দরুদ পাঠের ফজিলত

আমল

নবী (সা.) বলেন, ‘যে ব্যক্তি আমার ওপর একবার দরুদ পাঠ করবে, তার বিনিময়ে আল্লাহ তার ওপর দশবার দরুদ পাঠ করবেন।’ (মুসলিম : ৩৮৪)।
নবী (সা.) আরও বলেন, ‘তোমরা আমার কবরকে ঈদ তথা সম্মিলনস্থলে পরিণত করবে না, আর তোমরা আমার ওপর দরুদ পাঠ কর; কেননা তোমাদের দরুদ আমার কাছে পৌঁছে যায়, তোমরা যেখানেই থাক না কেন।’ (আবু দাউদ : ২০৪৪)।
নবী (সা.) আরও বলেন, ‘যার সামনে আমার নাম উল্লেখ করা হলো অতঃপর সে আমার ওপর দরুদ পড়ল না, সে-ই কৃপণ।’ (তিরমিজি : ৩৫৪৬)।
রাসুলুল্লাহ (সা.) আরও বলেন, ‘পৃথিবীতে আল্লাহর একদল ভ্রাম্যমাণ ফেরেশতা রয়েছে যারা উম্মতের পক্ষ থেকে প্রেরিত সালাম আমার কাছে পৌঁছে দেয়।’ (নাসাঈ : ১২৮২)। 
রাসুলুল্লাহ (সা.) আরও বলেন, ‘যখন কোনো ব্যক্তি আমাকে সালাম দেয়, তখন আল্লাহ আমার রুহ ফিরিয়ে দেন, যাতে আমি সালামের জবাব দিতে পারি।’ (আবু দাউদ : ২০৪১)। 


পবিত্র শবে মেরাজ ২২ মার্চ
বাংলাদেশের আকাশে সোমবার রজব মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। বুধবার থেকে
বিস্তারিত
পবিত্র শবে মেরাজ কবে, জানা
১৪৪১ হিজরি সনের পবিত্র শবে মেরাজের তারিখ নির্ধারণ এবং রজব
বিস্তারিত
মাতৃভাষার নেয়ামত ছড়িয়ে পড়ুক
ভাষা আল্লাহ তায়ালার বিরাট একটি দান। ভাষার রয়েছে প্রচ- শক্তি;
বিস্তারিত
ন তু ন প্র
বই : আল-কুরআনে শিল্পায়নের ধারণা লেখক : ইসমাঈল হোসাইন মুফিজী প্রচ্ছদ :
বিস্তারিত
উম্মতে মুহাম্মদির মর্যাদা
আল্লাহ তায়ালা যে বিষয়কে আমাদের জন্য পূর্ণতা দিয়েছেন, যে বিষয়টিকে
বিস্তারিত
যেভাবে সন্তানকে নামাজি বানাবেন
হাদিসে এরশাদ হয়েছে ‘তোমরা প্রত্যেকেই নিজ নিজ অধীনদের ব্যাপারে দায়িত্বশীল। আর
বিস্তারিত