শ্রীলঙ্কায় বিতর্কিত রাজনীতিকের জয়ে আতঙ্কে মুসলিমরা

শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী গোটাবায়া রাজাপাকসে বিজয়ী হওয়ায় কিছুটা ভয় ও উদ্বেগ বিরাজ করছে শ্রীলঙ্কার মুসলিমদের মধ্যে। গোটাবায়া দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট মাহিন্দা রাজাপাকসের ভাই। নির্বাচনে তিনি ৫২ শতাংশের বেশি ভোট পান। রাজাপাকসে প্রতিরক্ষামন্ত্রী থাকার সময় তামিল বিচ্ছিন্নতাবাদী বিদ্রোহীদের যেভাবে দমন করেছিলেন, তা নিয়ে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছিল। 
একজন বিতর্কিত রাজনীতিবিদ হয়েও কেন বিজয়ী হলেন, এর কারণ খুঁজতে গেলে দেখা যাবে, এ নির্বাচনকে ঘিরে শ্রীলঙ্কার জনগণের মধ্যে বিভক্তি ছিল স্পষ্ট। বিশ্লেষকরা বলছেন, রাজাপাকসে সিংহলি সংখ্যাগরিষ্ঠ এলাকায় বেশি ভোট পেয়েছেন, অন্যদিকে তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রেমাদাসার জনপ্রিয়তা ছিল সংখ্যালঘু তামিল ও মুসলিমদের মধ্যে। কিন্তু নির্বাচনের আংশিক ফল বেরুনোর পরই স্পষ্ট হয়ে গেছে, গোটাবায়া রাজাপাকসেই বিজয়ী হতে যাচ্ছেন।
গোটাবায়া রাজাপাকসে শ্রীলঙ্কার বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে খুবই জনপ্রিয়। তার ভাই মাহিন্দা রাজাপাকসে প্রায় ১০ বছর শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট ছিলেন এবং শ্রীলঙ্কায় তামিলদের সঙ্গে গৃহযুদ্ধ অবসানের কৃতিত্ব দেওয়া হয় তাদের। সে সময় গোটাবায়া রাজাপাকসে ছিলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। তামিল বিচ্ছিন্নতাবাদীদের যেরকম কঠোর এবং নিষ্ঠুরভাবে তিনি দমন করেছিলেন, সে জন্য তিনি বেশ বিতর্কিত।
রাজপাকসে ভাতৃদ্বয় প্রেসিডেন্ট ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী থাকার সময় কয়েক দশকব্যাপী চলা তামিল টাইগার বিদ্রোহ দমন করা হয়Ñ যে যুদ্ধে সব মিলিয়ে ১ লাখ লোক নিহত হয়েছিল। তা ছাড়া ২০০৫ থেকে ২০১৫ সালের মধ্যে সরকার সমালোচক সাংবাদিক হত্যা, নির্যাতন, তামিলসহ হাজার হাজার মানুষের নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা ঘটে। তাদের বিরুদ্ধে গুরুতর মানবাধিকার লঙ্ঘনেরও অভিযোগ ওঠে; কিন্তু গোটাবায়া রাজাপাকসে বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ অভিযোগ ‘ভিত্তিহীন’ বলে উড়িয়ে দেন। এবারের নির্বাচনি প্রচারাভিযানেও রাজাপাকসে নিরাপত্তার বিষয়টিকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছিলেন।
তার বিজয়ে শ্রীলঙ্কার সংখ্যাগরিষ্ঠ সিংহলিরা বেশ উৎফুল্ল। সাংবাদিকদের একজন ভোটার বলেন, তিনি সবসময়ই চেয়েছিলেন রাজাপাকসেই যেন প্রেসিডেন্ট হন। আরেকজন বলেন, রাজাপাকসে শ্রীলঙ্কার নিরাপত্তার ব্যাপারে যেসব অঙ্গীকার করেছেন, তার সঙ্গে একমত বলেই তিনি তাকে সমর্থন দিয়েছেন।
গত এপ্রিলে শ্রীলঙ্কায় এক ভয়ংকর সন্ত্রাসবাদী হামলার পর এটি ছিল শ্রীলঙ্কায় প্রথম নির্বাচন। ইসলামিক স্টেটের সঙ্গে সম্পর্কিত জঙ্গিরা শ্রীলঙ্কার গির্জা এবং অভিজাত হোটেলগুলোকে টার্গেট করে এ হামলা চালিয়েছিল, যাতে নিহত হয় আড়াইশর বেশি মানুষ।
শ্রীলঙ্কার মুসলিমরা অভিযোগ করেন, গেল সাত মাস ধরে দেশটিতে মুসলিমদের বিরুদ্ধে একটা ঘৃণা ছড়ানোর অভিযান চলছে এবং এর পেছনে ছিল কট্টরপন্থি বৌদ্ধ গোষ্ঠীগুলো। বিবিসির জিল ম্যাকগিভারিং বলেছেন, শ্রীলঙ্কার মুসলিমরা আড়ালে স্বীকার করেন, তারা রাজাপাকসের বিজয়ের সম্ভাবনায় ভীত ছিলেন, কারণ তার বিরুদ্ধে মুসলিমবিরোধী উগ্রপন্থিদের সুরক্ষা দেওয়ার অভিযোগ আছে। মুসলিমরা এমনও আশঙ্কা করেছিলেন, রাজাপাকসে জিতলে সহিংসতা ও বর্ণবাদ বেড়ে যাবে।
অবশ্য নির্বাচনের ফল বেরোনোর পর রাজাপাকসে এক টুইটে জাতীয় ঐক্যের আহ্বান জানিয়ে বলেন, শ্রীলঙ্কার ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সব মানুষ এ নতুন যাত্রার সাথি। রাজাপাকসে তার নির্বাচনি প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, নিরাপত্তার ক্ষেত্রে কী ধরনের ব্যবস্থা নেন, সেটা দেখার অপেক্ষায় থাকবেন অনেকে।
অন্যদিকে সাজিথ প্রেমাদাসা ভালো করেছেন তামিল সংখ্যাগরিষ্ঠ উত্তরাঞ্চলে। তিনি জোরালো সমর্থন পেয়েছিলেন তামিল এবং মুসলিমদের কাছ থেকে। কিন্তু শ্রীলঙ্কার বর্তমান সরকারের সঙ্গে প্রেমাদাসার সম্পর্ক তার ভাবমূর্তি ক্ষুণœ করেছিল।
শ্রীলঙ্কা গত কিছুদিন ধরে যে অস্থিরতার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে, সেখান থেকে দেশটিকে স্থিতিশীল করতে রাজাপাকসে ভূমিকা রাখবেন বলে তার সমর্থকরা আশা করছেন। রাজাপাকসে আরও বলেছিলেন, নির্বাচনে বিজয়ী হলে তিনি চীনের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের চেষ্টা করবেন।
চীনের কাছে শ্রীলঙ্কা যেরকম ঋণগ্রস্ত, সেটি নিয়ে দুদেশের সম্পর্কে বেশ টানাপড়েন চলছে। শ্রীলঙ্কার রাজনীতিতে এটি বেশ স্পর্শকাতর বিষয়। সে কারণে বিশ্লেষকদের মতে, চীনের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের কাজটি সহজ হবে না, বিশেষ করে যখন তাকে ভারতের সঙ্গেও একটি ভারসাম্যপূর্ণ বজায় রাখতে হবে। 

