্তারিত
দুটি কলা ৪৪২ টাকায় বিক্রি,
মাত্র এক জোড়া কলার দাম ৪৪২টাকা! শুনলেই চক্ষু চড়ক গাছ।
বিস্তারিত
পেটের ভেতরে এত কিছু! হতভম্ব
পেটে অসহ্য ব্যথা। সন্দেহ হওয়ায় এক্স-রে করে দেখতে বলেন চিকিত্সক।
বিস্তারিত