চকরিয়ায় হত্যা মামলার পলাতক আসামী স্বামী-স্ত্রী গ্রেপ্তার

কক্সবাজারের চকরিয়ায় আবুল কাশেম প্রকাশ বদি আলম হত্যা মামলার দুই পলাতক আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রবিবার রাতে চকরিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল্লাহ আল মাসুদের নেতৃত্বে একদল পুলিশ চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বুড়ির দোকান এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, চকরিয়া উপজেলার ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের জমিদারপাড়া এলাকার মৃত নুরুল হকের ছেলে মনির আলম প্রকাশ মনিরা (৩৭) ও তার স্ত্রী রোহেনা বেগম (২৫)। 

পুলিশ জানায়, সোমবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে হাজির করা হলে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার ব্যাপারে তারা আদালতের স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দেয়।  

গ্রেপ্তার অভিযানের নের্তৃত্ব দেয়া চকরিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল্লাহ আল মাসুদ বলেন, ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের আবুল কাশেম প্রকাশ বদি আলম হত্যা মামলার দুই পলাতক আসামী মনির আলম ও তার স্ত্রী রোহেনা বেগম চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বুড়ির দোকান এলাকায় অবস্থান নেয়ার গোপন সূত্রে খবর পেয়ে থানার এএসআই খাইরুলসহ সঙ্গিয় ফোর্স নিয়ে শনিবার দুপুর থেকেই ওই এলাকায় অবস্থান নিই। রবিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত তাদের গতিবিধি পর্যবেক্ষনে থেকে ওইদিন রাত সাড়ে ৭টার দিকে তাদের গ্রেপ্তার করে পরে চকরিয়া থানায় নিয়ে আসা হয়। এসআই আব্দুল্লাহ আল মাসুদ আরও বলেন, সোমবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে আসামীদের আদালতের কাছে সোপর্দ করা হলে সেখানে তারা হত্যাকাণ্ডের দায় শিকার করে ১৬৪ ধারা মতে জবানবন্দি প্রদান করেন। পরে তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করেন আদালত। 

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাবিবুর রহমান বলেন, চকরিয়া উপজেলার ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের আবুল কাশেম প্রকাশ বদি আলম হত্যা মামলার এজাহার নামীয় দুই পলাতক আসামীকেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রবিবার রাতে চকরিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল্লাহ আল মাসুদের নেতৃত্বে একদল পুলিশ চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বুড়ির দোকান এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে। সোমবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে আদালতে সোপর্দ করা হলে সেখানে তারা হত্যাকান্ডের দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারা মতে জবানবন্দি প্রদান করেন। 

ওসি হাবিবুর রহমান আরও বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের স্বীকারোক্তি মতে এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় স্থানীয় প্রভারশালী ব্যক্তিদের জড়িত থাকার বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া গেছে। বিষয়টি আরও গভীরভাবে তদন্ত করে এ ঘটনার সাথে কারা কারা জড়িত সে ব্যাপারে রহস্য উদঘাটন করে তাদেরকে আইনের আওতায় আনার চেষ্টা করছে পুলিশ।       

প্রসঙ্গত: চলতি বছরের ১৫ জুন পারিবারিক বিরোধকে কেন্দ্র করে ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের জমিদারপাড়া এলাকায় আপনভাই  মনির আলম প্রকাশ মনিরা (৩৭) ও তার স্ত্রী রোহেনা বেগমের হাতে খুন হয় আবুল কাশেম প্রকাশ বদি আলম। এ ঘটনার পরদিন নিহত আবুল কাশেমের স্ত্রী ছেনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে ঘটনার সাথে জড়িত দুইজনকে আসামী করে চকরিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। অবশেষে এ মামলার চারমাস পর পুলিশ চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বুড়ির দোকান এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে। 

 


বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে বিচারপতি ও প্রেস
গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় শুক্রবার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর
বিস্তারিত
শিশু আমির ফিরে পেলো পরিবার
চারদিন পর শিশু আমির হোসেন (৮) ফিরে পেলো পরিবারকে। সে
বিস্তারিত
রাজশাহীর সাংবাদিক ফটিক আর নেই
রাজশাহীর জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক আনোয়ারুল আলম ফটিক (৬০) আর নেই। বৃহস্পতিবার
বিস্তারিত
ছড়া সংসদ রংপুরের অভিষেক ও
রংপুর বিভাগের ছড়া লিখিয়েদের সংগঠন ছড়া সংসদ রংপুরের কার্যনির্বাহী কমিটির
বিস্তারিত
জাতীয় পর্যায়ে গীতা পাঠ প্রতিযোগিতার
জাতীয় পর্যায়ে শ্রী শ্রী গীতা পাঠ প্রতিযোগিতার রংপুর বিভাগীয় চূড়ান্ত
বিস্তারিত
খালেদা জিয়ার মুক্তিতে সরকারের সহযোগীতা
খালেদা জিয়া দুর্নীতির দায়ে কারাদণ্ড ভোগ করছে আর দুর্নীতির দায়ে
বিস্তারিত