একি কাণ্ড: পুরুষ সেজে কিশোরীকে একাধিকবার ‘ধর্ষণ’ নারীর!

ধর্ষণের শিকার এক কিশোরীর অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তবে গ্রেপ্তারের পর বিস্মিত হয়ে যায় পুলিশ। কারণ কিশোরীর ওপর শারীরিক নির্যাতন চালানো অভিযুক্ত ব্যক্তি কোনো যুবক নয় বরং পুরুষের ছদ্মবেশে থাকা এক নারী।

সম্প্রতি ভারতের অন্ধপ্রদেশের প্রকাশম জেলায় এ ঘটনা ঘটেছে। অভিযুক্ত ওই যুবতীর নাম সুমলতা। গত শুক্রবার তার বাড়িতে তল্লাশি চালায় পুলিশ। এ সময় বেশ কয়েকটি ‘সেক্স টয়’ উদ্ধার করা হয়। 

ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৭ বছরের এক কিশোরী পুলিশের কাছে অভিযোগ জানায়, তাকে ধর্ষণ করেছে ৩২ বছরের এক যুবক। ওই যুবকের বিরুদ্ধে তাকে একাধিকবার শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগও জানানো হয়। কিশোরীর অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পুলিশের ডেপুটি কমিশনার বি রবি চন্দ্র জানান, অভিযুক্ত নারী পুরুষের মতো পোশাক ও চুল ছোট করেছিল। পুরুষের ছদ্মবেশে থাকা সুমলতা সেক্স টয়ের সাহায্যে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, সুমলতা পুরুষের কণ্ঠস্বরে কথা বলায় পটু। তাই সহজেই পুরুষের ছদ্মবেশে মেয়েদের সঙ্গে আলাপ করতেন তিনি।

তদন্তে জানা গেছে, স্থানীয় এক সিম কার্ড বিক্রেতার কাছ থেকে ওই কিশোরীর মোবাইল নম্বর জোগাড় করে সুমলতা। এ ঘটনার পর ভামসি কৃষ্ণ নামে ওই সিম কার্ড বিক্রেতাকেও গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পেরেছে অভিযুক্ত নারী বিবাহিত। স্ত্রীর অপকর্মের কথা জানতে পেরে আত্মঘাতী হয়েছেন অভিযুক্ত নারীর তৃতীয় স্বামী। আপাতত পুলিশের হেফাজতেই রয়েছে ছদ্মবেশী সুমলতা।


ভারতের লোকসভায় ‘মুসলিমবিরোধী’ নাগরিকত্ব বিল
বিরোধী দলগুলোর প্রবল আপত্তি এবং উত্তর-পূর্বে ব্যাপক বিক্ষোভকে উপেক্ষা করেই
বিস্তারিত
লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পেশ,
লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পেশ করেছে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।
বিস্তারিত
এবার ভারতেও পেঁয়াজের ডাবল সেঞ্চুরি
বাংলাদেশের পর এবার ভারতেও পেঁয়াজের দামে ডাবল সেঞ্চুরি হলো। তামিলনাড়ু
বিস্তারিত
দিল্লিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, নিহত বেড়ে
দিল্লির রানি ঝাঁসি রোডের একটি চামড়ার কারখানায় ভয়াবহ আগুনে অন্তত
বিস্তারিত
দিল্লিতে কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে নিহত
ভারতের দিলিতে একটি কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে এখন
বিস্তারিত
ধর্ষণের রাজধানী ভারত: রাহুল গান্ধী
ভারতে নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতা বৃদ্ধি পাওয়ায় ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে
বিস্তারিত