ফুটপাতে ক্রয়-বিক্রয় প্রসঙ্গে

 

প্রশ্ন : আমি ফুটপাতের দোকান থেকে বিভিন্ন জিনিস ক্রয় করি। অনেক সময় দোকানির সঙ্গে দরকষাকষি হয়। আমি একটি দাম বলি। সে আমার কাক্সিক্ষত দামে না দেওয়ায় সেখান থেকে আমি চলে আসি। কিন্তু দূরে আসার পর ওই দামেই পণ্যটি কেনার জন্য দোকানি আমাকে ডাকতে থাকে। আমার প্রশ্ন হলো, এরূপ ক্ষেত্রে শরিয়তের দৃষ্টিতে ওই পণ্যটি কেনা কি আমার জন্য জরুরি? মুহাম্মদ আবু বকর, আমতলী, ফেনী

উত্তর : ক্রয়-বিক্রয়ের ক্ষেত্রে এক পক্ষ পণ্যের মূল্য প্রস্তাব করার পর অপর পক্ষ তাতে রাজি না হলে ওই প্রস্তাব বাতিল হয়ে যায়। তদ্রƒপ এক পক্ষ মূল্য প্রস্তাবের পর অপর পক্ষ রাজি হওয়ার আগে দুজনের কেউ ওই জায়গা থেকে চলে গেলেও ওই প্রস্তাব বাতিল হয়ে যায়।
প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে যেহেতু আপনি মূল্য প্রস্তাব করার পর দোকানি অস্বীকৃতি জানিয়েছে এবং আপনিও সেখান থেকে চলে এসেছেন; তাই আপনার আগের প্রস্তাব বাতিল হয়ে গেছে। অতএব এক্ষেত্রে আপনার প্রস্তাবিত মূল্যে দিতে চাইলেও আপনার না নেওয়ার সুযোগ আছে। তাই না নেওয়ায় আপনার কোনো ত্রুটি হয়নি। বরং এক্ষেত্রে বিক্রেতা ওই মূল্যে দিতে চাইলে তা নতুন প্রস্তাব হিসেবে ধর্তব্য হবে। সুতরাং পণ্যটি ক্রয় করা বা না করা উভয় এখতিয়ার আপনার থাকবে। (বাদায়েউস সানায়ে : ৪/৩২৪; ফাতহুল কাদির : ৫/৪৬০-৪৬১, ৪৬৩; আলবাহরুর রায়েক : ৫/২৭২)।


ঊর্ধ্বলোকের সূর্যের সন্ধানী হও
  এক লোকের বউটা ছিল দুষ্টু প্রকৃতির, লোভী ও পেটুক। তবুও
বিস্তারিত
পাথেয়
প্রত্যেকের সঙ্গে ফেরেশতা ও  শয়তান থাকে যুবাইর বিন সাঈদ থেকে বর্ণিত,
বিস্তারিত
কয়েকটি অবহেলিত সুন্নত
  রাসুল (সা.) এর সুন্নত থেকে মানুষ যতই বিস্মৃত হয়ে পড়ছে;
বিস্তারিত
কোরআনের পুরোনো কপি
  প্রশ্ন : আমাদের মসজিদে কোরআনের পুরোনো অনেক কপি আছে। যেগুলো
বিস্তারিত
হিংসা-বিদ্বেষ সমাজের জন্য অমঙ্গলজনক
হিংসা-বিদ্বেষ সমাজের জন্য অমঙ্গলজনক মাহফুজ আল মাদানী হিংসা বা ঈর্ষার দুটি দিক
বিস্তারিত
আল্লাহর রহমত থেকে নিরাশ হয়ো
  মানবহৃদয়ের সবচেয়ে জঘন্য রোগ হতাশা, যা অনুভূতিকে মেরে ফেলে। নিরাশা,
বিস্তারিত