পেটে গজ-ব্যান্ডেজ রেখে সেলাই, প্রসূতির মৃত্যু

অপারেশনের পর প্রসূতির পেটের ভেতর গজ-ব্যান্ডেজ রেখেই সেলাই করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে রংপুরের রোজ নামে বেসরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক ও নার্সদের বিরুদ্ধে।

ওই নারী তীব্র যন্ত্রণায় অসুস্থ হয়ে পড়লে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে অপারেশন করে বের করা হয় ওই সব গজ-ব্যান্ডেজ। অবশেষে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার রাতে মারা যান প্রসূতি মা নাসিমা বেগম (২৬)।

রোগীর স্বজন ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, চলতি মাসের ৫ নভেম্বর রংপুর নগরীর মীরগঞ্জ তামফাট এলাকার রাশেদুল ইসলামের স্ত্রী নাসিমা বেগম নগরীর ধাপ এলাকায় অবস্থিত রোজ প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি হন। ওই দিনই তার সিজারিয়ান অপারেশন করা হয়। তিনি একটি ছেলে সন্তান প্রসব করেন।

অপারেশনের পর নাসিমার পেটের ভেতরে গজ ও ব্যান্ডেজ রেখেই সেলাই করে দেয়া হয়। হাসপাতাল থেকে রিলিজ দেয়ার পর তার পেট ফুলে যায় এবং তিনি তীব্র যন্ত্রণায় ছটফট শুরু করেন। পরে ১২ নভেম্বর রোজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সেখানে ভর্তি না করে ব্যবস্থাপত্র দিয়ে ছেড়ে দেয়।

বাসায় চলে আসার পর নাসিমা আরও বেশি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ১৫ নভেম্বর রমেকে ভর্তি করা হয়। সেখানে আলট্রাসনোগ্রাম করার পর পেটের ভেতরে গজ-ব্যান্ডেজ ধরা পড়ে। রোববার দুপুরে তার পেটে অপারেশন করে গজ-ব্যান্ডেজ বের করেন চিকিৎসকরা। চিকিৎসাধীন অবস্থায়ই রোববার রাতে ১০টার দিকে মারা যান নাসিমা বেগম।

এ ব্যাপারে রমেক সার্জিক্যাল ওয়ার্ডের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. স্বপন রায়  জানান, অপারেশন করে ওই নারীর পেট থেকে গজ-ব্যান্ডেজসহ আরও কিছু জিনিস পাওয়া যায়। রোগীর অবস্থা এমনিতেই গুরুতর ছিল। তার পেট ফুলে গিয়েছিল। ভেতরে রক্তক্ষরণ হওয়ায় রোগীকে আর বাঁচানো সম্ভব হয়নি।

নাসিমা বেগমের স্বজনরা জানান, মৃত্যুর খবর পাওয়ার পর রোজ প্রাইভেট হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে তাদের ম্যানেজ করার চেষ্টা করে। তবে ব্যর্থ হয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা হাসপাতাল ছেড়ে পালিয়ে যায়।

নাসিমার স্বামী রাশেদুল ইসলাম অভিযোগ করেন, রোজ হাসপাতালের ডাক্তার ও নার্সদের দায়িত্বহীনতার কারণেই তার স্ত্রী মারা গেছেন। তিনি দায়ী ডাক্তার ও নার্সসহ রোজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

এদিকে রোজ প্রাইভেট হাসপাতালের ম্যানেজার মিলন সিজারিয়ান অপারেশন করার কথা স্বীকার করে বলেন, রোগীর পেটে পুঁজ হয়ে ইনফেকশন হয়েছিল। পেটে গজ-ব্যান্ডেজ রেখে দেয়ার বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেন।

এ ব্যাপারে রংপুরের সিভিল সার্জন ডা. হিরন্ময় বর্মণ জানিয়েছেন, এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। অভিযুক্ত হাসপাতালের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।


বিএনপির কর্মী ভেবে ডিএসবি সদস্যকে
বিএনপির কর্মী মনে করে প্রকাশ্যে রাস্তায় ডিএসবির কনস্টেবল আবুল বাশারকে
বিস্তারিত
ঝুলে আছে গৃহবধূর লাশ, পালালো
নোয়াখালীর সেনবাগের মোহম্মদপুর ইউনিয়ন থেকে হাছিনা আক্তার পাখি (৩০) নামের
বিস্তারিত
আশুলিয়ায় প্রতারনা চক্রের ১২ সদস্য
চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে প্রতারক
বিস্তারিত
টাঙ্গাইলে পাসপোর্ট অফিসের ৭ দালালের
টাঙ্গাইলে র‌্যাব-১২ অভিযানে আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের ৭ দালালকে আটক করে
বিস্তারিত
সীমান্তে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে
ফেনী ৪ বিজিবি ব্যাটালিয়নের নবনিযুক্ত পরিচালক লে. কর্ণেল মোঃ কামরুজ্জামান
বিস্তারিত
জাহাজ থেকে পানিতে ফেলে শ্রমিক
চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে এক শ্রমিক কর্তৃক অপর শ্রমিককে ধাক্কা দিয়ে পানিতে
বিস্তারিত