ি সূত্র : বিবিসি ও আলজাজিরা


শীতকালের তাৎপর্য ও বিধিবিধান
শরিয়তে বিধানের অন্যতম একটি বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, কষ্ট বা প্রয়োজনের সময়
বিস্তারিত
পাথেয়
  ‘যেখানে থাকো, যে অবস্থায় থাকো, আল্লাহর ব্যাপারে তাকওয়া অবলম্বন করবে।
বিস্তারিত
শ্রেষ্ঠ নবীর শ্রেষ্ঠ স্বভাব
গত শুক্রবার মসজিদে নববিতে শীতার্ত এক বয়োবৃদ্ধ ওমরায় আগমনকারী গভীর
বিস্তারিত
মহিলাদের কবর জিয়ারত প্রসঙ্গে
কবর জিয়ারত পুরুষদের সঙ্গেই সম্পৃক্ত। নবীজি (সা.) বলেন, ‘তোমরা কবর
বিস্তারিত
পরিবেশ ও প্রকৃতি : ইসলামি
প্রাকৃতিক সৌন্দর্য রক্ষা ও দূষণ প্রতিরোধে সবার যথোচিত দায়িত্ব পালন
বিস্তারিত
লজ্জা অনৈতিক কাজের প্রতিবন্ধক
আল্লাহ তায়ালা বান্দাকে ভালো আর মন্দ, পাপ আর নেক উভয়
বিস্তারিত