২৪ ঘণ্টা ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব থাকবে সারা দেশে

রংপুর ছাড়া সারা দেশে আগামী ২৪ ঘণ্টা ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’-এর প্রভাব থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। আজ শনিবার দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আবহাওয়া অধিদপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুছ।

রুহুল কুদ্দুছ বলেন, ‘বিকেল ৪টা বা ৫টা থেকে ধরলে আগামী ২৪ ঘণ্টা পুরো বাংলাদেশে এর প্রভাব থাকবে। রংপুর বিভাগে প্রভাব একটু কম থাকলেও সারা দেশেই এর প্রভাব থাকতে পারে।’

তিনি বলেন, উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে একই এলাকায় অবস্থান করছে। এটি আরও উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে আজ সন্ধ্যা নাগাদ পশ্চিমবঙ্গ-খুলনা উপকূল অতিক্রম করতে পারে।

রুহুল কুদ্দুছ আরও বলেন, ‘অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এর অগ্রবর্তী অংশের প্রভাবে সমুদ্র বন্দরসমূহ, উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় আজ দুপুর থেকে ঝড়ো হাওয়া অব্যাহত থাকতে পারে। অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৭৪ কি.মি. এর মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ১৩০ কি.মি. যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ১৫০ কি.মি. পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের নিকটে সাগর খুবই বিক্ষুব্ধ রয়েছে। ‘

এ আবহাওয়াবিদ জানান, জোয়ার শুরু হবে বিকেল ৩টার দিকে। রাত ৯টা ৬ মিনিটে জোয়ারের বা জলোচ্ছ্বাসের সর্বোচ্চ উচ্চতা ২ দশমিক ৮৫ মিটার হতে পারে পশুর নদীতে। পশুর নদী ছাড়াও খুলনা ও বরিশালে যেসব নদীতে জোয়ার থাকবে সেখানে স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৫ থেকে ৭ ফুট উচ্চতায় জলোচ্ছ্বাস হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

বাংলাদেশে প্রবেশের পর ঘূর্ণিঝড়ের ব্যাসার্ধ কমপক্ষে ১০০ কিলোমিটার আর ব্যাস ২০০ কিলোমিটার থাকতে পারে বলেও জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’-এর কারণে মোংলা ও পায়রা বন্দরে দেওয়া হয়েছে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত। এ ছাড়া খুলনা ও বরিশালের ৯ জেলায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। ঘূর্ণিঝড়ের সঙ্গে ৭ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাস হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

উপকূলীয় জেলা ভোলা, বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরগুলো ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে।

এ ছাড়া চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত নামিয়ে তার পরিবর্তে ৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

তবে উপকূলীয় জেলা চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরগুলো ৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে।


করোনা রোধে জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত হতে
দেশে নভেল করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদেরকে এ কাজে
বিস্তারিত
বঙ্গবন্ধু স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত করল
বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে শান্তিরক্ষী
বিস্তারিত
স্বপ্নের পদ্মাসেতুর সাড়ে ৪ কিলোমিটার
৩০তম স্প্যান ‘৫-বি’ সেতুর ২৬ ও ২৭ নম্বর পিলারের উপর
বিস্তারিত
অর্ধেক যাত্রী নিয়ে উড়বে বিমান,
কোনো বিমান সংস্থা ভাড়া বৃদ্ধি করছে না। অভ্যন্তরীণ তিনটি রুটে
বিস্তারিত
চালু হচ্ছে দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশের
সম্প্রতি দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশের সব সাংবাদিক-কর্মকর্তা-কর্মচারীর স্বাস্থ্য সুরক্ষার স্বার্থে পত্রিকার
বিস্তারিত
করোনায় ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড মৃত্যু,
দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগে রেকর্ডসংখ্যক মৃত্যু
বিস্তারিত